২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মাতৃভাষায় বিকশিত হচ্ছে না তরুণ প্রজন্ম


স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশের শিশুরা বর্তমানে তিন ভাষায় শিক্ষা নিচ্ছে। বাংলা, ইংরেজী ও আরবী- এ তিন ভাষা মাধ্যমে বর্তমান শিক্ষা পদ্ধতি পরিচালিত হচ্ছে। অনেক শিক্ষার্থীই আজ ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস জানে না। কারণ বাংলা মাধ্যমের স্কুল-কলেজগুলোতে বাংলাদেশের ইতিহাস সম্পর্কিত বিষয়সমূহ সম্প্রতি যুক্ত করা হলেও ইংরেজী ও আরবী মাধ্যমের পাঠ্যসূচীতে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধ, ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস পড়ানো হয় না। আমাদের বর্তমান প্রজন্ম জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানতে পারছে না, বাংলাদেশের ইতিহাস জানতে পারছে না। আমাদের শিক্ষাব্যবস্থায় পরিবর্তন জরুরী। দেশের প্রথম ও প্রধান সঙ্কট হলো এ শিক্ষাব্যবস্থা। তিন ধরনের মানুষ তৈরি করছি আমরা। এ তিন ধরনের মানুষের কাছ থেকে এক ধরনের চিন্তা আশা করা যায় না। যারা আরবী মাধ্যমে পড়ছে তাদের তো বাংলা পড়ানোই হয় না। সঙ্গে ইতিহাসও নয়। আরবী অবশ্যই শিখতে হবে, তবে তা বাংলাতেও সঠিকভাবে শেখা সম্ভব। বর্তমান প্রজন্ম যেভাবে শিখছে তার পরিপ্রেক্ষিতে তাদের কাছ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতি সম্মান দেখিয়ে নিজের দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া কষ্টসাধ্য। এতে অবশ্য শিশুদের ভুল নেই। বরং আমরা তাদের জানাতে পারছি না। এটাই আমাদের ব্যর্থতা বলে এক গোলটেবিল বৈঠকে মন্তব্য করেন মুক্তিযোদ্ধা ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব হাসান ইমাম। শুক্রবার রাজধানীর তোপখানা রোডসংলগ্ন সিরডাপ মিলনায়তনে সকাল ১০টায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস-২০১৭ উপলক্ষে আয়োজিত ‘ভাষা আন্দোলন, বঙ্গবন্ধু, জাতিসত্তা ও জাতিরাষ্ট্র’ শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে মূল প্রবন্ধের মুখবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা বিভাগের ডিন ইতিহাসবিদ প্রফেসর ড. একেএম দেলোয়ার হোসেন। দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যগণ, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সদস্যগণ, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, আলোচকবৃন্দ ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধুর অবদান ও বর্তমান প্রজন্মের মাতৃভাষাবিমুখতা ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা করেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য ডাঃ এসএ মালেক।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: