ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

সাতশ’ শিল্পীর আঁকা চিত্রকর্ম

বৈশাখের আলপনায় রঙিন হাওড়ের ১৪ কিমি সড়ক

মাজহার মান্না, মিঠামইন থেকে ফিরে

প্রকাশিত: ২২:১২, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

বৈশাখের আলপনায় রঙিন হাওড়ের ১৪ কিমি সড়ক

হাওড়ের বুকচিরে মিঠামইন জিরো পয়েন্ট থেকে অষ্টগ্রাম পর্যন্ত আলপনা আঁকা সড়ক

হাওড়ের বুক চিরে দীর্ঘ সড়কে রং-তুলির পরশ। যে সড়কে ছুটে চলে যানবাহন তা এখন প্রায় সাতশ’ শিল্পীর আঁকা এক চিত্রকর্ম। বর্ষবরণে এবার দেশজুড়ে বৈশাখের মুগ্ধতা ছড়িয়ে দিতে আলপনার রঙে রাঙানো হয়েছে। কিশোরগঞ্জের হাওড় অধ্যুষিত উপজেলা মিঠামইনের জিরো পয়েন্ট থেকে অষ্টগ্রামের জিরো পয়েন্ট পর্যন্ত ১৪ কিলোমিটার ‘অলওয়েদার’ সড়ক বাঙালি ঐতিহ্যের রঙিন আলপনায় আঁকা হয়েছে।

এত বড় আলপনা বিশ্বে বিরল। যা তিন দিনে তুলির আঁচড়ে এঁকেছেন শিল্পীরা। আর রঙের খেলায় মুগ্ধ দর্শনার্থীরাও এটি দেখতে ভিড় জমিয়েছে হাওড়পাড়ে। তবে দীর্ঘ সড়কে আলপনায় সাড়ে ৯ হাজার লিটার রঙের ব্যবহারের ফলে হাওড়ের বিরূপ পরিবেশ দূষণ ও জীব-বৈচিত্র্যের আশঙ্কা করছেন স্থানীয় পরিবেশবিদরা। এদিকে ‘আলপনায় বৈশাখ-১৪৩১ উৎসব’কে বিশ্বের দীর্ঘতম আলপনা অঙ্কন বলে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডে নাম লেখানোর প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন আয়োজকরা।

১৪ এপ্রিল পহেলা বৈশাখ সকালে প্রধান অতিথি হিসেবে মিঠামইন জিরো পয়েন্টে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক উপস্থিত থেকে তুলির আঁচড়ের মাধ্যমে আলপনায় বৈশাখ উৎসবের সমাপ্তি করেন। পরে তিনি স্থানীয় সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিককে সঙ্গে নিয়ে আলপনা রঙিন অলওয়েদার সড়কে মোটরসাইকেল চালিয়ে আনন্দ উপভোগ করেন।

এর আগে ১২ এপ্রিল শুক্রবার বিকেলে ‘উৎসবের রঙে হোক বাংলামি’ এই স্লোগানে সাবেক সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী নাট্য ব্যক্তিত্ব আসাদুজ্জামান নূর এমপি আলপনা আঁকা কাজের উদ্বোধন করেন। 
চারুকলা শিক্ষার্থীরা এ আলপনা আঁকার কাজ করেছেন। এশিয়াটিক এক্সপেরিয়েনশিয়াল মার্কেটিং লিমিটেড, বাংলালিংক ডিজিটাল কমিউনিকেশনস লিমিটেড ও বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেডের যৌথ উদ্যোগে সবচেয়ে বড় এই আলপনা উৎসব হয়েছে। আয়োজকরা জানান, এবার হাওড়ের ১৪ কিলোমিটার সড়কে আলপনা অঙ্কনের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া আয়োজনটি ছিল অষ্টম সংস্করণ। কিশোরগঞ্জসহ ঢাকার মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ ও খুলনার শিববাড়ি মোড়ে একযোগে এ উৎসবের আয়োজন করা হয়। তবে কিশোরগঞ্জের আলপনাটি সবচেয়ে দীর্ঘতম।

×