বুধবার ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মামলা না তোলায় মহিলাকে অ্যাসিড, ধৃত স্বামী ও ভাসুর

মামলা না তোলায় মহিলাকে অ্যাসিড, ধৃত স্বামী ও ভাসুর

অনলাইন ডেস্ক ॥ মারধরের পরে দু’চোখে অ্যাসিড দিয়ে খুনের চেষ্টার অভিযোগে শুক্রবার দুপুরেই সাতজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা শুনিয়েছে ঘাটাল আদালত। দাসপুরের সৈয়দ আলি হোসেনের উপর সেই অ্যাসিড হামলার রায় ঘিরে চর্চা থিতোতে না থিতোতেই ফের অ্যাসিড হানা ঘাটাল মহকুমারই চন্দ্রকোনার গ্রামে। এ বার আক্রান্ত বছর পঁচিশের এক বধূ।

চন্দ্রকোনার ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বিকেলে। মহিলার অভিযোগ, বধূ নির্যাতনের মামলা তুলে নিতে চাপ দিলেও তিনি রাজি হননি। তাই স্বামী ও ভাসুর অ্যাসিডকে হাতিয়ার করেছে। অ্যাসিডে পুড়ে গিয়েছে ওই মহিলার দুই হাতের বেশ খানিকটা অংশ। রামজীবনপুর প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসা করানো হয়েছে তাঁর। শুক্রবার রাতেই জখম মহিলা তাঁর স্বামী আবু হেনা খান এবং ভাসুর আবু মুসা খানের বিরুদ্ধে চন্দ্রকোনা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। শনিবার পুলিশ দু’জনকেই গ্রেফতার করেছে। পশ্চিম মেদিনীপুরের জেলা পুলিশ সুপার ভারতী ঘোষ বলেন, ‘‘অভিযুক্ত দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গোটা ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’’

স্ত্রীকে লক্ষ করে অ্যাসিড ছোড়ার ঘটনা অবশ্য এই প্রথম নয়। কিছুদিন আগে গাইঘাটায় মধ্যবয়সী এক মহিলার মুখ অ্যাসিড দিয়ে পুড়িয়ে দিতে চেয়েছিল তাঁর স্বামী। জয়নগরের তরুণী মনীষা পৈলানের মুখও অ্যাসিডে পুড়িয়ে দিয়েছিল প্রাক্তন স্বামী। চন্দ্রকোনায় জখম মহিলার সঙ্গেও স্বামীর অশান্তি চলছিল। দশ বছর ধরে বিবাহিত ওই দম্পতির দুই মেয়ে রয়েছে। বধূর অভিযোগ, অন্য মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে বছর তিনেক আগে থেকে পরিবারে অশান্তি শুরু হয়। নির্যাতন চলতে থাকে ওই বধূর উপর। শেষে গত বছর অক্টোবরে স্বামী-সহ শ্বশুরবাড়ির আট সদস্যদের বিরুদ্ধে বধূ নির্যাতনের মামলা দায়ের করেন ওই মহিলা। তারপর থেকে দুই মেয়েকে নিয়ে চন্দ্রকোনারই অন্য একটি গ্রামে বাপের বাড়িতে রয়েছেন তিনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার বিকেলে সাইকেলে গ্রামের ব্যাঙ্ক থেকে ফিরছিলেন ওই বধূ। হঠাৎ মোটরবাইকে এসে তাঁর পথ আটকান স্বামী ও ভাসুর। ওই মহিলার কথায়, ‘‘আমার বর বাইকে বসেছিল আর অ্যাসিডের বোতল ছিল ভাসুরের হাতে। ভাসুর বলল, ‘মামলা তো তুলবি না। তাই তোকে মেরে দিলেই মামলা শেষ।’ আর তারপরই অ্যাসিড ছুড়ল।’’ মহিলার দাদা রিজাউল খানের আক্ষেপ, ‘‘বোনকে কখনও একা ছাড়ি না। কিন্তু শুক্রবার আলু তোলার কাজে ব্যস্ত থাকায় ওকে একা ব্যাঙ্কে পাঠিয়েছিলাম। তখনই এই কাণ্ড।”

