ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১

বুধবার শ্রীলঙ্কার প্রতিপক্ষ নেপাল, অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে লড়বে নামিবিয়া

সুপার এইটের আশা ছাড়েনি পাকিস্তান

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:৩৬, ১১ জুন ২০২৪

সুপার এইটের আশা ছাড়েনি পাকিস্তান

ব্যর্থতায় কাতর নাসিম শাহকে সান্ত¦না দিচ্ছেন শাহিন আফ্রিদি

পাকিস্তান কেন ‘আনপ্রেডিক্টেবল’, বিশ্বকাপেও সেটি দেখছে বিশ্ব ক্রিকেট। ক্রিকেটের শিক্ষানবিস দেশ যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে টাই ম্যাচে সুপার ওভারে হারের পর তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের কাছে ৬ রানের নাটকীয় হারে অনেকটাই ব্যাকফুটে বাবর আজমের দল। কার্যত ‘এ’ গ্রুপ থেকে বিদায়ের প্রহর গুনছে সাবেক চ্যাম্পিয়নরা।

২ ম্যাচে ২ জয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ভারত, সমান জয়ে দুইয়ে আয়োজক যুক্তরাষ্ট্র। তবে এখনই হাল ছাড়ছে না পাকিরা। পরের দুই ম্যাচে বড় জয় তুলে নিয়ে অন্যদের সমীকরণের অপেক্ষায় থাকতে চান বাবর। সেই নিউইয়র্কেই আজ তাদের প্রতিপক্ষ কানাডা। ম্যাচটি শুরু বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে আটটায়। ফ্লোরিডায় বুধবার ভোরে শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হবে নেপাল। আর সকাল সাড়ে ছয়টায় নামিবিয়া খেলবে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে।
যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হারলেও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ঐতিহাসিক জয় তুলে নিয়ে টেবিলের তিনে আছে কানাডা। গ্যাড়াকলে থাকা পাকিদের বিপক্ষেও আজ জয় তুলে নিতে চাইবে সাদ বিন জাফরের দল! এমন একটা গ্রুপে পাকিস্তান যে এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হবে, প্রতিপক্ষও হয়ত তা ভাবেনি। মূলত যুক্তরাষ্ট্রের কাছে সুপার ওভারের হারেই এই অবস্থা। দুই ম্যাচ শেষে পাকিস্তানের ভা ার এখন শূন্য।

গ্রুপ পর্ব উতরানো এখন তাদের জন্য ভীষণ কঠিন। শুধু নিজেরা বাকি দুই ম্যাচ জিতলেই হবে না, তাকিয়ে থাকতে হবে অন্যদের দিকেও। তবে সেই আশার তরী এখনো বাইছেন বাবর, ‘অবশ্যই শেষ দুটি ম্যাচ জিততে হবে আমাদের। আমরা বসে আলোচনা করব আমাদের ভুলগুলি নিয়ে। তবে পরের দুটি ম্যাচে তাকিয়ে আছি আমরা।’

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে অঘটনের শিকার হলেও ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটা জয়ের পথে ছিল পাকিস্তান। টস জিতে বোলিংয়ে নামা পাকিস্তানের  বোলাররা দুর্দান্ত পারফর্ম করেন ইনিংসের শেষ আট ওভারে। ১১ ওভার শেষে ভারতের রান ছিল ৩ উইকেটে ৮৯। সেখান থেকে ৩০ রানেই তারা হারায় শেষ ৭ উইকেট।

কিন্তু বোলারদের সেই পারফরম্যান্সকে যোগ্য প্রতিদান দিতে পারেননি ব্যাটসম্যানরা। ১২০ রানের ছোট লক্ষ্য তাড়ায় এক পর্যায়ে ১০ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে পাকিস্তানের স্কোর ছিল ৭৩। সেই তারাই ৭ উইকেটে ১১৩ রানে থেমে গিয়ে হারে ৬ রানে। এটা কেবল পাকিস্তানের পক্ষেই সম্ভব!

×