৭ এপ্রিল ২০২০, ২৪ চৈত্র ১৪২৬, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

কেউ করোনায় আক্রান্ত নন ॥ ডাঃ ফ্লোরা

প্রকাশিত : ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিদেশ থেকে আগত যাত্রীদেরকে ‘করোনাভাইরাসে’ আক্রান্ত সন্দেহ করে তাদের ব্যক্তিগত পরিচয় সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ না করার পরামর্শ দিয়েছেন আইইডিসিআর পরিচালক অধ্যাপক ডাঃ মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। তিনি বলেন, তাদের পরিচয় প্রকাশ করলে বিদেশ থেকে আসা যাত্রীরা তাদের তথ্য গোপনের চেষ্টা করতে পারেন। এতে সার্বিক স্ক্রিনিং কার্যক্রম ব্যাহত হবে। বৃহস্পতিবারও সমুদ্রবন্দর স্থলবন্দর ও বিমানবন্দরের মাধ্যমে বিদেশ থেকে আসা প্রায় ২১ হাজার যাত্রীকে স্ক্রিনিং করা হয়েছে। সন্দেহজনক দুজনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ পর্যন্ত পরীক্ষিত নমুনার সংখ্যা ৭৭। নমুনা পরীক্ষা করে কারও নমুনায় ‘করোনাভাইরাস’ পাওয়া যায় নি।

করোনাভাইরাসের সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে বৃহস্পতিবার আইইডিসিআর মিলনায়তনে নিয়মিত অবহিতকরণ সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন ডাঃ ফ্লোরা।

অধ্যাপক ডাঃ ফ্লোরা বলেন, আমরা উদ্বেগের সঙ্গে অবহিত হয়েছি, কোন একটি স্থলবন্দরে দায়িত্বরত এক কর্মকর্তা (স্বাস্থ্য বিভাগের নয়) বিদেশ থেকে আগত এক যাত্রীকে ‘করোনাভাইরাস’ সংক্রমিত সন্দেহে তার ব্যক্তিগত পরিচয় সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ করে দিয়েছেন। এ ধরনের অপেশাদার আচরণ শুধু নৈতিকতাবিরোধীই নয়, সংবেদনশীল সরকারী তথ্যের গোপনীয়তা লঙ্ঘন সংক্রান্ত সরকারী চাকরি বিধির লঙ্ঘন। কোন ব্যক্তি ‘করোনাভাইরাস’ সংক্রমিত কি না তা নিশ্চিত ও প্রকাশের সরকার নির্ধারিত একমাত্র প্রতিষ্ঠান হচ্ছে আইইডিসিআর। সংশ্লিষ্ট সবাইকে আমরা বিষয়টি আবারও স্মরণ করিয়ে দিচ্ছি।

উহান ফেরত ৩১২ যাত্রীর সবাই সুস্থ

ডাঃ সাব্রিনা ফ্লোরা বলেন, উহান ফেরত ৩১২ যাত্রীর কোয়ারেন্টাইন পরবর্তী আরও ১০ দিন সীমিত চলাচল ও নিজেদের স্বাস্থ্য পরিস্থিতি অবহিত করতে আইইডিসিআরের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

সিঙ্গাপুর পরিস্থিতি

সিঙ্গাপুরে আক্রান্ত বাংলাদেশীদের বিষয়ে ডাঃ সাব্রিনা ফ্লোরা বলেন, সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে প্রেরিত সর্বশেষ খবরে আমরা জানতে পেরেছি, ৫ বাংলাদেশী ‘করোনাভাইরাস’ সংক্রমিত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাদের একজন আইসিইউতে।

প্রকাশিত : ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২০

২১/০২/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: