১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ৫ ফাল্গুন ১৪২৬, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 

ভাঙ্গুড়ায় গৃহবধূকে মারপিটের পর চুল কেটে দিলেন স্বামী ও শ্বশুর-শাশুরী

প্রকাশিত : ২৪ জানুয়ারী ২০২০, ০৬:০৬ পি. এম.
      ভাঙ্গুড়ায় গৃহবধূকে মারপিটের পর চুল কেটে দিলেন স্বামী ও শ্বশুর-শাশুরী

নিজস্ব সংবাদদাতা, পাবনা ॥ ভাঙ্গুড়ায় ২ সন্তানের জননী গৃহবধূ খাদিজা খাতুনকে (২৫) পারিবারিক কলহে হাত পা বেঁধে স্বামী ও শ্বশুর শাশুরী প্রচন্ড মারপিট শেষে চুল কেটে দিয়েছে। উপজেলার সুলতানপুর গ্রামে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে এ বর্বর ঘটনা ঘটেছে। খাদিজা খাতুন ওই রাতেই বাড়ি থেকে পালিয়ে পাশের মামার বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে প্রাণ বাঁচান ।খাদিজা ওই গ্রামের শাহেদ ফকিরের স্ত্রী। এ ঘটনায় নির্যাতিতা গৃহবধূ খাদিজা খাতুন শুক্রবার ভাঙ্গুড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। জানা যায়, নেশাগ্রস্থ স্বামীর সাথে পারিবারিক অভাব অনটন নিয়ে খোদেজা খাতুনের প্রায়ই ঝগড়া ঝাটি লেগেই থাকে।।বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এসব নিয়ে ঝগড়া শুরু হলে পাষন্ড স্বামী শাহেদ ফকির, শ্বশুর মালেক ফকির ও শাশুরী শাহিদা খাতুন মিলে গৃহবধু খাদিজা খাতুনকে বেদম মারপিট করে । এরপর রাত তিনটার দিকে স্বামী , শ্বশুর শাশুরী খাদিজার শোবার ঘরে ঢুকে তার হাত-পা ও মুখ বেঁধে ফেলে। তারা খাদিজাকে আবার ও নির্মমভাবে পিটিয়ে আহত করে কাঁচি দিয়ে চুল কেটে দেয়। পাষন্ডরা এ ঘটনা কারো কাছে না বলার শর্তে তাকে ছেরে দেয়। ভোরে সবাই ঘুমিয়ে পড়ার সুযোগে গৃহবধু খাদিজা খাতুন বাডী থেকে থেকে পালিয়ে পাশেই তার মামা আবুল কালামের বাড়ীতে আশ্রয় নেন । শুক্রবার সকাল ১১ টার দিকে খাদিজা তার মামাকে সাথে নিয়ে ভাঙ্গুড়া থানায় হাজির হয়ে পাষন্ড স্বামী, শ্বশুড় শাশুরীর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দেন। ভাঙ্গুড়া থানার ওসি মাসুদ রানা অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে জানান, আসামিদের ধরতে পুলিশ এরই মধ্যে অভিযান শুরু করেছে দ্রুত সময়ের মধ্যেই তাদেও গ্রেফতার করা যাবে ।

প্রকাশিত : ২৪ জানুয়ারী ২০২০, ০৬:০৬ পি. এম.

২৪/০১/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: