মঙ্গলবার ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

নিহত সাত জঙ্গীর পরিচয় শনাক্তে ডিএনএ টেস্ট

  • গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিচ্ছে নারী জঙ্গী শাহনাজ

গাফফার খান চৌধুরী/মোস্তাফিজুর রহমান টিটু/মামুন-অর-রশিদ/ সৌমিত্র মানব ॥ গাজীপুরে পুলিশের অভিযানে নিহত সাত জঙ্গীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। তবে নিহত সাত জনের মধ্যে রবিবার রাত পৌনে আটটা পর্যন্ত ছয় জঙ্গীর পরিচয় মেলেনি। পরিচয় জানতে নিহত জঙ্গীদের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হবে। এজন্য লাশ গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে। এছাড়া সাভারে নিহত জঙ্গীদের অর্থদাতা আব্দুর রহমান স্ত্রী শাহনাজ আক্তার রুমিকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে র‌্যাব। রুমি জেএমবির অর্থায়ন, প্রশিক্ষণ, অবস্থানসহ নানা বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে। সে মোতাবেক জঙ্গীর আরও অর্থদাতা ও প্রশিক্ষিত সদস্যদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। র‌্যাবের অভিযানে টাঙ্গাইলে নিহত দুই জঙ্গীর ঠিকানা রাজশাহীতে মেলেনি। আর গাজীপুরে র‌্যাবের অভিযানে নিহত দুই জঙ্গী দুর্গা পূজায় নাশকতা চালানোর জন্য এক মাস ধরে প্রস্তুতি নিচ্ছিল বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

শনিবার ঢাকা, গাজীপুর ও টাঙ্গাইলে মোট পাঁচটি জঙ্গী আস্তানায় অভিযান চালায় পুলিশ ও র‌্যাব। এতে এক অর্থদাতাসহ ১২ জঙ্গী নিহত হয়। যার মধ্যে ছয় জনের পরিচয় মেলে। হালনাগাদ অভিযানে নব্য জেএমবির ৩৩ সদস্য নিহত হয়েছে।

সাভার থেকে আমাদের নিজস্ব সংবাদদাতা জানান, আশুলিয়ার বাইপাইলের একটি আস্তানা থেকে গ্রেফতারকৃত সোহাগ পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিচ্ছে। অন্যদিকে আশুলিয়ায় নব্য জেএমবির প্রধান অর্থ যোগানদাতা আব্দুর রহমান আয়নাল ওরফে নাজমুল হক ওরফে বাবুর স্ত্রী শাহনাজ আক্তার রুমিকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে র‌্যাব। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রুমি জঙ্গী সদস্যদের অবস্থান, তাদের অর্থায়ন ও প্রশিক্ষণ নিয়ে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে বলে জানান র‌্যাব-৪ সাভার ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর মাসুদুর রহমান। সাভার ক্যাম্পেই এখন তিন সন্তান নিয়ে র‌্যাবের হেফাজতে রয়েছে শাহানাজ। সে নিজেও ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, ছয় মাসে শাহনাজরা আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থানে পাঁচবার বাসা বদল করেছে। শাহনাজ নিজেও ’জিহাদী’ গ্রুপের সদস্য। শনিবার সন্ধ্যায় আশুলিয়ার বাইপাইলের বসুন্ধরা এলাকার আমীর মৃধার পাঁচতলা ভবন মৃধা ভিলাতে অভিযানকালে পাঁচতলা থেকে লাফিয়ে পড়ে মারা যান আব্দুর রহমান। পরে আস্তানাটি থেকে নগদ ৩০ লাখ টাকা, গুলিভর্তি একটি বিদেশী পিস্তল, মোবাইল ফোন জ্যামার, বেশ কিছু সংখ্যক ধারালো ছুরি, চাপাতি, জিহাদী বই, কম্পিউটার, ওয়াটার প্রুফ ক্যামেরা উদ্ধার হয়। আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মহসিনুল কাদির জানান, বাড়ির মালিকের সন্ধান চলছে।

রাজশাহী থেকে আমাদের স্টাফ রিপোর্টার জানান, শনিবার টাঙ্গাইলের কাগমারীতে র‌্যাবের অভিযানে আতিকুর ও সাগর নামে দুই জঙ্গী নিহত হন। তাদের বাড়ি রাজশাহীর চারঘাটে বলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তরফ থেকে প্রাথমিকভাবে জানানো হয়। তবে সংশ্লিষ্ট জায়গায় দুই জঙ্গীর কোন ঠিকানা মেলেনি। স্থানীয় বাসিন্দারাও এ বিষয়ে কিছু বলতে পারেননি।

রবিবার সকালে র‌্যাব রাজশাহীর অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ মাহবুবুল আলম ও চারঘাট মডেল থানার ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মণ জানান, প্রথমিকভাবে অনুসন্ধান করে তাদের কোন ঘরবাড়ির ঠিকানা পাওয়া যায়নি।

গাজীপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার জানান, শনিবার গাজীপুরের আফারখোলা পাতারটেক এলাকার দোতলা বাড়িতে অভিযানে নব্য জেএমবির নেতা ফরিদুল ইসলাম ওরফে আকাশ ওরফে প্রভাতসহ সাত জঙ্গী নিহত হয়। ররিবার নিহত জঙ্গীদের বিরুদ্ধে জয়দেবপুর থানার ওসি খন্দকার রেজাউল হাসান রেজা বাদী হয়ে থানায় অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

গাজীপুরের পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ জানান, অভিযানে একে-২২ বোরের রাইফেলের প্রায় ১০০টি গুলির খোসা, ১০৫টি পিস্তলের গুলি ও একটি পাকিস্তানের তৈরি রিভলবারসহ তিনটি অস্ত্র পাওয়া গেছে। অভিযানকালে জঙ্গীরা তাদের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ও কাগজপত্রগুলো পুড়িয়ে ফেলে।

এদিকে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালের আবাসিক চিকিৎসক প্রণয় ভূষণ দাশ জানান, হাসপাতাল মর্গে নিহত সাত জঙ্গীর ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। জয়দেবপুর থানার ওসি জানান, জঙ্গীদের লাশের ডিএনএ পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

গোয়েন্দা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গাজীপুরে পুলিশের অভিযানে নিহত নব্য জেএমবির ঢাকা অঞ্চলের সামরিক কমান্ডার ফরিদুল ইসলাম ওরফে আকাশের গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলার গান্ধাইল ইউনিয়নের বরইতলা গ্রামে। বাবা-মা তার নাম রেখেছিলেন ফরিদুল। গ্রামে তাকে ফরিদুল নামেই সবাই চিনতেন। জেএমবিতে যোগ দেয়ার পর সংগঠন থেকে ছদ্মনাম দেয়া হয় আকাশ। শুধু নিজে নয়, জঙ্গী দলে যোগ দেয়ার পর মা ও বোনদেরও নব্য জেএমবিতে টেনেছিল আকাশ। পুলিশের হাতে ধরা পড়ে আকাশের মা ও দুই বোন এখন কারাগারে।

সিরাজগঞ্জ পলিটেকনিক ইন্সটিউটের কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগ থেকে প্রায় দেড় বছর আগে ডিপ্লোমা পাস করেছিল ফরিদুল। তার বিরুদ্ধে গত বছরেই জঙ্গী সম্পৃক্ততার অভিযোগ ওঠে। গত বছরের অক্টোবরে ডিবি পুলিশের জঙ্গীবিরোধী অভিযানে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ার রাঘবাড়িয়ায় বেশ কয়েকজন জঙ্গী আটক হয়। আটককৃতদের স্বীকারোক্তিতে সে সময় ফরিদুল ওরফে আকাশের নাম প্রকাশ পায়। ডিবির দায়েরকৃত জঙ্গী মামলায় চার্জশীটভুক্ত আসামি ছিল ফরিদুল।

উত্তরাঞ্চলে একের পর এক টার্গেট কিলিংয়ের অন্যতম প্রশিক্ষক আকাশ গত এক বছর থেকে পলাতক ছিল। তার মা ও দুই বোন জেএমবির ফিদায়ী হিযরত বা আত্মঘাতী ইউনিটের সক্রিয় সদস্য। ফরিদুলের প্ররোচনায় তার মা-বোনসহ অনেকেই জেএমবিতে জড়িয়ে পড়ে। গত ৫ সেপ্টেম্বর ডিবি পুলিশ তার মা ও দু’বোনকে আটক করে। আদালতে ১৬৪ ধরায় তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেয়। আকাশের মা ও বোনসহ আত্মঘাতী দলের চার নারী সদস্য বর্তমানে জেলা কারাগারে রয়েছে।

