বুধবার ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

কেউ যাতে দুর্নীতি করতে সাহস না পায়- এমন পরিবেশ চাই

  • মানববন্ধনে দুদক চেয়ারম্যানের আহ্বান

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশের কেউ যাতে দুর্নীতি করতে সাহস না পায় নাগরিকদের সম্মিলিতভাবে এমন পরিবেশ তৈরির আহ্বান জানিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ। একইসঙ্গে মাদক ব্যবসায় কোন সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী সম্পৃক্ততা বা সহযোগিতার প্রমাণ পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। তবে আইন মানলে দুদক কাউকেই গ্রেফতার করবে না বলে জানিয়েছেন তিনি। দুদকের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে মঙ্গলবার সকাল ১০টায় দুর্নীতি প্রতিরোধ সপ্তাহ-২০১৭ পালনের অংশ হিসেবে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে করা এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন। মানববন্ধনে কমিশনের সকল স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী, আইনজীবী, গার্লস গাইড, বয়েজ স্কাউটসহ বিভিন্ন পেশা-শ্রেণীর প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, আমরা দুর্নীতি প্রতিরোধে জনগণের অকুণ্ঠ সমর্থন পাচ্ছি। সম্মিলতভাবে দেশে এমন পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে যাতে দুর্নীতি করতে কেউ সাহস না পায়। ২৬ মার্চ থেকে দুর্নীতি প্রতিরোধ সপ্তাহ চলছে। তবে আমরা অনুধাবন করেছি, দুর্নীতি কমাতে ছাত্র-শিক্ষক, বুদ্ধিজীবী, পেশাজীবী, চাকরিজীবী, সুশীল সমাজসহ সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে সম্পৃক্ত করতে হবে। তিনি বলেন, সমাজে দুর্নীতির পাশাপাশি নতুন উপসর্গ হয়ে এসেছে মাদক। জনশ্রুতি আছে এমন ১৬-১৭ জন মাদক সম্রাটের সম্পদের হিসাব আমরা চেয়েছি। এগুলো অনুসন্ধান করা হবে এবং অভিযোগের সত্যতা পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া মাদক ব্যবসায় যদি কোন সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীর সম্পৃক্ততা বা সহযোগিতার প্রমাণ পাওয়া যায় তাহলে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাংবাদিকগণের প্রশ্নের জবাবে দুদক চেয়ারম্যান বললেন, দুদকের কার্যক্রম কোনরূপ শিথিল হয়নি। নিয়মিত জিজ্ঞাসাবাদ, মামলা দায়ের ও চার্জশীট অনুমোদন দেয়া হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, দুদক এমন কোন সংস্থা নয়, যারা শুধু আসামিদের গ্রেফতার করবে। কিন্তু তদন্তকারী কর্মকর্তারা তখনই কোন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেন যখন তিনি আইন ভঙ্গ করেন কিংবা আইনী তলবের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করেন। আইন ভঙ্গকারীকে আইনের আওতায় আনার জন্যই গ্রেফতার করা হয়। আইন মানলে দুদক কাউকেই গ্রেফতার করবে না। কমিশন দুর্নীতি দমন ও প্রতিরোধে রাষ্ট্রীয় একটি সংস্থা। আমাদের দায়িত্ব দুর্নীতি নির্মূল তথা নিয়ন্ত্রণ করা। আমাদের প্রতিটি পদক্ষেপই আইন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত।

ইকবাল মাহমুদ বলেন, মানববন্ধনের উদ্দেশ্য হচ্ছে দুর্নীতিকে ‘না’ বলা। দুর্নীতির কুফল সম্পর্কে মানুষকে বিশেষ করে ছাত্রছাত্রীদের সচেতন করা। সবাই সচেতন হলেই দেশে দুর্নীতির মাত্রা কমিয়ে আনা সম্ভব হবে। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যেসব বড় বড় দুর্নীতিবাজ দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন, দেশে আসলেই তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে এবং তাদের কীভাবে দেশে ফিরিয়ে আনা যায় সে বিষয়টি খতিয়ে দেখছে কমিশন। মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দুদক কমিশনার এএফএম আমিনুল ইসলাম, সচিব আবু মোঃ মোস্তফা কামাল, মহাপরিচালক ড. মোঃ শামসুল আরেফিন, মোঃ আতিকুর রহমান খান, মোঃ মইদুল ইসলাম, মোঃ আসাদুজ্জামান, ফরিদ আহমদ ভূইয়া প্রমুখ।

শীর্ষ সংবাদ:
কুয়াকাটায় টোয়াকের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত         ওমিক্রন ঠেকাতে প্রবাসীদের আসতে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে         বগুড়ার শেরপুরে ট্রাকের ধাক্কায় দুই মটরসাইকেল অরোহী নিহত         ডাসারে মোটরসাইকেল চাপায় ইউপি সদস্য নিহত         রামপুরায় বাসে আগুন ও ভাঙচুর ॥ আসামি ৮০০         যুক্তরাষ্ট্রে কিশোরের গুলিতে নিহত ৩, আহত ৮         রেফারিকে হত্যার হুমকি আর্জেন্টাইন ফুটবলারের         নিরাপদ সড়ক দাবি ॥ রামপুরায় শিক্ষার্থীদের অবরোধ         শারীরিক উপস্থিতিতে শুরু হলো আপিল বিভাগের বিচারকাজ         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মৃত্যু বেড়েছে ২ হাজার ৩০০ জনের         বায়োএনটেক প্রধান ওমিক্রন নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন         সব গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়         বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যে রাজশাহীর পৌর মেয়র আব্বাস গ্রেফতার         ঢাবি জাতিকে যা কিছু উপহার দিয়েছে তা নিঃসন্দেহে গর্ব ও গৌরবের         রোহিঙ্গাদের উচিত এখন নিজ দেশে ফিরে যাওয়া         জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম আর নেই         জাপানে ওমিক্রন শনাক্ত         শতবর্ষের আলোয় আলোকিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়         রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়ল এক মাস         আগাম জামিন নিতে আসা শংক দাস বড়ুয়া কারাগারে