ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

বাল্যবিয়েতে এক সপ্তাহে কপাল পুড়ল চার শিক্ষার্থীর

প্রকাশিত: ২০:২৬, ২৬ এপ্রিল ২০১৬

বাল্যবিয়েতে এক সপ্তাহে কপাল পুড়ল চার শিক্ষার্থীর

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া ॥ কলাপাড়ায় এক সপ্তাহে চার শিক্ষার্থীর কপাল পুড়েছে। এরা অধিকাংশই ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী। সর্বশেষ শিকার হয় ৬ষ্ঠ শ্রেণির মারুফা। তার বাবার নাম খলিল হাওলাদার। বাড়ি চর-ধুলাসার গ্রামে। সোমবার বিকালে ধুমধামের সঙ্গে মারুফাকে বিয়ে দেন তারই দাদা হারুন হাওলাদার। ২০ এপ্রিল বিয়ে হয় অষ্টম শ্রেণির আরেক শিক্ষার্থীর। তারও নাম মারুফা। বাবার নাম হাবিব তালুকদার। পুর্ব ধুলাসার গ্রামে বাড়ি। ১৮ এপ্রিল বিয়ে হয় অনন্তপাড়া গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে লামিয়ার। সেও অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী। এ তিনজনের সবাই ধুলাসার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। এছাড়া ১৯ এপ্রিল বিয়ে হয় পাখিমারা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী মিতু। তার বাবার নাম মাহাবুল। এসব বাল্যবিয়ে ঠেকানোর জন্য স্থানীয়রা প্রশাসনকে অবহিত করেছেন বলে দাবি করেছেন। কলাপাড়া থানার ওসি জিএম শাহনেওয়াজ জানান, প্রত্যেকেই বিয়ের পরে তাদেরকে অবহিত করছেন। একাধিক বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থাসহ মহিলা অধিদফতর এসব বিষয়ে যেন নীরবতা পালন করে আসছে। বিভিন্ন সময় ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হলেও ঠেকানো যাচ্ছে না বাল্য বিয়ের প্রবনতা। সবার মন্তব্য স্থানীয় চেয়ারম্যান-মেম্বাররা আন্তরিক থাকলে বাল্য বিয়ে ঠেকানো সম্ভব।
monarchmart
monarchmart