স্ত্রী ও দুই মেয়ে আটক হওয়ার পর গা-ঢাকা দিয়েছে আকাশের বাবা কাঁচামাল ব্যবসায়ী আবু সাঈদও। কাজীপুরের বরইতলা গ্রামে বেশ কয়েকবার গিয়েও তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। ডিবির অভিযানের পর ছোট মেয়ে সুমাইয়া বর্তমানে বগুড়ার ধুনুটের ভবনগাঁতী গ্রামের নানারবাড়িতে রয়েছে।

গোয়েন্দা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ৩ এপ্রিল বগুড়ার শেরপুরের কুঠিবাড়িতে বোমা বিস্ফোরণে নিহত জেএমবির উত্তরাঞ্চলের নেতা সিরাজগঞ্জ সদরের শিয়ালকোল ইউনিয়নের জামুয়া গ্রামের অধিবাসী তরিকুলের হাত ধরেই জঙ্গী কর্মকা-ে যুক্ত হয় আকাশ। শায়খ আব্দুর রহমানের অনুসারী জঙ্গী নেতা তরিকুল বোমা বিস্ফোরণে নিহত হওয়ার আগে বেশ কয়েকবার তিনি কাজীপুরের বরইতলা গ্রামে ফরিদুলের বাড়িতে এসেছিলেন। তখন আকাশ ও তার স্বজনরা তরিকুলের মাধ্যমে জঙ্গী কর্মকা-ে জড়িয়ে পড়েন। এরপরই নব্য জেএমবির ঢাকা অঞ্চলের সামরিক কমান্ডারের পদ পায় ফরিদুল।

আকাশের মা বোনদের গ্রেফতারের পর সংবাদ সম্মেলনে সিরাজগঞ্জের পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন জানিয়েছিলেন, জঙ্গী সংগঠনের উচ্চ পর্যায়ের নেতাদের পরামর্শে জেএমবিতে নারী সদস্য নিয়ে ফরিদুল দেশব্যাপী ফিদায়ী হামলার জন্য আত্মঘাতী ইউনিট গঠন করে। সেই আত্মঘাতী ইউনিটে আকাশ তার নিজের মা ও দু’বোনসহ বেশ ক’জন প্রতিবেশীকে সম্পৃক্ত করে। আত্মঘাতী ইউনিটটি মূলত তার মাধ্যমে সক্রিয় হয়ে ওঠে। আত্মঘাতী দলের বেশ কয়েকজন সদস্যকে সামরিক ও বোমা বিস্ফোরণ প্রশিক্ষণ দিয়ে হামলার জন্য প্রস্তুত করে রাখা হয়েছিল। হামলার আগে অবিবাহিত নারী সদস্যদের ভালো ঘরে বিয়ে দিয়ে কিছু সময়ের জন্য ঘর-সংসারী করারও প্রলোভন দেখানো হতো। আকাশের মাধ্যমে হাই-কমান্ডের নির্দেশের অপেক্ষায় থাকত নারী সদস্যরা।

গত ৫ অক্টোবর কাজীপুরের বরইতলা গ্রামে জঙ্গীবিরোধী অভিযানে আত্মঘাতী ইউনিটের চার সদস্য নিহত আকাশের মা ফুলেরা বেগম (৪৫), তার দুইবোন শাকিলা খাতুন (১৮) ও সালমা খাতুন (১৬) এবং প্রতিবেশী কাঠমিস্ত্রি রফিকুল ইসলামের স্ত্রী রাজিয়া বেগম (৩৫) গ্রেফতার হয়। ফুলেরা বেগম ছাড়া বাকি ৩ জন আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দিয়ে নিজেদের আত্মঘাতী সদস্য বলে স্বীকার করেছেন।

ডিবি সূত্রে জানা গেছে, নব্য জেএমবির তৎপরতা শুরু হয়েছিল গুলশানের হলি আর্টিজানে হামলার মধ্যদিয়ে। সেনাবাহিনীর কমান্ডো অভিযানে হলি আর্টিজানে নব্য জেএমবির পাঁচ সদস্য নিহত হয়। ঢাকার কল্যাণপুরে ৯ জঙ্গী। নারায়ণগঞ্জের পাইকপাড়ায় নব্য জেএমবির মাস্টার মাইন্ড বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত কানাডিয়ান নাগরিক তামিম আহম্মেদ চৌধুরীসহ তিনজন, মিরপুরের রূপনগরে একজন, আজিমপুরে এক জঙ্গী নিহত হয়। সবমিলিয়ে হালনাগাদ চালানো অভিযানে নব্য জেএমবির ৩৩ নেতাকর্মী নিহত হন।

অন্যদিকে শনিবার ভোরে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন এলাকার হারিনাল পশ্চিমপাড়া লেবুবাজার এলাকার আতাউর রহমানের একতলা পাকা বাড়িতে অভিযানে রাশেদুল ইসলাম (২০) ও তৌহিদুল ইসলাম (২২) নামে দুই জঙ্গী নিহত হয়।

গাজীপুরে পুলিশ ও র‌্যাবের অভিযানে নিহত ৯ জঙ্গীর ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। হাসপাতালটির চিকিৎসক রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের চিকিৎসক দল রবিবার বিকেলে নয় জঙ্গীর ময়নাতদন্ত শেষ করেন। এদিকে গাজীপুরে র‌্যাবের অভিযানে নিহত দুই জঙ্গীর মধ্যে তৌহিদুল ইসলাম ঢাকা প্রকৌশল প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (ডুয়েট) শিক্ষার্থী নয় বলে জানিয়েছেন ডুয়েটের উপাচার্য মোঃ আলাউদ্দিন। তিনি বলেন, তৌহিদুল ইসলাম নামে যে সাতজন ছাত্র পাওয়া গেছে, তাদের কারও বাড়িই নরসিংদীতে নয়।

এদিকে র‌্যাবের লিগ্যাল এ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান জানান, গাজীপুরের অভিযানে নিহত দুই জঙ্গী প্রায় এক মাস আগে ছাত্র পরিচয়ে বাড়িটি ভাড়া নেয়। তারা দুর্গাপূজায় বড় ধরনের নাশকতার প্রস্তুতি নেয়ার জন্য সেখানে প্রায় এক মাস ধরে অবস্থান করছিল।

শীর্ষ সংবাদ:
রিজার্ভ বাড়াতে মরিয়া ॥ নানামুখী কৌশল সরকারের         আঞ্চলিক সঙ্কট মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ প্রস্তাব         শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দুই সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের দিন         রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন দুঃস্বপ্ন         দুর্নীতির মামলায় কারাগারে ওসি প্রদীপের স্ত্রী         একগুচ্ছ প্রণোদনায় ঘুরে দাঁড়াল শেয়ারবাজার         প্রভাবশালীদের দখলে উত্তরবঙ্গের অর্ধেক খাস জমি         সিলেটে বন্যাকবলিত এলাকায় খাবার পানির তীব্র সঙ্কট         মাঙ্কিপক্স নিয়ে সব বিমানবন্দরে সতর্ক অবস্থা         গম নিয়ে রাশিয়ার সঙ্গে বোঝাপড়ায় আগ্রহী আমদানিকারকরা         পদ্মা সেতু নিয়ে বড়াই করা উচিত নয় ॥ ফখরুল         শিক্ষক ও বিমানবাহিনীর সদস্যসহ সড়কে প্রাণ গেল ১৫ জনের         প্রমাণ ছাড়া স্বাস্থ্যকর পুষ্টিকর বলে প্রচার করা যাবে না         ফখরুলের বক্তব্য নতুন ষড়যন্ত্রের বহির্প্রকাশ ॥ কাদের         প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতু         পাম তেল রপ্তানিতে ইন্দোনেশিয়ার নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার         বাংলাদেশের কাছে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল বিক্রি করতে চায় রাশিয়া         রাজধানীতে ট্রাকে পণ্য বিক্রি করবে না টিসিবি         জাফরুল্লাহ চৌধুরীর ‘জাতীয় সরকার’ প্রস্তাবে বিব্রত বিএনপি         মঙ্গলবার আত্মসমর্পণ করে জামিন চাইবেন সম্রাট