মঙ্গলবার ৭ আশ্বিন ১৪২৭, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

আড়াই হাজারের বেশি ছাত্র পড়ার সুযোগ পাবে এমআইএসটিতে

আনোয়ার রোজেন ॥ রাজধানীর মিরপুর সেনানিবাসে অবস্থিত মিলিটারি সায়েন্স এ্যান্ড টেকনোলজির (এমআইএসটি) অবকাঠামোগত সুবিধা সম্প্রসারণ করা হচ্ছে। এর ফলে আড়াই হাজারেরও বেশি সামরিক-বেসামরিক শিক্ষার্থী এবং ৪০০ শিক্ষক-কর্মকর্তার জন্য আধুনিক ভৌত সুবিধা দেয়া সম্ভব হবে। এ সংক্রান্ত একটি প্রকল্প প্রস্তাব চূড়ান্ত করেছে পরিকল্পনা কমিশন। এ জন্য ধরা হয়েছে প্রায় ৪২১ কোটি টাকা। এর মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটির চারটি অনুষদের আওতায় ১৩টি বিভাগের জন্য শ্রেণীকক্ষ, পাঠাগার, পরীক্ষাগার ও অন্যান্য সুবিধার সংস্থান করা হবে। জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) আগামী সভায় প্রকল্প প্রস্তাবটি অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করা হতে পারে বলে পরিকল্পনা কমিশন সূত্রে জানা গেছে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সরকারের ‘ভিশন ২০২১’, সপ্তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য (এসডিজি) অর্জনে মানসম্পন্ন প্রকৌশল শিক্ষা নিশ্চিত করা জরুরী। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে এমআইএসটির বিভিন্ন বিভাগে গবেষণা সুবিধার উন্নয়ন হবে এবং শিক্ষার উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টি হবে, যা সার্বিকভাবে দেশের উন্নয়নে অবদান রাখবে। একনেকে অনুমোদন পেলে এমআইএসটি কর্তৃপক্ষ ২০২০ সালের জুনের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করবে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সামরিক কর্মকর্তাদের মধ্যে প্রকৌশল শিক্ষা বিস্তারের জন্য মিরপুরের সেনানিবাসে মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এ্যান্ড টেকনোলজি (এমআইএসটি) এর কার্যক্রম ১৯৯৮ সালে শুরু হয়। প্রথমদিকে শুধুমাত্র সামরিক বাহিনীর শিক্ষার্থীরা ভর্তির সুযোগ পেতেন। ২০০১-২০০২ শিক্ষাবর্ষ থেকে বেসামরিক শিক্ষার্থীরাও এখানে ভর্তির সুযোগ পান। এখন মোট শিক্ষার্থীর ৮০ শতাংশ বেসামরিক ও ২০ শতাংশ সামরিক বাহিনীর। তাছাড়া বর্তমানে বিদেশী শিক্ষার্থীরাও এখানে অধ্যয়ন করছেন।

এমআইএসটিতে বর্তমানে চারটি অনুষদের আওতায় প্রকৌশল বিদ্যায় ১২টি বিষয়ে ¯œাতক কোর্স চালু রয়েছে। এগুলো হলো- সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, কম্পিউটার সায়েন্স এ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক্স এ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং, মেক্যানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, এ্যারোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, নেভাল আর্কিটেকচার এ্যান্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং, বায়ো-মেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, নিউক্লিয়ার সায়েন্স এ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, এনভায়রনমেন্ট, ওয়াটার এ্যান্ড কোস্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং, স্থাপত্য বিদ্যা, ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং এবং পেট্রোলিয়াম এ্যান্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং। এছাড়া প্রতিষ্ঠান থেকে সাতটি বিষয়ে স্নাতকোত্তর, তিনটি বিষয়ে এমফিল এবং পাঁচটি বিষয়ে পিএইচডি কোর্স চালু রয়েছে। এর আগে মিরপুর সেনানিবাস মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এ্যান্ড টেকনোলজির (এমআইএসটি) জন্য অবকাঠামো নির্মাণ (২য় পর্যায়) শীর্ষক একটি প্রকল্প জুলাই ২০০৬ থেকে জুন ২০১০ মেয়াদে বাস্তবায়ন করা হয়। এতে ব্যয় হয়েছিল প্রায় ৩১ কোটি টাকা।

সূত্র জানায়, নতুন প্রস্তাবিত প্রকল্পের প্রধান কার্যক্রমগুলো হচ্ছে- এমআইএসটির অভ্যন্তরে ১৪তলা ভিতে ১২তলা বিশিষ্ট দুটি নতুন একাডেমিক ভবন নির্মাণ, ১৩তলা ভিতে ১২তলা বিশিষ্ট পাঠাগার ও পাঠ ভবন নির্মাণসহ প্রয়োজনীয় ভৌত অবকাঠামো নির্মাণ। এছাড়া প্রকল্পের আওতায় পরীক্ষাগার ও অন্যান্য যন্ত্রপাতি সংগ্রহ আসবাবপত্র ক্রয় করা হবে। এ বিষয়ে আর্থ-সামাজিক অবকাঠামো বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সদস্য মোঃ নজরুল ইসলাম পরিকল্পনা কমিশনের মতামত দিতে গিয়ে বলেন, প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে এমআইএসটির মানসম্পন্ন শিক্ষা ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ এবং বিভিন্ন অনুষদ ও বিভাগে শিক্ষার সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টি হবে। এজন্য এর অবকাঠামোগত সুবিধা সম্প্রসারণ প্রয়োজন।

সূত্র জানায়, এমআইএসটির অধিকতর উন্নয়ন ও এর অবকাঠমোগত সুবিধা সম্প্রসারণের জন্য ৪৫৭ কোটি ৪৫ লাখ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারি হতে ২০২০ সালের জুন পর্যন্ত মেয়াদে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য প্রস্তাব করা হয়। এরপর গত বছরের ১২ জুন প্রকল্পের পিইসি সভা অনুষ্ঠিত হয়। পিইসি সভার সিদ্ধান্ত অনুয়ায়ী প্রকল্পটির প্রাক্কলিত ব্যয় ৪২১ কোটি ৯ লাখ টাকা এবং বাস্তবায়নকাল ২০১৭ সালের জানুয়ারি হতে ২০২০ সালের জুন পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়।

জানা গেছে, প্রকল্পটি ২০১৬-১৭ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীতে (এডিপি) বরাদ্দহীনভাবে অনুমোদিত প্রকল্প তালিকায় অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব (ডিপিপি) অনুযায়ী বছর ভিত্তিক যে বরাদ্দ বিভাজন করা হয়েছে, তাতে দেখা গেছে চলতি অর্থবছরের বাকি ছয় মাসে প্রকল্পের জন্য বরাদ্দের পরিমাণ ৬২ লাখ টাকা। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে বরাদ্দ রাখা হয়েছে প্রায় ৮৮ কোটি টাকা, এর পরের অর্থবছরে প্রায় ১৯১ কোটি টাকা এবং ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য বরাদ্দের পরিমাণ প্রায় ১৪২ কোটি টাকা। উল্লেখ, প্রকল্পের সম্পূর্ণ ব্যয় সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে মেটানো হবে।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৩১২৬১৮৭৩
আক্রান্ত
৩৫০৬২১
সুস্থ
২২৮৪৫৮১৬
সুস্থ
২৫৮৭১৭
শীর্ষ সংবাদ:
বাড়ছে প্রাইভেট গাড়ি ॥ যানজট নিরসনে গণপরিবহন বাড়ানোর তাগিদ         সাধারণ পরিষদের ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান         রাজধানী হবে যানজটমুক্ত সচল         পেঁয়াজের ভাণ্ডার ৪ জেলার ওপর বিশেষ নজর         ওয়াসায় বছরে মূল বেতন ৭০ কোটি টাকা, ওভারটাইম ৯৫ কোটি         ডিজির গাড়িচালক হয়ে স্বাস্থ্যে মালেকের পারিবারিক রাজত্ব         ধ্বংসপ্রায় কর্ণফুলী, রক্ষার উদ্যোগ নেই         দেশে করোনায় শনাক্ত সাড়ে তিন লাখ ছাড়িয়েছে         চরে বিদ্যুতের আলো         হাটহাজারী মাদ্রাসায় ছাত্র আন্দোলন দীর্ঘদিনের ক্ষোভের ফসল         বিস্ফোরণের বিষয়ে আগাম সতর্কতা জারি         নৃত্যের আড়ালে নারী পাচার করে দুবাইয়ে নির্যাতন চালানো হতো         প্রধানমন্ত্রীর ১০ বিশেষ উদ্যোগ জানবে সারাদেশ         ভিপি নুর গ্রেফতার         ‘শেখ মুজিব এ নেশন’স ফাদার’ শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন         ধর্ষণ মামলার প্রতিবাদে শাহবাগে ভিপি নুরদের বিক্ষোভ         স্বাস্থ্যের সেই গাড়িচালক আব্দুল মালেক বরখাস্ত         করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রীর দুই অনুশাসন         ডাকসু ভিপি নুরের বিরুদ্ধে ঢাবি ছাত্রীর ধর্ষণ মামলা         বিজিবির ১৯১ জনের মুক্তিযোদ্ধা গেজেট বাতিল স্থগিত