ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২০ আগস্ট ২০২২, ৫ ভাদ্র ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

মধ্যপাড়ায় চার মাস পাথর উত্তোলন বন্ধ

প্রকাশিত: ০৪:১৫, ২২ জানুয়ারি ২০১৬

মধ্যপাড়ায় চার মাস পাথর উত্তোলন বন্ধ

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর ॥ মাইনিং ইক্যুইপমেন্টের (পাথর উত্তোলন কাজে ব্যবহৃত ভারি যন্ত্রপাতি ও যন্ত্রাংশ) অভাবে পার্বতীপুরে মধ্যপাড়া খনিতে প্রায় চার মাস ধরে পাথর উত্তোলন বন্ধ রয়েছে। খনি কর্তৃপক্ষের নিয়োগকৃত প্রি-শিপমেন্ট ইন্সপেকশন এজেন্ট সিঙ্গাপুরের জিওকেম কোম্পানি লিমিটেডের প্রতিনিধি ২৫ জানুয়ারি রাশিয়া ও চীনে মাইনিং ইক্যুইপমেন্ট উত্তোলনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোতে মালামাল পরিদর্শনে যাচ্ছেন। জিওকেম কোম্পানির ক্লিয়ারেন্স পাওয়া গেলে ফেব্রুয়ারি মাসের দ্বিতীয়ার্ধে যন্ত্রপাতি আসা শুরু হবে। এরপর তা খনি ভূ-গর্ভে বসিয়ে ফেব্রুয়ারি মাসের শেষে পুনরায় পাথর উত্তোলন শুরু হতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। প্রয়োজনীয় মাইনিং ইক্যুইপমেন্ট সময়মতো বিদেশ থেকে আমদানি না করায় যন্ত্রপাতির অভাবে খনি ভূগর্ভে নতুন স্টোপ উন্নয়ন করতে না পারায় ২০১৫ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে পাথর উত্তোলন বন্ধ হয়ে যায়। এর আগে ১ আগস্ট প্রতিদিন তিন শিফটের জায়গায় দু’শিফট বন্ধ করে দেয় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জিটিসি। এদিকে, পাথর উত্তোলন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় জিটিসিতে কর্মরত ৭০ বিদেশী খনি বিশেষজ্ঞ ও কর্মকর্তা নিজ নিজ দেশে ফিরে গেছেন। এছাড়া জিটিসির অধীনে খনিতে কর্মরত প্রায় এক হাজার শ্রমিক, কর্মকর্তা-কর্মচারীকে অনির্দিষ্টকালের ছুটিতে পাঠানো হয়। এদের অধিকাংশই খনি পার্শ্ববর্তী এলাকার বাসিন্দা। চার থেকে ছয় মাস ধরে কর্মহীন হয়ে পড়া এসব শ্রমিকের পরিবারে দেখা দিয়েছে অভাব, অনটন। অপরদিকে, দীর্ঘ সময় ধরে উৎপাদন বন্ধ থাকায় মজুদ শেষ হয়ে যাওয়ায় পাথর বিক্রি বন্ধ হয়ে গেছে। এতে খনি কর্তৃপক্ষের লোকসানের পাল্লা ভারি হচ্ছে। তাছাড়া, খনি রক্ষণাবেক্ষণ করতে গিয়ে জিটিসির মোটা অঙ্কের আর্থিক ক্ষতি হচ্ছে। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জিটিসির জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) জাবেদ সিদ্দিকী জানান, উৎপাদনকারী বিদেশী প্রতিষ্ঠানে অনেক যন্ত্রপাতি তৈরি হয়ে গেছে। কিছু যন্ত্রপাতি ও যন্ত্রাংশ তৈরির কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। খুব শিগগির বিদেশ থেকে মাইনিং ইক্যুইপমেন্ট খনিতে চলে আসবে। ফেব্রুয়ারি মাসের শেষের দিকে খনি থেকে পাথর উত্তোলন শুরু করা যাবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। উৎপাদন বন্ধ থাকায় তাদের মোটা অঙ্কের আর্থিক ক্ষতি হচ্ছে বলেও তিনি জানান। মধ্যপাড়া গ্রানাইট মাইনিং কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আমিনুজ্জামান ও মহাব্যবস্থাপক (জিএম-অপারেশন) মীর আব্দুল হান্নান জানান, ফেব্রুয়ারি মাসে বিদেশ থেকে যন্ত্রপাতি আসা শুরু হবে।