২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

রাজধানীতে নির্যাতিত গৃহকর্মীকে উদ্ধার ॥ মেডিক্যালে ভর্তি


স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর দারুস সালামে এলাকার একটি বাসা থেকে সুমাইয়া (১৩) নামে এক গৃহকর্মীকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাত দেড়টায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পুলিশ জানায়, আহত সুমাইয়ার মুখে গরম খুনতির ছ্যাঁকার দাগ, হাত ও পায়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাত পাওয়া গেছে। ঘটনার পর অভিযুক্ত গৃহকর্তা মহিবুল্লাহ ও গৃহকর্মী মরিয়ম পলাতক রয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

দারুস সালাম থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নাছির মিয়া জানান, সুমাইয়া ৫ মাস যাবত দারুস সালামের ১০ নম্বর রোডের ১৩৮ নম্বর ভবনের মবিুল্লাহ বাড়িতে ৫ মাস ঝিয়ের কাজ করত। একটু কাজের ত্রুটি হলে বিভিন্ন সময়ে ওই বাসার গৃহকর্ত্রী মনতাকা মরিয়াম তাকে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা ও ছুরি ও দা দিয়ে তার শরীরে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে রক্তাক্ত করত। মারধরও করত। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার গভীররাতে খবর পেয়ে ওই বাসা থেকে গৃহকর্মী সুমাইয়াকে উদ্ধার করা হয়। পরে রাত দেড়টার দিকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এসআই নাছির মিয়া আরও জানান, এ ব্যাপারে রাত দুইটার দিকে গৃহকর্ত্রী মনতাকা মরিয়মের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এ ঘটনার পর থেকে স্বামী-স্ত্রী পলাতক রয়েছেন। আহত সুমাইয়ার বাবার নাম আব্দুস সালাম। গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালী সদর জেলার তিতকটা গ্রামে। আহত সুমাইয়া পুলিশকে জানায়, কোন কাজ ভুল করলে মেম সাহেব মরিয়ম তাকে খুন্তি দিয়ে তার হাতে, পায়ে, মুখে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছ্যাঁকা দিতেন।