ঘাটাল মহকুমায় অ্যাসিড হামলার ঘটনা নতুন নয়। কখনও প্রেমের সম্পর্কে নারাজ তরুণীর গা ঝলসে গিয়েছে অ্যাসিডে, কখনও আবার বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে অ্যাসিড হানার শিকার হয়েছেন মহিলা। দাসপুরের যে ঘটনায় শুক্রবার সাত অভিযুক্তের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়েছে, তার মূলে আবার ছিল সালিশি নিয়ে গোলমাল। প্রতি ঘটনার পরই খোলা বাজারে অ্যাসিডের সহজলভ্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। দেখা গিয়েছে, ঘাটাল, দাসপুরে সোনার কাজ হওয়ায় অ্যাসিড এখানে সহজে মেলে। অ্যাসিড বিক্রি ও মজুতের ক্ষেত্রে নিয়মও মানা হয় না। এ ক্ষেত্রে নজরদারির ফাঁক রয়েছে বলেই অভিযোগ। যদিও ঘাটালের মহকুমাশাসক পিনাকিরঞ্জন প্রধান বলেন, “সরকারি নিয়ম মেনে যাতে অ্যাসিড বিক্রি হয়, সে জন্য নজরদারি আরও বাড়ানো হবে।”

তবে চন্দ্রকোনায় জখম মহিলার স্বামী ও ভাসুর পেশায় চাষি। ফলে, তাদের হাতে অ্যাসিড কী ভাবে এল তা এখনও স্পষ্ট নয়। পুলিশ জানিয়েছে, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আর জখম মহিলার অ্যাসিড-ক্ষতের থেকে মনের ক্ষত আরও দগদগে। তিনি বলছেন, ‘‘সংসারে অশান্তি ছিল। মেয়েদের নিয়ে তো আলাদাই ছিলাম। তারপরও যে স্বামী-ভাসুর এ ভাবে অ্যাসিড ছুড়বে, দুঃস্বপ্নেও ভাবিনি।’’

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৩১৫০৭৬৮৫
আক্রান্ত
৩৫২১৭৮
সুস্থ
২৩১৩৪৭১২
সুস্থ
২৬০৭৯০
শীর্ষ সংবাদ:
প্রতিরোধের প্রস্তুতি ॥ শীতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা         বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাস্তবসম্মত রোডম্যাপ চাই         সাউদিয়ার টিকেট নিয়ে হাহাকার- ক্ষোভ প্রবাসীদের         স্বাস্থ্যখাত যেন লুটপাটের সোনার খনি         নেদারল্যান্ডস-নিউজিল্যান্ড থেকে পেঁয়াজ আসছে         করোনায় দেশে মৃত্যু পাঁচ হাজার ছাড়িয়েছে         জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিনরাত কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী         ৮ বিভাগে ৭১ উপজেলায় প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন করা হচ্ছে         শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার আগে এইচএসসি পরীক্ষা হচ্ছে না         কুকুর নিধন কিংবা অপসারণ করবে না উত্তর সিটি         জলবায়ু পরিবর্তনে ঠিক থাকছে না শরতের আবহাওয়া         স্ত্রীর কথায় হাতি কিনলেন দরিদ্র কৃষক         অবশেষে কালুরঘাটে সড়ক-রেল সেতু নির্মাণ হচ্ছে         জার্মানির সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে কাজ করতে হবে : স্পিকার         অর্থনীতি সচল রেখে করোনার দ্বিতীয় ওয়েভ মোকাবিলা করা হবে : মন্ত্রিপরিষদ সচিব         ৫৪ হাজার রোহিঙ্গাকে ফেরত দিতে চায় সৌদি : পররাষ্ট্রমন্ত্রী         শ্রমিকের বেতন নিয়ে তালবাহানা মানা হবে না : সাকি         আইন অনুযায়ী নুরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         বাড়ির পাশ দিয়ে রাস্তা নেয়ার জন্য বাড়তি সড়ক না নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         কারা ডিআইজি বজলুরের সম্পতি ক্রোক ও ব্যাংক হিসাব ফ্রিজের নির্দেশ