মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৬ আশ্বিন ১৪২৪, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

কানাকানি

প্রকাশিত : ২৪ ডিসেম্বর ২০১৫

আবারও মাহির নাটক!

পাত্র হিসেবে কালো ছেলেই পছন্দ চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির। দাঁত বাঁকা ছেলে হলে তো কোন কথাই নেই। আগেই জানিয়েছিলেন মাহি। সম্প্রতি তিনি ফেসবুকে একটি ছেলের সঙ্গে ছবি প্রকাশ করেছেন। ক্যাপশানে লিখেছেন, ‘দাঁতগুলা কিন্তু বাঁকাই আছে’। গত ১১ ডিসেম্বর মাহি এক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘মিস ইউ শাওন। টু মাচ মিসিং ইউ।’ অন্যদিকে মাহির জন্মদিনের অগ্রিম শুভেচ্ছা হিসেবে শাওন নিজের আইডি থেকে একটি বার্থডে কার্ড পোস্ট করেন। কার্ডটিতে লেখা ছিল, ‘হ্যাপি বার্থ ডে টু মাই ওয়ান্ডারফুল ওয়াইফ’। সেই থেকেই শুরু হলো ঝর। একের পর এক নিউজ। এই ছেলেটাই কি তবে মাহির পছন্দের পাত্র! কিন্তু মাহি জানালেন, ‘এই ছেলেটি আমার বন্ধু। খুব ছোটবেলা থেকেই আমাদের বন্ধুত্ব।’ ছোটবেলার বন্ধু কি প্রেমিক হতে পারে না! এমন বিস্ময়ে মাহির উত্তর, ‘অবশ্যই পারে। কিন্তু শাওনের বয়স আর আমার বয়স একই। সমবয়সী কাউকে বিয়ে করব না। বিয়ে করলে আমার চাইতে একটু বয়সে বড় কাউকেই করব।’ তবে কেন এই নাটক? মাহি তো বরাবরই শিরোনামে, তবুও কেন নিজে থেকে স্ক্যান্ডালে জড়িয়ে আবারও শিরোনামে উঠে আসতে হবে তাঁর! তবে কি আলোচনার শীর্ষে থাকার জন্যই তাঁর এমন কর্মকা-! এই বিস্ময়ই এখনও ঘুরপাক খাচ্ছে মাহি ভক্তদের মনে।

সংসার ভাঙছে বাপ্পা-চাঁদনীর!

যে কোনদিন বাপ্পা-চাঁদনীর দাম্পত্য জীবনের ইতি ঘটে যেতে পারে। তাদের সমসাময়িক আচরণ অন্তত তা-ই প্রমাণ করছে। এমনটাই জানিয়েছে বেশ কয়েকটি পত্রিকা। জানা যায়, প্রতিদিনই তারা দাম্পত্য কলহে লিপ্ত হচ্ছেন। মাঝেই মাঝেই চাঁদনী বাপ্পার সঙ্গে রাগ করে মায়ের বাসায় চলে যান। আবার বাপ্পা বুঝিয়ে-শুনিয়ে নিয়ে আসেন।

পরস্পরের মধ্যে নানা বিষয় নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি ও সন্দেহপ্রবণতাই এর প্রধান। বিয়ের পর থেকেই নাকি বাপ্পা মজুমদার ও চাঁদনীর সম্পর্কটা ভাল যাচ্ছে না। নানা বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া-বিবাদ হয়। ব্যক্তি বাপ্পা ও তাঁর পেশার প্রতি নাকি চাঁদনীর কোন শ্রদ্ধাবোধই নেই।

বাপ্পার আত্মীয়-স্বজনরা মনে করছেন, চঁাঁদনী বাপ্পাকে নয়, তাঁর তুমুল খ্যাতিকেই ভালবেসেছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক আত্মীয় একটি অনলাইন পত্রিকাকে বলেন, ‘শুনেছি চাঁদনী অন্য কারও সঙ্গে নিজেকে জড়িয়ে ফেলেছেন। এটা বাপ্পাকে অনেক কষ্ট দেয়। ফলে দিন দিন তাদের দূরত্ব আরও বাড়তে থাকে। এরইমধ্যে দুই পরিবার বসে বিষয়টি সমাধানে একাধিকবার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছেন।’

আরেকটি সূত্র জানায়, চাঁদনী নতুন করে প্রেমে মজেছেন। অভিনেত্রী তাজিনের দ্বিতীয় স্বামী রুমীর সঙ্গে বিভিন্ন জায়গায় তাকে ঘোরাফেরা করতে দেখা গেছে।

বিচ্ছেদের পথে ক্যাট-রানবির?

২০০৮ সালে ‘বাচনা অ্যায় হাসিনো’ সিনেমায় কাজ করতে গিয়ে প্রেমে পড়েন দীপিকা-রানবির। এক বছর পর তাদের সম্পর্ক ভেঙে যায়। এরপর থেকেই ক্যাটরিনার সঙ্গে জুড়ে যায় রানবিরের নাম। ২০১৪ সালের শেষের দিকে বাবা ঋষি কাপুরের বাড়ি ছেড়ে ক্যাটরিনার সঙ্গে আলাদা এ্যাপার্টমেন্টে বসবাস করা শুরু করেন রানবির। কিন্তু, তাদের সম্পর্কই খুব একটা ভাল যাচ্ছে না আজকাল! অচিরেই তাদের বিচ্ছেদও ঘটে যেতে পারে! কারণ? রানবির তাঁর সাবেক প্রেমিকা দীপিকার বুকে আবার ঠাঁই নিয়েছেন। নাইনএক্সই বলছে, ‘তামাশা’র প্রচারের কাজে অনেকটা সময় দীপিকার সঙ্গে কাটিয়েছেন রানবির। তাদের ঘনিষ্ঠতা আর সবার সঙ্গে চোখে পড়েছে ক্যাটরিনারও। সম্প্রতি জি কিউ ম্যাগাজিনের সঙ্গে একটি সাক্ষাতকারে ক্যাটরিনাকে জিজ্ঞেস করা হয়, সাবেক প্রেমিকার সঙ্গে রানবিরের কাজ করার বিষয়টি কিভাবে দেখেন তিনি। ক্যাট বলেন, ‘আমার জীবনে যেসব মানুষ আছেন, তাদের উপর আমি আমার ইচ্ছা চাপিয়ে দিতে পারি না। তাদের নিজস্ব পছন্দ আছে। সেগুলো নিয়ে আমি খুশি নাও হতে পারি। তবে আমি আশা করতে পারি যে, তারা পরিপক্ব বা বিকশিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তাদের পছন্দও বদলাবে!’

নগ্ন হয়েও অস্বস্তিতে ছিলেন না প্রসেনজিতের স্ত্রী!

অর্পিতা চ্যাটার্জি, অভিনেতা প্রসেনজিতের স্ত্রী। বলিউডে নিজের প্রথম সিনেমার জন্যই নগ্ন হলেন তিনি। অনির পরিচালিত ‘শাব’ সিনেমার মাধ্যমেই হিন্দি সিনেমায় অভিষেক ঘটছে বাঙালী এই অভিনেত্রীর। ডেকান ক্রনিকল বলছে, সিনেমার একটি দৃশ্যে নিজের উর্ধ্বাঙ্গ পুরোপুরি উন্মুক্ত করতে দেখা যাবে অর্পিতাকে। দৃশ্যটির ব্যাপারে প্রথমে বেশ আপত্তি ছিল প্রসেনজিতের। স্বামী হয়ে এটা কি এত সহজেই মানা যায়!

পরে অবশ্য সিনেমার কাহিনী এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে দৃশ্যটির গুরুত্ব অনুধাবন করে রাজি হয়ে যান তিনি।

অর্পিতা জানালেন, কোনরকম অস্বস্তি ছাড়াই দৃশ্যটিতে অভিনয় করেছেন তিনি। তাঁর মতে, ‘দৃশ্যটি অশ্লীল নয়, বরং নান্দনিক মনে হবে দর্শকদের কাছে।’

বলিউডে প্রথমবার পা রাখলেও টালিগঞ্জে খুব পরিচিত মুখ অর্পিতা। ১৯৯৯ সালে ‘তুমি এলে তাই’ সিনেমার মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু। এরপর অভিনয় করেছেন ‘দেবা’, ‘দেবদাস’, ‘দাদাঠাকুর’, ‘অনুপমা’, ‘উৎসব’-এর মতো ভাল ভাল সিনেমায়। ‘শাব’-এর গল্প এগুবে দ্বৈত জীবনযাপন করা চারটি চরিত্রকে ঘিরে। সিনেমাটির দৃশ্যপট পাল্টে যায়, যখন তাদের মুখোশ খুলে যায়।

প্রতারণা করেছেন স্বয়ং টেইলর সুইফট!

টেইলর সুইফট সবসময়ই শিল্পীদের যথাযথ সম্মানী দেয়া নিয়ে সোচ্চার ছিলেন। কিন্তু, এবার তাঁর বিরুদ্ধেই সম্মানী নিয়ে প্রতারণার অভিযোগ তুললেন এক চিত্রশিল্পী!

এ্যালি বার্গিয়ার্স নামের ওই চিত্রশিল্পী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এক খোলা চিঠির মাধ্যমে অভিযোগ করেছেন, তার আঁকা একটি ছবি সুইফট তার ‘১৯৮৯’ এ্যালবামের প্রচারে অনুমতি ছাড়াই ব্যবহার করেছেন। চিঠিতে তিনি বলেন, ‘আমি একজন পেশাদার শিল্পী। আমার করা জনপ্রিয় একটি নক্সা আপনার ‘১৯৮৯’ এ্যালবামের প্রচারে ব্যবহৃত হতে দেখে আমি অত্যন্ত বিস্মিত হয়েছি। এ্যালবামের ছবিটি নকল এবং শিল্পী হিসেবে অন্য আরেকজনের নাম ব্যবহৃত হতে দেখে আমি ব্যথিত। ..আমি ভেবেছিলাম যদি আপনি এই ভুলের কথা জানেন, তাহলে হয়ত সংশোধনের জন্য সঠিক ব্যবস্থা নেবেন। কিন্তু আমি ভুল ভেবেছিলাম।’

এ্যালি আরও অভিযোগ করেন, অনেকদিন ধরে তাদের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টার পর টেইলর এবং তাঁর দল তাকে এর শিল্পী হিসেবে স্বীকার না করে, তাকে ক্ষতিপূরণ দিতে চায়। তবে শর্ত ছিল, এই টাকার পুরোটাই এ্যালির দান করে দিতে হবে। অতঃপর টেইলরের কাছে তিনি প্রশ্ন রাখেন, ‘একজন পেশাদার শিল্পী হিসেবে আপনি কি এ্যাপল কিংবা স্পটিফাই-এর এই ধরনের প্রস্তাব মেনে নেবেন?’

প্রকাশিত : ২৪ ডিসেম্বর ২০১৫

২৪/১২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: