ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১

প্রকাশ্য ঘুষকান্ডে রাজশাহীতে ভূমি কর্মকর্তা বরখাস্ত

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী

প্রকাশিত: ১৫:০৩, ২৭ নভেম্বর ২০২২

প্রকাশ্য ঘুষকান্ডে রাজশাহীতে ভূমি কর্মকর্তা বরখাস্ত

প্রকাশ্য ঘুষকান্ডে ফেসবুকে ভাইরাল ভূমি কর্মকর্তা

নিজ কার্যালয়ে বসে ঘুস নেওয়ার ভিডিও ভাইরালের পর রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার সরদহ ইউনিয়ন ভূমি অফিসের কর্মকর্তা আব্দুস সাত্তারকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিলের সাক্ষর করা এক অফিস আদেশে তাকে বরখাস্ত করা হয়। শনিবার রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে জেলা প্রশাসন।

আদেশে বলা হয়েছে, সরদহ ইউনিয়ন ভূমি অফিসের যে সংবাদ ও ভিডিও প্রকাশ হয়েছে সেগুলো পর্যালোচনায় করে দেখা যায়, আব্দুস সাত্তার ভূমি উন্নয়ন কর আদায়ের ক্ষেত্রে দাখিলায় উল্লিখিত টাকার চেয়ে অধিক টাকা অনৈতিকভাবে সেবা প্রার্থীদের কাছে দাবি করেছেন। বর্তমানে জনবান্ধব সরকার যেখানে ডিজিটাল পদ্ধতিতে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মাধ্যমে কাঙ্খিত ভূমিসেবা দিতে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে সেখানে তিনি জোর করে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অপচেষ্টায় লিপ্ত। এটি সরকারি কর্মচারী বিধিমালা অনুযায়ী যথাক্রমে অসদাচরণ ও দুর্নীতি পরায়ণতার শামিল এবং এতে জেলা প্রশাসনের ভাবমূর্তি চরমভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে।

অফিস আদেশে আরও বলা হয়েছে, তিনি চাকরিতে বহাল থাকলে এ সংক্রান্ত নিরপেক্ষ তদন্ত ও প্রশাসনিক কার্যক্রম পরিচালনার বিষয়ে প্রভাব খাটানোর আশঙ্কা রয়েছে। তাকে কর্মে নিয়োজিত রাখলে ভূমি প্রশাসনের সুনাম নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা, সরকারি স্বার্থ বিঘ্নিত হওয়া এবং ভূমি প্রশাসনের অন্যান্য কর্মচারীদের মধ্যেও এরূপ কর্মকাণ্ডে জড়িত হওয়ার শঙ্কা রয়েছে। সেহেতু তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো।

এর আগে গত শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) তার ঘুস লেনদেনের একটি ভিডিও ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। ভিডিওতে দেখা যায়, কার্যালয়ের ভেতরে ও বাইরে একই ব্যক্তির সঙ্গে ঘুসের টাকা নিয়ে দরকষাকষি করছেন ভূমি কর্মকর্তা আব্দুস সাত্তার। এক পর্যায়ে টাকা পকেটে ঢোকান। এ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হয়। এর পরই বিষয়টি জেলা প্রশাসনের নজরে আসে।

টিএস

×