মঙ্গলবার ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

শেখ জামালকে হারিয়ে জয়ের ধারায় রহমতগঞ্জ

  • বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবলের ময়মনসিংহ পর্ব শুরু, রহমতগঞ্জ ১-০ শেখ জামাল

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দু’দিন বিরতির পর বৃহস্পতিবার থেকে ময়মনসিংহে শুরু হয়েছে জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবলের খেলা। বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিক উদ্দিন ভুঁইয়া স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দিনের একমাত্র ম্যাচে শেখ জামাল ধানম-ি ক্লাব লিমিটেডকে ১-০ গোলে হারিয়ে তিন ম্যাচ পর আবারও জয়ের ধারায় ফিরলো রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটি। জয়সূচক একমাত্র গোলটি করেন সিও জোনাপিও। এই জয়ে ১৪ ম্যাচে ২৫ পয়েন্ট নিয়ে জামালকে নামিয়ে দিয়ে তৃতীয় অবস্থানে উঠে এলো রহমতগঞ্জ। সমান ম্যাচে জামালের পয়েন্ট ২২। প্রথম লেগের মোকাবেলায় উভয়দলের খেলাটি ড্র হয়েছিল ১-১ গোলে।

ঢাকায় শেষ তিন ম্যাচে টানা হারাতে গুঞ্জন উঠেছিল রহমতগঞ্জ কি তবে পাতানো ম্যাচ খেলছে? গুজবের ডালাপালা ছড়িয়ে পড়েছে। সেটাকে আপাতত ধাপাচাপা দিতে পেরেছে রহমতগঞ্জ জামালকে ঘাম ঝরানো ম্যাচে হারিয়ে।

ম্যাচের শুরু থেকে আক্রমণ-প্রতি আক্রমণে ব্যস্ত ছিল উভয়দল। তবে বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিল রহমতগঞ্জই। যদিও এই অর্ধে অন্তত তিনটি গোলের সুযোগ নষ্ট করে তারা। ৩০ মিনিটে সিও জোনাপিও জামালের বক্সে ঢুকে পড়েন। তাকে বক্সে ট্যাকল করে বল বিপদমুক্ত করেন জামালের আক্রমণভাগের খেলোয়াড় শিহাব। ৩৫ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে সতীর্থকে উদ্দেশ করে এনামুলের বাড়িয়ে দেয়া বল বক্সে বিপদমুক্ত করেন রহমতগঞ্জের নাইজিরিয়ান ডিফেন্ডার এলেটা বেঞ্জামিন জুনিয়র। ৩৯ মিনিটে এলেটার থ্রু পাসের বলে বাঁ পায়ে চমৎকার ভলি নেন গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড দাওদা সিসে। অতিকষ্টে কর্নারের বিনিময়ে দলকে গোল হজমের হাত থেকে রক্ষা করেন জামালের গোলরক্ষক।

দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণের ধার বৃদ্ধি করে শেখ জামাল। ৬১ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে গাম্বিয়ান মিডফিল্ডার ল্যান্ডিং ডার্বোয়ের শট কোনমতে বিপদমুক্ত করেন রহমতগঞ্জের গোলরক্ষক। ৬৪ মিনিটে রহমতগঞ্জের পেনাল্টি সীমানার তিন গজ দূর থেকে জামালের নাইজিরিয়ান ফরোয়ার্ড এমেকা ডার্লিংটনের তীব্র শট অল্পের জন্য জড়ায়নি জালে। ৬৮ মিনিটে এগিয়ে যায় রহমতগঞ্জ। ফয়সাল মাহমুদের কর্নার থেকে বল পেয়ে বক্সে হেড নেন মিডফিল্ডার দিদারুল আলম। জামালের গোলরক্ষক হিমেল বল ফিরিয়ে দেন। ফিরতি বলে প্রায় ফাঁকা পোস্ট পেয়ে বাঁ পায়ের দুর্দান্ত শটে বল জালে জড়িয়ে দেন সিও জোনাপিও (১-০)। লীগে এটা জোনাপিও’র ব্যক্তিগত ষষ্ঠ গোল। ৭৪ মিনিটে সমতায় ফেরার সুযোগ পায় জামাল। বক্সের খুব কাছেই ল্যান্ডিংকে ফাউল করেন এলেটা। রেফারি ফ্রি কিক ও হলুদ কার্ডের নির্দেশ দেন। ল্যান্ডিংয়ের দারুণ ভলি বারে লেগে ফেরত আসে। ফিরতি বলে চেষ্টা করেছিলেন বদলি মিডফিল্ডার সারোয়ার জামান নিপু। কিন্তু কপাল খারাপ নিপুর ও জামালের গোল হয়নি। শেষ পর্যন্ত জয়ের আনন্দ নিয়ে কামাল বাবুর দল এবং হারের বিষাদ নিয়ে কাজী জসিমউদ্দিন আহমেদ জোসির দল মাঠ ছাড়ে।

শীর্ষ সংবাদ:
পদ্মা সেতুর টোল বাইক ১০০, কার ৭৫০ টাকা         জনগণের অর্থ ব্যয়ে সাশ্রয়ী হতে হবে ॥ প্রধানমন্ত্রী         জাতি চায় পদ্মা সেতু শেখ হাসিনার নামে হোক ॥ কাদের         ফের ১০ দিনের রিমান্ডে পি কে হালদার         বাধ্যতামূলক ছুটিতে ডিএসইর জিএম আসাদ         ক্ষমতা কমানো হলো পরিকল্পনামন্ত্রীর         ‘বিদ্যুৎ-জ্বালানি খাতে বিনিয়োগকে সরকার উৎসাহিত করছে’ : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী         ২ লাখ ৪৬ হাজার ৬৬ কোটির উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন         দুই শিশুকে নিয়ে বিদেশে যেতে চেয়ে মায়ের আবেদন         শ্রীলঙ্কায় মাত্র একদিনের পেট্রোল মজুত আছে         এবারও ম্যাঙ্গো স্পেশাল ট্রেন চালু হচ্ছে ২২ মে         আশুলিয়ায় গণপিটুনিতে ছিনতাইকারী নিহত         অব্যাহত থাকবে ভ্যাপসা গরম         হালদায় আবারও ডিম ছেড়েছে মা মাছ