ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

দালালের খপ্পরে মালয়েশিয়া যাত্রা

মিয়ানমারে আটক তিন যুবকের মুক্তির আশ্বাস

প্রকাশিত: ০৬:৫৫, ৩১ জানুয়ারি ২০১৬

মিয়ানমারে আটক তিন যুবকের মুক্তির আশ্বাস

নিজস্ব সংবাদদাতা, জয়পুরহাট, ৩০ জানুয়ারি ॥ দালালের খপ্পরে পড়ে মালয়েশিয়ায় যাওয়ার পথে মিয়ানমারে আটক হয়ে কারাগারে জয়পুরহাটের ৩ যুবক অনিশ্চিত জীবনের মুখোমুখি। জেলে আবদ্ধ ওই ৩ যুবক মালয়েশিয়ান কারাগার কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিকে তাদের মুক্তির ব্যাপারে চিঠি দিলে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি ঢাকা অফিস জয়পুরহট রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিকে বিষয়টি অনুসন্ধানের জন্য পত্র পাঠায়। জয়পুরহাট রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি এ বিষয়ে খোঁজখবর নিতে শুরু করে। শনিবার জয়পুরহাট রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি অফিসের সম্পাদক গোলাম হাক্কানি জানান, জেলার আক্কেলপুর উপজেলার আপল বাড়ইল গ্রামের মৃত মোকছেদ আলীর পুত্র আনিছুর রহমান (৩০), পুনগোপীনাথপুর গ্রামের মৃত আফতাব হোসেনের পুত্র বাবলু (৪০) ও ক্ষেতলাল উপজেলার দেওগ্রামের দেলুয়ার হোসেনের পুত্র জাহিদুল ইসলাম (২২) জেলার ক্ষেতলার উপজেলার সমান্তহার গ্রামের আমজাদ হোসেনের পুত্র মানবপাচারকারী বাহাজুল আলমের খপ্পরে পড়ে মালয়েশিয়া যাওয়ার উদ্দেশে ২০১৫ সালের ২৫ এপ্রিল বাড়ি থেকে বের হয়। দালাল বাহাজুল তাদের চট্টগ্রাম হয়ে থাইল্যান্ডে নিয়ে যাওয়ার পথে মিয়ানমারে আশ্রয় নেয়। এ সময় মিয়ানমারের পুলিশ তাদের আটক করে জেলহাজতে পাঠায়। ২০১৫ সালের ১৭ ডিসেম্বর মিয়ানমার জেল কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে ৩ আটক ব্যক্তি বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্টের কাছে মুক্তির ব্যবস্থা নিতে আবেদন জানান। রেড ক্রিসেন্ট ঢাকা অফিসে মানবিক আবেদনের ওই পত্র পাওয়ার পর তারা জয়পুরহাট ইউনিটকে বিষয়টি দেখার জন্য চিঠি দেয়। চিঠি পাওয়ার পর রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি জয়পুরহাট ইউনিটের সেক্রেটারি গোলাম হাক্কানী আটক স্বজনদের খবর দেন। খবর পেয়ে আটক আনিছুরের স্ত্রী কারিমা বেগম, বাবলুর স্ত্রী রেহেনা বেগম জয়পুরহাট অফিসে আসেন। গোলাম হাক্কানী তাদের জানান, মিয়ানমারে আটকদের রেড ক্রিসেন্টের মাধ্যমে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। তাদের ফিরিয়ে আনা হবে এ খবরটি পেয়ে আটক ৩ জনের আত্মীয়স্বজন আনন্দে কেঁদে ফেলেন।
monarchmart
monarchmart