ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১

নেপালের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে

প্রকাশিত: ২৩:৪৭, ১৫ জুন ২০২৪

নেপালের বিরুদ্ধে  সতর্ক থাকতে  হবে

.

প্রিয় পাঠক, দেশবাসীকে টাইগাররা ঈদ উপহার দেবেন এটাই আশা করছি। কেননা বাংলাদেশের শেষ গ্রুপ ম্যাচটি ঈদের দিন নেপালের বিরুদ্ধে। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচটিতে জিতলেই সুপার এইটে খেলার লক্ষ্য পূরণ হবে। আমার বিশ্বাস ক্রিকেটাররা লক্ষ্যপূরণে বদ্ধপরিকর। তবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে নেপাল যেভাবে বুক চিতিয়ে খেলেছে তাতে তাদের বিরুদ্ধে সতর্ক হয়েই খেলতে হবে শান্ত-সাকিবদের।

এখন পর্যন্ত খেলা নিজেদের তিনটি ম্যাচেই টাইগার বোলাররা ভালো করেছে। ব্যাটাররা ফর্মে ফেরার ইঙ্গিত দিচ্ছে। নেপালের বিরুদ্ধে সেটা পূরণ হবে বলে আশা রাখি। তবে হিমালয় কন্যার দেশের ক্রিকেটাররা সহজে হাল ছেড়ে দেবেন না এটাই স্বাভাবিক। সে প্রমাণ তারা রেখেছে প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে। শনিবার সেন্ট ভিনসেন্টে নেপাল তো জিতেই যাচ্ছিল। শুধু অভিজ্ঞতার অভাবের কারণে শেষ পর্যন্ত রানে হারতে হয়েছে তাদের। হারেও গর্ব আছে। দলটির অধিনায়ক সেটাই জানিয়েছেন। গত কয়েক বছর ধরেই নেপাল লড়াকু ক্রিকেট খেলে চলেছে। যোগ্যতার প্রমাণ রেখেই তারা বিশ্বমঞ্চে খেলছে। যে কারণে বাংলাদেশকে সতর্ক সজাগ থেকেই নেপালকে হারানোর ছক কষতে হবে।

প্রিয় পাঠক, বাংলাদেশ এখন পর্যন্ত তিনটি ম্যাচ খেলেছে। দুটিতে জিতেছে। আরেকটিতে জেতার কাছাকাছি যেয়ে হারতে হয়েছে। সবমিলিয়ে পারফরমেন্স ভালো বলতে হবে। কিন্তু আমি এখনো শতভাগ সন্তুষ্ট হতে পারিনি। বোলারদের কল্যাণেই তিনটি ম্যাচে ভালো খেলেছে বাংলাদেশ। ব্যাটাররা এখনো সেভাবে জ্বলে উঠতে পারেননি। অধিনায়ক শান্তকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে হবে। নেপালের বিরুদ্ধে ম্যাচটি হবে ঈদের দিন। জয় পেলে দেশের মানুষের এর চেয়ে বড় উপহার আর কিছু হবে না। আমার ধারণা ক্রিকেটারদের মাথায় আছে বিষয়টি। সাকিব তো বলেছেনই ঈদ উপহার দিতে চান। দলের জন্য সুখকর খবর, সাকিব ফর্মে ফিরেছেন এবং সেটা সঠিক সময়ে। এই ফর্ম ধরে রাখতে পারলে আরও বড় সাফল্য সম্ভব।

এবারের বিশ্বকাপকে অঘটন চমকেরও বলা যায়। ইতোমধ্যে বাদ পড়েছে নিউজিল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তানের মতো বড় দল। ইংল্যান্ডের ভাগ্যও ঝুলছে। এর মাঝে চমক দেখিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। প্রথমবার বিশ্বকাপ খেলতে এসেই তারা সুপার এইটে পৌঁছে গেছে। ভালো ক্রিকেট খেলেই মার্কিনিরা চোখ ধাঁধানো সাফল্য পেয়েছে। এতে করে ক্রিকেটেই লাভবান বলে বলে আমি মনে করি। কেননা বলার অপেক্ষা রাখে না, যুক্তরাষ্ট্র সবচেয়ে প্রভাবশালী দেশ বিশ্বের। সেই দেশটি ক্রিকেটে মনোযোগ দিলে এই খেলার জন্যই ভালো। আফগানিস্তান একের পর এক চমক দেখিয়ে চলেছে। তারা বড় সাফল্য পেয়ে গেলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। তবে মনেপ্রাণে চাইব আমাদের প্রাণের বাংলাদেশ সুপার এইটেও চমকপ্রদ পারফরমেন্স প্রদর্শন করুক।

অনুলিখন : জাহিদুল আলম জয়।

×