২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

স্বাধীনতা দিবসে যাত্রাপালা ‘বাংলার মহানায়ক’


স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের অন্যতম সমৃদ্ধ উপাদান যাত্রাশিল্প। যুগে যুগে এ শিল্প নানা বেশে নানা প্রতিকূল পরিবেশেও বহমান সময়ের কথা বলে এসেছে। সংস্কৃতির সবচেয়ে সমৃদ্ধ এ শিল্প এক সময় নিদারুণ অবহেলার শিকার হয়েছে। নানা বাধা-বিপত্তির মুখে অনেকটাই ম্লান এ শিল্প এখনও টিকে আছে কিছু ত্যাগী মানুষের নিরন্তর ও নিঃস্বার্থ প্রচেষ্টায়। তেমনি একজন মানুষ দেশবরেণ্য যাত্রানট মিলন কান্তি দে। পঞ্চাশেরও অধিক বছর ধরে তিনি এ শিল্পের সঙ্গে নিজেকে জড়িয়ে রেখেছেন। নানা ঘাতপ্রতিঘাত সত্ত্বেও এ যাত্রা শিল্পের প্রতি তার নেশা এবং ভালবাসা কোনটাই কমেনি। দেশ অপেরা নামে সংগঠনের মাধ্যমে বিভিন্ন যাত্রাপালায় অভিনয়ের পাশাপাশি সমানতালে নির্দেশনা এবং মাঝে মধ্যে পালাও রচনা করে থাকেন তিনি। তারই ধারাবাহিকতায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে তিনি রচনা করেছেন যাত্রাপালা ‘বাংলার মহানায়ক’, যা ইতোমধ্যে নন্দিত হয়েছে।

১৯৬৯ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘বঙ্গবন্ধু’ উপাধিতে ভূষিত করার ঘটনা থেকে পালা কাহিনী শুরু। ওই দিন তদানীন্তন রেসকোর্স ময়দানে শেখ মুজিবকে সর্বদলীয় ছাত্রসংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক তোফায়েল আহমেদ ‘বঙ্গবন্ধু’ উপাধিতে ভূষিত করেন। সেই ঐতিহাসিক ঘটনা থেকে মর্মস্পর্শক এ পালাকাহিনী এগিয়ে যায়। ১৯৭১ সালের অসহযোগ আন্দোলন, স্বাধীনতার জন্য বঙ্গবন্ধুর উদাত্ত আহ্বান, ২৫ মার্চ গভীর রাতে তাঁকে গ্রেফতার, বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন, নতুন বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় এবং ১৫ আগস্ট বিয়োগান্তক পরিণতির মধ্য দিয়ে এ যাত্রাপালা শেষ হয়। ইতোমধ্যে পালাটির বেশ কয়েকটি প্রদর্শনী হয়েছে। বাংলাদেশের সংস্কৃতিমনা মানুষের অকুণ্ঠ প্রশংসা কুড়িয়েছে পালাটি। এর অভিনয় শিল্পীরাও নন্দিত হয়েছেন তাদের অভিনয়শৈলীর কারণে। পাশাপাশি যাত্রানট মিলন কান্তি দে প্রশংসিত হয়েছেন রচনা ও নির্দেশনার কারণে।

জানা গেছে, মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে আগামী ২৬ মার্চ বাংলাদেশ শিশু একাডেমির উদ্যোগে প্রতিষ্ঠানের মঞ্চে প্রদর্শিত হবে যাত্রা সংগঠন দেশ অপেরা প্রযোজিত বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামী জীবনভিত্তিক যাত্রাপালা ‘বাংলার মহানায়ক’। দলসুত্রে জানা গেছে ওইদিন সন্ধ্যা ৬-৩০ মিনিটে পালাটির ষষ্ঠ মঞ্চায়ন হবে। ড. এ এইচ খানের ‘ফাদার অব দ্য নেশন’ উপন্যাস অবলম্বনে পালাটি রচনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন বিশিষ্ট যাত্রানট মিলন কান্তি দে। পালায় বঙ্গবন্ধু চরিত্রে এস এম শফিসহ আরও অংশগ্রহণ করছেন- এম আলীম, সুদর্শন চক্রবর্তী, দীপক বণিক, মোবারক আলী, এম সিরাজ, আবুল কালাম আজাদ, লুৎফুন্নাহার রিক্তা, মনি মালা, অলি উল্লাহ অলি, বিবেক, বাচ্চু খান প্রমুখ।