১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

১৬ অক্টোবর থেকে বৃষ্টি আরও বাড়বে

প্রকাশিত : ১১ অক্টোবর ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মৌসুমি বায়ু এই অঞ্চল থেকে বিদায় নিতে শুরু করেছে। ঠিক বিদায়ের আগ মুহূর্তে দেশের ভেতরে হঠাৎ করে সক্রিয় হয়েছে। আর এর প্রভাবে সারাদেশে বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। আবহাওয়া অফিস বলছে আগামীকাল পর্যন্ত সারাদেশে মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টিপাত হবে। এরপরে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত বৃষ্টিপাতের বিরতি থাকতে পারে। ১৬ অক্টোবর থেকে বৃষ্টিপাত আবারও বেড়ে যেতে পারে। বৃষ্টি ঝড়েই আগামী ২১ অক্টোবর দেশ থেকে মৌসুমি বায়ু বিদায় নেবে। ইতোমধ্যে ভারতের বিভিন্ন প্রদেশ থেকে মৌসুমি বায়ু বিদায় নিয়েছে।

আবহাওয়ারা জানিয়েছে, গত জুনে মৌসুমি বায়ু দেশে প্রবেশ করলেও বেশিরভাগ সময় মৌসুমি বায়ু সক্রিয় হতে পারেনি। এর প্রভাবে বর্ষাকাল জুড়ে উল্লেখ পরিমাণ বৃষ্টি হয়নি। যা সাধারণ বর্ষায় হয়ে থাকে। তবে ঠিক বিদায় নেয়ার আগ মুহূর্তে এর প্রভাবে বেশ বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। বিশেষ করে অক্টোবরের শুরু থেকেই দেশের বিভিন্ন স্থানে মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টিপাত হচ্ছে। পাশাপাশি বর্জ্যঝড় হচ্ছে। গত দু’দিনের বিভিন্ন স্থানে বর্জ্যপাতে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে সারাদেশের পাশাপাশি রাজধানীতে বিচ্ছিন্নভাবে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে হাল্কা থেকে মাঝারি মাত্রার বৃষ্টি শুরু হয়েছে। যা সন্ধ্যা অবধি অব্যাহত ছিল। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে সন্ধ্যায় ছয়টা নাগাদ রাজধানীতে বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ৩০ মিলিমিটার। এর মধ্যে শেষ ছয় ঘণ্টায় ২৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে মৌসুমি বায়ু দেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় অবস্থায় রয়েছে। অপরদিকে উত্তর বঙ্গোপসাগরে তা দুর্বল থেকে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে। দেশে মাঝারি অবস্থায় সক্রিয় হওয়ার কারণে বৃষ্টির প্রবণতা শুরু হয়েছে। আর দু’দিন এর প্রভাবে বৃষ্টিপাত হবে।

আবহাওয়া অধিদফতরের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ আব্দুল মান্নান জনকণ্ঠকে বলেন, মৌসুমি বায়ু উপমহাদেশ থেকে বিদায় নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে। ইতোমধ্যে ভারতের বিভিন্ন প্রদেশ থেকে মৌসুমি বায়ু বিদায় নিয়েছে।

তিনি জানান, মৌসুমি বায়ু সক্রিয় হওয়ায় সারাদেশে বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। আগামীকাল পর্যন্ত এই বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকবে। এরপর আবার কিছুটা বিরতি দিয়ে ১৬ অক্টোবর থেকে বৃষ্টিপাত শুরু হতে পারে। অর্থাৎ শুরুতে এর প্রভাবে বৃষ্টিপাত না হলেও যাওয়ার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত বৃষ্টিপাত ঝরাবে মৌসুমি বায়ু।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মৌসুমি বায়ু এমন এক বায়ু প্রবাহ যার প্রভাবে বাংলাদেশসহ এই উপমহাদেশে বর্ষকালের চারমাস প্রচুর বৃষ্টিপাত হয় এবং বন্যা হয়। দক্ষিণ এশিয়া এবং ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলের জলবায়ুতে সর্বাপেক্ষা প্রভাব বিস্তারকারী বায়ুপ্রবাহ। মৌসুমি বাযু প্রচুর পরিমাণে জলীয় বাষ্প বহন করে আনে। তাই এ অঞ্চলে এই সময় ভারি বৃষ্টিপাত হয়। বিশেষ করে বাংলাদেশ ও ভারতের প্রতিবেশী দেশসমূহে এই বায়ুর প্রভাবে প্রচুর বৃষ্টিপাত ঘটে।

এদিকে আবহাওয়া পূর্বাভাসে উল্লেখ করা হয়েছে মৌসুমি বায়ু ভারতের উড়িষ্যা পশ্চিমবঙ্গ অতিক্রম করে বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত। এর একটি অংশ বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। বাংলাদেশের ভেতরে মোটামুটি সক্রিয় অবস্থায় রয়েছে। এর প্রভাবে চট্টগ্রাম বরিশাল বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় রংপুর রাজশাহী বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় হাল্কা থেকে মাঝারি মাত্রায় বৃষ্টিপাত হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও ভারি বর্ষণের আশঙ্কা রয়েছে।

প্রকাশিত : ১১ অক্টোবর ২০১৯

১১/১০/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: