১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সিপিএল খেলতে আজ জ্যামাইকা যাচ্ছেন সাকিব


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (সিপিএল) খেলতে আজ জ্যামাইকার উদ্দেশ্যে দেশ ত্যাগ করার কথা রয়েছে দেশের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের। রাতে বিমানে চড়ার কথা। সেখানে গিয়ে দুই-একদিন বিশ্রাম নেবেন। এরপর জ্যামাইকা তালাওয়াহসের হয়ে খেলতে নামবেন সাকিব।

২০০৬ সালে অভিষেকের পর থেকে ক্রিকেট বিশ্বে তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটেই সাকিব পেয়েছেন সাফল্য। সব ফরম্যাটে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের মুকুট পড়া সাকিবকে টুর্নামেন্ট শুরুর আগে একমাত্র বাংলাদেশী হিসেবে ১ লক্ষ ১০ হাজার ডলার দিয়ে দলে ভিড়ায় জ্যামাইকা তালাওয়াহস। আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) হয়ে মাঠ মাতিয়ে দেশের মাটিতে ঢাকা লীগে নৈপুণ্য দেখানো বাংলাদেশের এই তারকা ক্রিকেটার সম্প্রতি এক সাক্ষাতকারের জন্য সিপিএলের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের মুখোমুখি হন। উক্ত সাক্ষাতকারে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগে খেলার বিষয়ে উচ্ছ্বসিত সাকিব বলেন, ‘আমার সহধর্মিণী চায় আমি এই লীগে অংশগ্রহণ করি। কারণ, তাহলে আমরা ক্যারিবিয়ার সবগুলো দ্বীপ ঘুরে দেখতে পারবো এবং দ্বীপের সৌন্দর্য আবিষ্কার করতে পারবো!’ বোঝাই যাচ্ছে সাকিবের সঙ্গে স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির ও তার কন্যা সন্তানও যাচ্ছেন খেলতে।

সাকিবের দল জ্যামাইকা তালাওয়াহসে সাকিবের সতীর্থ হচ্ছেন ক্রিস গেইল, কুমার সাঙ্গাকারা, আন্দ্রে রাসেল, ডেল স্টেইনের মতো ক্রিকেটাররা। চতুর্থ আসরে জ্যামাইকা তালাওয়াহসের হয়ে মাঠ মাতাবেন সাকিব। ২৯ জুন থেকে শুরু হতে যাওয়া টুর্নামেন্ট শুরুর তিনদিন আগেই ক্যারিবিয়ায় পৌঁছাবেন সাকিব। সাকিবের দলের প্রথম ম্যাচ ২ জুলাই। ফাইনাল ম্যাচ দিয়ে টুর্নামেন্ট শেষ হবে ৭ আগস্ট। মোট ৬টি দল অংশ নিচ্ছে টুর্নামেন্টে। দলগুলো হল-বারবাডোজ ট্রাইডেন্টস, গায়ানা এ্যামাজন ওয়ারিয়র্স, সেন্ট কিটস এ্যান্ড নেভিস পেট্রিয়টস, সেন্ট লুসিয়া জোকস ও ট্রিনবাগো নাইট রাইডার্স। সঙ্গে সাকিবের দল জ্যামাইকা তালাওয়াহস খেলবে। প্রতিটি দল লীগ পর্বে হোম এ্যান্ড এ্যাওয়ে ভিত্তিতে প্রতিটি দলের বিপক্ষে দুটি করে মোট ১০টি ম্যাচ খেলবে।

অনুমতি না নিয়েই যে সিপিএল (ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগ) খেলতে গিয়ে ছয় মাস আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ ছিলেন বাংলাদেশ অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান, সেই সিপিএলেই আবার খেলতে যাচ্ছেন। এবার আর তার ওপর কোন চাপ নেই বোর্ডের। অনাপতিপত্র যে দিয়ে দিয়েছে বিসিবি। তাই এবার নির্দ্বিধায় সিপিএলে খেলতে পারবেন সাকিব। জ্যামাইকা তালাওয়াহসের হয়ে খেলবেন এ অলরাউন্ডার।

এর আগে সিপিএলের প্রথম আসরে সুযোগ পেয়ে রীতিমতো চমক দেখিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। সেবার তিনি খেলেছিলেন বারবাডোজ ট্রাইডেন্টসের হয়ে। ব্যাট হাতে নিজের নামের প্রতি সুবিচার না করতে পারলেও বল হাতে দুর্দান্ত থাকা সাকিব এক ম্যাচে ৬ উইকেট নেয়ার পাশাপাশি শিকার করেন মোট ১১টি উইকেট।

সিপিএলের প্রথম আসরে খেলার পর পরবর্তী আসর ২০১৪ সালে খেলার জন্য ডাক পেলেও বোর্ড থেকে অনাপত্তিপত্র না মিলায় সিপিএলে আর খেলা হয়নি বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের। আবার অনাপতিপত্র না নিয়ে খেলতে যাওয়ায় শাস্তিও পান। জ্যামাইকা তালাওয়াহসের হয়ে ঠিক সময়ে মাঠে নামতে গত কয়েকদিন আগে অনাপত্তি পত্রের জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছে আবেদন করেন সাকিব। তার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সাড়াও মিলেছে বিসিবির পক্ষ থেকে। অনাপত্তিপত্র মিলায় আসন্ন এই টুর্নামেন্টে খেলতে এবার আর কোন বাধা রইলো না সাকিব আল হাসানের।