মঙ্গলবার ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৮ জুন ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বেগম জিয়া কি জঙ্গীদের নিয়ে ক্ষমতায় যেতে চান ॥ ইনু

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে জঙ্গী প্রতিনিধি আখ্যায়িত করে তাকে রাজনীতি থেকে সম্পূর্ণ বিদায় জানাতে চান তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তথ্য অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে বৃহস্পতিবার সমসাময়িক রাজনীতি প্রসঙ্গে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন তথ্যমন্ত্রী বলেন, মুখে যতই গণতন্ত্রের কথা বলুক, নির্বাচনের কথা যতই বলুক, খালেদা জিয়া দুটি জিনিস প্রমাণ করেছেন। তিনি জঙ্গীদের দোসর, সঙ্গী ও প্রতিনিধি, ভয়ঙ্কর খুনিদের সিন্ডিকেট প্রধান এবং সেই সঙ্গে পাকিস্তানীদের নব্য দালাল।

তিনি বলেন, আর তাই জঙ্গীদের যেমন নির্মূল ও ধ্বংস করতে হবে, তেমনি জঙ্গী প্রতিনিধি খালেদা জিয়াকেও রাজনীতি থেকে সম্পূর্ণ বিদায় জানাতে হবে। তখনই কেবল বাংলাদেশে জঙ্গী উৎপাত বন্ধ হবে। দেশ, জাতি, গণতন্ত্র ও শান্তির প্রয়োজনে এর কোন বিকল্প নেই।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়ার জঙ্গীদের পক্ষ নেয়াটা কি কোন কৌশলগত অবস্থান? আমি মনে করি এটা কৌশলগত অবস্থান নয়, এটা একটা আদর্শিক, নীতিগত অবস্থান। সরকার যখন একে একে জঙ্গীদের ঘাঁটি চিহ্নিত করে ধ্বংস করে দিচ্ছে তখনই খালেদা জিয়া জঙ্গীদের প্রতি সহমর্মিতা দেখাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন জানিয়ে ইনু বলেন, সিলেটে জঙ্গীবিরোধী অভিযান চলাকালে তিনি বলেছেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য তদন্ত করা উচিত। গণতন্ত্রের ঘাটতি পূরণ করবে জঙ্গীবাদ।

Sheikh Rasel

হাসানুল হক ইনু বলেন, আমি এতে অবাক হইনি। কারণ এটি তার নতুন কোন অবস্থান নয়। আমার প্রশ্ন হচ্ছে- জঙ্গীদের প্রতি খালেদা জিয়ার সহমর্মিতা কেন? বেগম জিয়া কি জঙ্গীদের নিয়ে ক্ষমতায় যেতে চান? জঙ্গী সমর্থন ছাড়া কি খালেদা জিয়া ও তার দল অসহায়?

এ সময় প্রধান তথ্য কর্মকর্তা কামরুন নাহার ও তথ্য অধিদফতরের সিনিয়র উপপ্রধান তথ্য অফিসার (প্রেস) আকতার হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

শীর্ষ সংবাদ:
বন্যাদুর্গত এলাকায় সেতু নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         স্বেচ্ছাসেবক লীগের ঢাকার সব কমিটি বিলুপ্ত         বাসের ধাক্কায় ক্ষতিগ্রস্ত পদ্মা সেতুর বুথের ব্যারিয়ার         বুধবার শুরু হচ্ছে প্রাথমিকে ‘পাইলটিং বদলি’         সবাইকে বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক পরতে হবে, অন্যথায় শাস্তি         বন্যা : মৃত্যু বেড়ে ৮৭, বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত ৭৭৩১         বিদেশিদের কথায় কখনো লাফানো উচিত নয় : ড. মোমেন         পাতাল রেল: জাপানের সঙ্গে ১১৪০০ কোটি টাকার ঋণচুক্তি         টিকা পেতে ৫-১২ বছরের শিশুদের নিবন্ধনের আহ্বান স্বাস্থ্যমন্ত্রীর         ঢাবি মনোবিজ্ঞানের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ৭ শিক্ষকের অনাস্থা         অবাধ নির্বাচনের জন্য ইসির গ্রহণযোগ্যতা, নিরপেক্ষতা ও সক্ষমতা গুরুত্বপূর্ণ : ওবায়দুল কাদের         আগামী ৬ জুলাই থেকে চলবে পশুবাহী বিশেষ ট্রেন         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৩, শনাক্ত ২০৮৭         পদ্মা সেতুতে স্পিডগান-সিসিটিভি বসানোর পর বাইকের বিষয়ে সিদ্ধান্ত         শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অনিয়ম-দুর্নীতি রোধে অটল ডিআইএ         আলোচনার মাধ্যমে পরবর্তী সময়ে বস্তুনিষ্ঠ সিদ্ধান্তে উপনীত হবো : সিইসি         রফতানি আয়ে ৫০ বিলিয়নের ক্লাবে বাংলাদেশ         সৌদিতে ভিক্ষা করা পঙ্গু মতিয়ারের সংসার চলে কৃষি কাজে         ডেঙ্গু : আরও ৪৭ রোগী হাসপাতালে         একনেকে ১০ প্রকল্প অনুমোদন