১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ৫ ফাল্গুন ১৪২৬, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপন স্থগিত চেয়ে রিটের শুনানি অব্যাহত

প্রকাশিত : ১৭ অক্টোবর ২০১৯
  • ঋণখেলাপীদের জন্য সুবিধা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঋণখেলাপীদের সুবিধা দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের জারি করা প্রজ্ঞাপন স্থগিত চেয়ে রিটের শুনানি অব্যাহত রয়েছে। বুধবার তৃতীয় দিনের মতো শুনানি করেন ব্যাংকার্স এ্যাসোসিয়েশনের আইনজীবী। আজ বৃহস্পতিবার আবারও শুনানির জন্য দিন নির্ধারণ করেছে হাইকোর্ট। সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল হত্যা মামলার বিচার কাজ রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালেই হবে। আসামি পক্ষে রিট না চালানোর অভিমত দেয়ায় মামলার বিচার চলার বাধা কেটেছে। এদিকে ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যার ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেফতার সোনাগাজী থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেনের জামিন আবেদনের বিষয়ে শুনানি শেষ হয়েছে। এ বিষয়ে আদেশের জন্য আগামী ৩ নবেম্বর দিন ঠিক করেছে হাইকোর্ট। বুধবার আপীল বিভাগ ও হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চগুলো এ আদেশ প্রদান করেছে।

ঋণখেলাপীদের সুবিধা দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক যে সার্কুলার জারি করা প্রজ্ঞাপন স্থগিত চেয়ে রিটের শুনানি অব্যাহত রয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার আবার শুনানির জন্য দিন ধার্য করা হয়েছে। বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মোঃ খায়রুল আলমের সমন্বয়ে হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ প্রদান করেছে। এ দিন রিটের পক্ষে শুনানি করেন বাংলাদেশ ব্যাংকার এ্যাসোসিয়েনরে পক্ষে আইনজীবী শাহ মঞ্জুরুল হক। এর আগে ১৩ অক্টোবর মনজিল মোরশেদ, ১৪ অক্টোবর এ্যাটর্নি জেনারেল মাহাবুবে আলম, ১৫ অক্টোবর শুনানি করে মনজিল মোরশেদ ও শাহ মঞ্জুরুল হক।

বুধবার শুনানিতে মঞ্জুরুল হক বলেন, ঋণখেলাপীদের সুবিধা দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক যে সার্কুলার জারি করেছে তা সংবিধান বা অন্য কোন আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক নয়। এ ছাড়া ৫ আইন আছে, এরপরও রিটকারী আইনজীবী ইনকোয়ারি কমিশনের কথা বলেছেন তা বাস্তবসম্মত নয়। আইনগুলো থাকার পরও ইনকোয়ারি কমিশন গঠন করা হলে মানুষের মধ্যে হতাশার সৃষ্টি হবে। এর আগে ২৯ আগস্ট আদালত আদেশ প্রদান করে, ২ শতাংশ ডাউন পেমেন্টে খেলাপী ঋণ পরিশোধের যারা সুযোগ গ্রহণ করবে তারা অন্য কোন ব্যাংক থেকে ঋণ নিতে পারবে না। ২৮ আগস্ট রিটকারী আইনজীবী মনজিল মোরশেদ সংশ্লিষ্ট বেঞ্চে পুনরায় একটি আবেদন করে যাতে করে আর কেউ নতুন করে লোন নিতে না পারে। এর আগে ৮ জুলাই ঋণখেলাপীদের জন্য বিশেষ সুবিধা দিয়ে গত ১৬ মে বাংলাদেশ ব্যাংকের জারি করা সার্কুলারে স্থিতাবস্থা দিয়ে হাইকোর্টের আদেশ দুই মাসের জন্য স্থগিত করে আপীল বিভাগ। একইসঙ্গে এ বিষয়ে জারি করা রুল নিষ্পত্তির জন্য বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মোঃ খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চকে দায়িত্ব দেয় আপীল বিভাগ। গত ১৬ মে বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করা হয়। এরপর রিটকারীদের আবেদনের শুনানি নিয়ে গত ২১ মে ওই সার্কুলারের ওপর ২৪ জুন পর্যন্ত স্থিতাবস্থা বজায় রাখার জন্য আদেশ দিয়েছিল হাইকোর্ট। ২৪ জুন এ স্থিতাবস্থার মেয়াদ আরও দু’মাস বাড়ানো হয়। পরে এ আদেশ স্থগিত চেয়ে আপীল বিভাগে আবেদন করে অর্থমন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ। অর্থ বিভাগের ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ২ জুলাই আপীল বিভাগের চেম্বার আদালতের বিচারপতি মোঃ নুরুজ্জামান হাইকোর্টের আদেশে স্থগিতাদেশ দেন। একইসঙ্গে পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠানোর আদেশ দেন। মানবাধিকার সংগঠন এইচআরপিবির করা এক রিট আবেদনে হাইকোর্ট গত ১৩ ফেব্রুয়ারি এক আদেশে ঋণখেলাপীর তালিকা দাখিলের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতি নির্দেশ দেন। একইসঙ্গে রুল জারি করে। ২৪ জুন হাইকোর্টে ঋণখেলাপীদের তালিকা দাখিল করা হয়।

শিমুল হত্যার বিচার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালেই ॥ সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল হত্যা মামলার বিচার কাজ রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালেই হবে। আসামি পক্ষে রিট না চালানোর অভিমত দেয়ায় মামলার বিচার চলার বাধা কেটেছে। শিমুল হত্যা মামলাটি রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তরের প্রজ্ঞাপন চ্যালেঞ্জ করে রিট করেন আসামিরা। এরপর এই মামলার কার্যক্রম ছয় মাসের জন্য স্থগিত করে হাইকোর্ট। হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ আবেদন করলে আপীল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করে বিষয়টি আপীল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়ে দেন। এর ধারাবাহিকতায় বুধবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনে নেতৃত্বে আপীল বিভাগের চার বিচারপতির বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানিতে আসামিপক্ষ আদালতকে জানায়, ‘যে রিটের ফলে শিমুল হত্যা মামলার কার্যক্রম স্থগিত করেছিল হাইকোর্ট, সেই রিট তারা চালাবেন না।’ এর প্রেক্ষিতে আপীল বিভাগ রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদন অকার্যকর উল্লেখ করে খারিজ আদেশ দেন। আদালতে আসামি পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন আর বাদী পক্ষে ছিলেন রুহুল কুদ্দুস কাজল। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি এ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ।

মোয়াজ্জেমের জামিন আবেদনের আদেশ ৩ নবেম্বর ॥ ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যার ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেফতার সোনাগাজী থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেনের জামিন আবেদনের বিষয়ে শুনানি শেষ হয়েছে। এ বিষয়ে আদেশের জন্য আগামী ৩ নবেম্বর দিন ঠিক করেছে হাইকোর্ট। বুধবার শুনানি শেষে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এইদিন ঠিক করে আদেশ দেন। আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আব্দুল বাসেত মজুমদার ও আইনজীবী রানা কাওসার। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি এ্যাটর্নি জেনারেল মোঃ সরওয়ার হোসেন বাপ্পী। মূল মামলার বাদী পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

প্রকাশিত : ১৭ অক্টোবর ২০১৯

১৭/১০/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অন্য খবর



শীর্ষ সংবাদ:
বিশাল সৌদি বিনিয়োগ ॥ বাংলাদেশের প্রত্যাশা ৫০ বিলিয়ন ডলার || শেয়ারবাজারে লেনদেনে এক বছরের মধ্যে রেকর্ড || প্যারোলে মুক্তির বিষয়টি আইনী প্রক্রিয়া মেনেই হতে হবে ॥ আইনমন্ত্রী || ৫ বছরে পৌনে পাঁচ লাখ মেট্রিক টন ফসল নষ্ট করেছে ইঁদুর ॥ কৃষিমন্ত্রী || তখন বাঙালী বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে একসঙ্গে দাঁড়িয়েছিল ॥ তোয়াব খান || ফিটনেসহীন যান চলাচল বন্ধে টাস্কফোর্স গঠনের নির্দেশ || রাজধানীর বস্তিতে বারবার কেন অগ্নিকান্ড? || বিএনপি কোথায় আবেদন করেছে আমার জানা নেই ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী || জাতীয় দিবসে ইংরেজির পাশে বাংলা তারিখ ব্যবহারে হাইকোর্ট রুল || রাজধানীর ২৩ শিল্পকারখানার বিদ্যুৎ, পানি ও গ্যাস বিচ্ছিন্ন ||