ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

সিলেটে মেয়র প্রার্থীদের প্রচারে মাঠে কেন্দ্রীয় নেতারা

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট অফিস

প্রকাশিত: ২৩:৪৪, ৭ জুন ২০২৩

সিলেটে মেয়র প্রার্থীদের প্রচারে মাঠে কেন্দ্রীয় নেতারা

সিলেটে শান্তিপূর্ণ ভাবে চলছে সিটি নির্বাচনের প্রচার

সিলেটে শান্তিপূর্ণ ভাবে চলছে সিটি নির্বাচনের প্রচার। মেয়র প্রার্থীদের পক্ষে প্রচারে যোগ দিচ্ছেন দলের কেন্দ্রীয় নেতারা। নগরীর উন্নয়ন কর্মকা- সম্পর্কে মেয়র প্রার্থীরা নিজেদের কর্মপরিকল্পনা তুলে ধরে ভোটারদের মন জয়ের প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন। বিপুল সংখ্যক প্রবাসী আওয়ামী লীগের (নৌকা) প্রার্থী আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর পক্ষে নগরীতে প্রচারে অংশ নিয়ে বলছেন, আনোয়ারুজ্জামান দক্ষ, কর্মঠ, পরীক্ষিত কর্মী। তিনি মেয়র নির্বাচিত হলে সিলেট নগরীর মানুষের প্রত্যাশা পূরণ হবে।

সিলেট সফররত নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, ওসমানীনগরের কৃতিসন্তান আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লন্ডন থেকে নিয়ে এসে সিলেট সিটি করপোরেশনের দায়িত্ব দেওয়ার জন্য নৌকার প্রার্থী করেছেন। এটা বালাগঞ্জ-ওসমানীনগরবাসীর অনেক বড় গর্বের বিষয়। আগামী ২১ জুন সিসিক নির্বাচনে আনোয়ারুজ্জামান নির্বাচিত হলে এই দুই উপজেলা আরও অনেক উচ্চতায় উঠে যাবে। ‘প্রবাসী বালাগঞ্জ-ওসমানীনগর এডুকেশন ট্রাস্ট’ বৃত্তি বিতরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ট্রাস্টের সভাপতি বদরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক নাজমুল ইসলামের পরিচালনায় সভায় বক্তৃতাকালে প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী আরও বলেন, আনোয়ারুজ্জামানকে লন্ডন থেকে আনা হয়েছে কারণ হচ্ছে- যুক্তরাজ্যে থাকলেও দীর্ঘ ৩৫ বছর ধরে সিলেটের সঙ্গে তার নিবিড় সম্পর্ক। এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে তার অত্যন্ত সুসম্পর্ক। এমন সম্পর্ক দিয়ে তিনি সিলেট-ঢাকা-লন্ডনকে এক করে দিয়েছেন। সিলেট-ঢাকা-লন্ডনের সেতু আনোয়ারুজ্জামান। এটা আর কেউ পারেননি। আওয়ামী লীগের সাবেক এই সাংগঠনিক সম্পাদক বলেন, আনোয়ারুজ্জামান সিসিক মেয়র নির্বাচিত হলে শুধু সিলেটের নয়, পুরো বিভাগের অভূতপূর্ব উন্নয়ন হবে বলে প্রধামন্ত্রী মনে করেন। ওসমানীনগরের বুরুঙ্গায় ইকবাল আহমদ স্কুল অ্যান্ড কলেজে আয়োজিত এ সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন সিলেট-২ আসনের এমপি মোকাব্বির হোসেন ও সিলেট-৩ আসনের এমপি হাবিবুর রহমান হাবিব।
সেবক হতে চান আনোয়ারুজ্জামান ॥ আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন, আমার রাজনীতি মানুষের কল্যাণে। ব্যক্তিগত অর্জন বা বিসর্জনের চেয়ে মানুষের সেবাটাই আমার কাছে মুখ্য। আর তাই আমি রাজনীতিতে এসেছি।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে সিলেট মহানগরীর মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন দিয়ে পাঠিয়েছেন। আমি নির্বাচিত হলে নগরবাসীর সেবক হিসাবে সবার আশা আকাক্সক্ষার প্রতিফলন ঘটাব। দলমত নির্বিশেষ সবার কল্যাণে কাজ করতে চাই। তাই ২১ জুনের নির্বাচনে  আপনারা নৌকায় ভোট দিয়ে আমার এবং প্রধানমন্ত্রীর জয় নিশ্চিত করুন।

বুধবার দুপুরে নগরীর বন্দর বাজার এলাকার করিম উল্লাহ মার্কেটে গণসংযোগকালে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন আধ্যাত্মিক এ নগরীকে একটি আধুনিক স্মার্ট ব্যবসায়ী ও পর্যটনবান্ধব নগরী হিসাবে গড়ে তুলব। তিনি ব্যবসায়ীসহ সকলের আন্তরিক সহযোগিতার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন। এর আগে তিনি নগরীর মেন্দিবাগস্থ কুশিঘাট ও কাজিরবাজার মাদ্রাসায় গণসংযোগ করেন।
বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের গণসংযোগ ॥ মেয়র প্রার্থী আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর সমর্থনে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন, সিলেট জেলা শাখার উদ্যোগে গণসংযোগ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গণসংযোগকালে উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক জগলু চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সিলেট জেলা শাখার সভাপতি সামসুল আলম প্রমুখ।
নগরবাসীর দুর্ভোগ লাঘবের প্রতিশ্রুতি ॥ জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা মনিরুল ইসলাম মিলন বলেছেন, যোগ্য প্রার্থী নজরুল ইসলাম বাবুল মেয়র নির্বাচিত হলে এই নগরীর মানুষের দূর্ভোগ লাঘবে কাজ করবেন। নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে, লাঙ্গলের প্রতি মানুষের আকর্ষণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই নগরবাসী পরিবর্তন চায়। তিনি নগরীর জিন্দাবাজারস্থ আলহামরা শপিং সিটিতে জাপার মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম বাবুলের লাঙ্গল প্রতীকের সমর্থনে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক কমিটির নেতৃবৃন্দকে নিয়ে গণসংযোগকালে এসব কথা বলেন।
তিনি আরও বলেন, নির্বাচনী পরিবেশ ভালো। যদি এই অবস্থা থাকে তাহলে লাঙ্গলের বিজয় নিশ্চিত। তিনি আরও বলেন, যারা দলের ভেতরে থেকে দলের শৃঙ্খলা বিরোধী কাজ করবেন, তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা অব্যাহত থাকবে। তিনি আগামী ২১ জুনের নির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীকে ভোট দিয়ে নজরুল ইসলাম বাবুলকে মেয়র নির্বাচিত করার জন্য নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

×