ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০২ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

আজ বাংলাদেশ-রাশিয়া মুখোমুখি সাফ নারী ফুটবলে

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:৫৮, ২২ মার্চ ২০২৩

আজ বাংলাদেশ-রাশিয়া মুখোমুখি সাফ নারী ফুটবলে

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ও রাশিয়ার কোচ এবং অধিনায়কেরা

প্রথম ম্যাচে প্রতিপক্ষ অনেক ‘দুর্বল’ বিধায় জয় এসেছিল অনেক সহজেই। কিন্তু দ্বিতীয় ম্যাচে পড়তে হচ্ছে সবচেয়ে কঠিন পরীক্ষায়। কেননা প্রতিপক্ষ অনেক বেশি শক্তিশালী এবং অচেনাও বটে। তারপরও নিজেদের ওপর আস্থা-আত্মবিশ্বাস রেখেই এবং ভালো খেলার প্রত্যয় নিয়েই আজ বুধবার সবুজ টার্ফে নামছে বাংলার বাঘিনীরা। সাফ অনূর্ধ্ব-১৭ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরের দ্বিতীয় দিনের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক বাংলাদেশ মোকাবিলা করবে অংশ নেয়া অতিথি-আলোচিত দল রাশিয়াকে। ম্যাচটি শুরু হবে বিকেল সোয়া ৩টায়। এছাড়া একই ভেন্যুতে সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় অপর ম্যাচে ভুটান মুখোমুখি হবে নেপালের।
সিনিয়র পর্যায়ে তো বটেই, বয়সভিত্তিক কোনো পর্যায়েও এর আগে কখনই রাশিয়ার বিরুদ্ধে খেলেনি বাংলাদেশের নারী ফুটবলাররা। শুধু তাই নয়, রাশিয়াই হতে যাচ্ছে নারী ফুটবলের যে কোনো পর্যায়ে বাংলাদেশের প্রথম কোন ইউরোপিয়ান প্রতিপক্ষ। ফলে নিঃসন্দেহে আজ রাশিয়ার বিরুদ্ধে খেলতে নেমে স্মরণীয় একটি কীর্তি গড়তে যাচ্ছেন রুমা আক্তাররা। 
এমনিতেই রাশিয়া শক্তিশালী, তার ওপর আবার অচেনা প্রতিপক্ষও বটে বাংলাদেশের জন্য। কেননা বয়সভিত্তিক এই দলের খেলার ধরন বা কোনো ভিডিও ফুটেজ নেই বাংলাদেশ দলের কোচিং স্টাফদের কাছে। এ প্রসঙ্গে ছোটনের ভাষ্য, ‘রাশিয়ার এই দলের সম্পর্কে আমাদের কোনো ধারণা নেই। ভিডিও ফুটেজও নেই। আমরা তাদের সমীহ করেই খেলব। তবে যেহেতু বিগত সময়ে আমাদের মেয়েরা বেশ ভালো খেলে চলেছে, তাই তাদের ওপর ভরসা করছি। আমরা ম্যাচে আক্রমণাত্মক ধাঁচেই খেলব।’
মাঠের খেলায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল হচ্ছে মিডফিল্ড। এই অঞ্চলের খেলা নিয়ন্ত্রণই সব বলে মনে করেন ছোটন, ‘যদি মেয়েরা তাদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে পারে এবং মাঝমাঠের খেলাটা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে, তাহলে আমরা এটার সুবিধা পাব। আর গোলের সুযোগ কাজে লাগাতে সচেষ্ট থাকব।’ দলের রিজার্ভ বেশ নিয়ে বেশ আশাবাদী ছোটন, ‘আমাদের রিজার্ভ বেঞ্চের কয়েকজনকে ভুটানের বিরুদ্ধে খেলিয়েছি। তারা সবাই বেশ ভালো খেলেছে।

আশাকরি রাশিয়ার বিরুদ্ধেও তারা ভালো খেলবে।’ ছোটন আরও বলেন, আমি মনে করি শতভাগ আত্মবিশ্বাস নিয়ে আমরা রাশিয়ার বিপক্ষে খেলতে পারব। রাশিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচটিকেই বাংলাদেশের জন্য ‘ফাইনাল’ ম্যাচ বলে মনে করেন না ছোটন, ‘আমার কাছে প্রতিটি ম্যাচই ফাইনাল। এখানে সবাই কঠিন প্রতিপক্ষ। কাউকেই ছোট করে দেখার কোনো সুযোগ নেই।’

×