ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ১৬ আগস্ট ২০২২, ১ ভাদ্র ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

এফটিপিওর দাবির সমালোচনায় ফারুকী

প্রকাশিত: ০৬:৩৮, ৬ ডিসেম্বর ২০১৬

এফটিপিওর দাবির সমালোচনায় ফারুকী

সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ টিভি সংশ্লিষ্ট কলাকুশলীদের বিভিন্ন সংগঠনের জোট এফটিপিওর সাত দফা দাবির মধ্যে কয়েকটির সমালোচনা করেছেন নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। তার মতে, এসবের কোন যুক্তি নেই। সোমবার ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে দাবিগুলো কেন অযৌক্তিক সেই ব্যাখ্যা দিয়েছেন ফারুকী। তিনি মনে করেন, বিদেশী সিরিয়াল বন্ধের দাবি একটি অপ্রয়োজনীয় দাবি। এক্ষেত্রে এফটিপিও বলতে পারত, বিদেশী সিরিয়ালের চাঙ্ক এক ঘণ্টার বেশি রাখা যাবে না। নতুন সাত দফার মধ্যে নাটকের বাজেট দ্বিগুণ করার দাবি প্রসঙ্গে ফারুকী বলেন, যে প্রোডাকশন চলবে না সেটারও টাকা দ্বিগুণ দিতে হবে? বাজেট নির্ধারণ করবে বাজার, কোন সংঘশক্তি না। আবার কোন চ্যানেল তার ব্র্যান্ড ইমেজের জন্য একটা খুব ভালমানের প্রোডাকশন বানাতে পারে অনেক টাকা দিয়ে, যেটা হয়ত জনপ্রিয় হবে না। সেটাও চ্যানেলের এখতিয়ার, এফটিপিওর না। এদিকে যোগ্য ব্যক্তিদের দিয়ে প্রিভিউ কমিটি গঠন করার দাবিও জানিয়েছে এফটিপিও। টেলিভিশনগুলোর প্রিভিউ কমিটির বেহাল দশার বিষয়টি মেনে নিয়েছেন ফারুকীও। তবে এটাকেও তিনি মনে করছেন অর্ধসেদ্ধ দাবি। ফারুকীর মতে অডিয়েন্স কাউন্ট জেনুইন হয়ে গেলে অডিয়েন্সই জানাবে তার মতামত। তখন আর আজেবাজে কাজ দিয়ে পার পাওয়া যাবে না। আর অজনপ্রিয় অথচ আর্টিস্টিক্যালি মানসম্পন্ন কাজগুলোর ক্ষেত্রে কী হবে? ওটা টিভি চ্যানেল তার ব্র্যান্ড ইমেজ বাড়ানোর জন্যই করবে। তারাই বিচার করবে কাকে দিয়ে কাজ করালে তার ইমেজ বাড়বে। সেখানেও সংঘশক্তির কিছুই করার নেই। এছাড়া বিদেশী চ্যানেলে প্রতারণার মাধ্যমে বিজ্ঞাপন ব্যবসা দ্রুততা ও সততার সঙ্গে বন্ধ করার জন্য সরকারের প্রশংসা করেন ফারুকী। তিনি মনে করেন, এটা অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। আগামীতেও সরকারের কাছে দেশের স্বার্থে সবসময় এমন দায়িত্বপূর্ণ পদক্ষেপ দেখার প্রত্যাশা তার।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২