বুধবার ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

আফ্রিদিহীন বাংলাদেশ-পাকিস্তান ওয়ানডে!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ প্রায় ১৯ বছর আগের কথা। পাকিস্তান ক্রিকেটে এক ক্রিকেটারের অভিষেক হলো। ১৯৯৬ সালের ২ অক্টোবর, কেনিয়ার বিপক্ষে। ক্রিকেটারের নাম- শহীদ আফ্রিদি। প্রথম ম্যাচে ব্যাট হাতে নামতেই পারলেন না। বল করলেন। কিন্তু কোন উইকেট পেলেন না। কোন আলোই ছড়াতে পারলেন না। দ্বিতীয় ম্যাচেই এমন এক ইনিংস খেললেন, বিশ্ব ক্রিকেট কাঁপিয়ে দিলেন। বার্তা ছড়িয়ে দিলেন এসে পড়েছি। কী মারমুখী ব্যাটিং! শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩৭ বলে শতক হাঁকিয়ে ওয়ানডে ক্রিকেটে দ্রুততম শতক হাঁকিয়ে দিলেন! সেই থেকে আফ্রিদির কাছ থেকে শুধু ধুন্ধুমার ব্যাটিংই দেখতে চান সবাই। সেই ক্ষুধা ১৯ বছরের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে বহুবার মিটিয়েছেনও। বাংলাদেশের বিপক্ষেও একাধিকবার দেখিয়েছেন ঝলক। আফ্রিদির ওয়ানডে অভিষেক হওয়ার পর যতবারই বাংলাদেশের মাটিতে পাকিস্তান খেলেছে, এ অলরাউন্ডারের উপস্থিতি ছিলই। কিন্তু এবারই প্রথম বাংলাদেশের মাটিতে আফ্রিদিহীন বাংলাদেশ-পাকিস্তান ওয়ানডে হবে। যার শুরু হচ্ছে আজ। শুধু কী আজ, ১৯ এপ্রিল দ্বিতীয় ওয়ানডে, ২২ এপ্রিল তৃতীয় ওয়ানডেতেও আফ্রিদিকে দেখা যাবে না। দেখা যাবে না আর আন্তর্জাতিক ওয়ানডেতেও। ওয়ানডে থেকেই যে অবসর নিয়ে ফেলেছেন। আফ্রিদির অভিষেকের পর বাংলাদেশের মাটিতে ১৩ ওয়ানডে খেলে পাকিস্তান। মোট ৩২ ওয়ানডের মধ্যে ১৩ ওয়ানডে যে বাংলাদেশে হয়েছে, সব আবার জিতে পাকিস্তানই। প্রতি ম্যাচেই ছিলেন আফ্রিদি। সেই ১৯৯৮ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত যখনই বাংলাদেশের মাটিতে পাকিস্তান খেলেছে, দলের অন্যতম ক্রিকেটার হিসেবেই আফ্রিদি খেলেছেন। ২০০০ সালে অপরাজিত ৪৫ রান, ২০০২ সালে ৮৩ রান ও ২ উইকেট, ২০০৮ সালে ৩ উইকেট, ২০১১ সালে অপরাজিত ২৪ ও ৫ উইকেট, ২০১৪ সালে ৫৯ রান করে ম্যাচ জেতান আফ্রিদি। বাংলাদেশের বিপক্ষে বাংলাদেশের মাটিতে ও বাইরে ২১ ম্যাচ খেলে ৩৫.১৩ গড়ে ৫২৭ রান করেন আফ্রিদি। দুর্দান্ত গড়! কিন্তু এবার আর আফ্রিদিকে ওয়ানডেতে দেখা যাবে না। না দেখা যাবে ব্যাট হাতে, না দেখা যাবে বল হাতে বোলিং করতে।

হোক বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলা, আফ্রিদি যখন ছক্কা হাঁকান তখন সবার মুখেই হাসি ফুটে। বাংলাদেশের কেউই চান না পাকিস্তান জিতুক। কিন্তু আফ্রিদির ধুন্ধুমার ব্যাটিংও সবাই উপভোগ করেন। আর যদি বাংলাদেশ ছাড়া অন্য কোন দলের বিপক্ষে খেলেন আফ্রিদি, তাহলে কথাই নেই। শুধু ‘আফ্রিদি, আফ্রিদি’ গর্জনও উঠতে দেখা গেছে। সেই রকম আর কখনও কোথাও দেখা যাবে না। টি২০ খেলবেন আফ্রিদি ঠিক। কিন্তু ওয়ানডেতে তাকে আর দেখা যাবে না। বাংলাদেশের মাটিতে প্রথমবারের মতো খেলছেন না আফ্রিদি। তাকে ভক্ত-সমর্থকরা নিশ্চয়ই মিস করবেন। সর্বশেষ ২০১৪ সালে যখন আফ্রিদি বাংলাদেশের মাটিতে মাঠে নামেন, তখনই ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলেছিলেন। বাংলাদেশ ৩২৬ রান করে জয়ের সুবাতাস দেখছিল। এমন মুহূর্তে পাকিস্তানকে ঝেঁকে ধরেছিল। কিন্তু আফ্রিদি যে ২৫ বলে ২ চার ও ৭ ছক্কায় ৫৯ রান করেন, সেখানেই পাকিস্তান জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায়। এমন আফ্রিদিকে আর দেখা যাবে না। বিশ্বকাপের পরই অবসর নেয়ার ঘোষণা দেয়ায় বাংলাদেশে আফ্রিদি সমর্থকরাও আর তাকে দেখতে পারবে না। অভিষেকের পর প্রথমবার বাংলাদেশের মাটিতে এ অলরাউন্ডারকে খেলতে দেখা যাবে না।

শীর্ষ সংবাদ:
মাঝে মধ্যে পাপন ভাইয়ের পরামর্শ খারাপ নয়, ভাল ॥ সাকিব         মেসি-এমবাপের নৈপুণ্যে পিএসজির রোমাঞ্চকর জয়         ৫ গোলের নাটকীয় লড়াইয়ে আতলেতিকোকে হারাল লিভারপুল         ভারতীয় সাবমেরিন আটকের দাবি পাকিস্তানের         কঠোর ব্যবস্থা নিন ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ         ওমানকে হারিয়ে বিশ্বকাপে টিকে থাকল বাংলাদেশ         আজ পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী         ধর্ম নিয়ে কেউ বাড়াবাড়ি করবেন না         কেন এই সহিংসতা উত্তর এখনও মেলেনি         ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধের ডাক ॥ সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে মাঠে আওয়ামী লীগ         মাঝিপাড়ায় এখন সুনসান নীরবতা, আতঙ্ক কাটেনি         প্রধানমন্ত্রী নিজের হাতে সাজিয়েছেন ফরিদপুর         পিএসসির প্রশ্ন ফাঁসে সর্বোচ্চ ১০ বছরের কারাদণ্ড         মুছা কালু ভোলা-তিন জনের গ্রেফতারেই খুলতে পারে জট         স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বে আঘাত হানতেই সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস         একযুগে আরেকটি স্বপ্নপূরণ         রাজনৈতিক সুবিধা আদায়ে মরিয়া সরকার ॥ ফখরুল         বাংলাদেশের মানুষ তার ধর্ম পালন করবে স্বাধীনভাবে : প্রধানমন্ত্রী         করোনা : আরও এলো ২০ লাখ টিকা, বৃহস্পতিবার আসবে ৫৫ লাখ         প্রতিমাসে তিন কোটি ডোজ টিকা দেওয়া হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী