ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

নিউজিল্যান্ড দেখল গিল শো

জিএম মোস্তফা

প্রকাশিত: ০০:৫৭, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

নিউজিল্যান্ড দেখল গিল শো

সেঞ্চুরিয়ান শুভমান গিল

শুভমান গিলের শো চলছেই। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি২০ সিরিজের তৃতীয় এবং শেষ ম্যাচে দুর্দান্ত ব্যাট করলেন ভারতীয় ক্রিকেটের এই তরুণ সেনসেশন। তুলে নিলেন টি২০ ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। মাত্র ৬৩ বলে ১২ চার আর ৭ ছক্কায় ১২৬ রানের অনবদ্য এক ঝড়ো ইনিংস খেলেন তিনি। আর তাতেই শেষ ম্যাচে ভারত ১৬৮ রানের বিশাল ব্যবধানে হারায় নিউজিল্যান্ডকে। প্রথমে ব্যাট করে ৪ উইকেটে ২৩৪ রান করা ভারতের সামনে এদিন দাঁড়াতেই পারেনি ব্ল্যাক ক্যাপসরা। ১২.১ ওভারে মাত্র ৬৬ রানেই গুটিয়ে যায় সফরকারীদের ইনিংস। সেইসঙ্গে তিন ম্যাচের সিরিজ ২-১ ব্যবধানে নিজেদের করে নেয় হার্দিক পান্ডিয়ার দল। 
সিরিজে ১-১ সমতা নিয়ে আহমেদাবাদে বুধবার টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। ব্যক্তিগত ১ রানে ইশান কিষান আউট হলে শুরুতেই ধাক্কা খায় ভারত। তবে এদিন সেই ধাক্কা যেন একাই সামলানোর দায়িত্ব নেন আরেক ওপেনার শুভমান গিল। প্রতিপক্ষের বোলারদের দর্শক বানিয়ে ৩৫ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন গিল। পরের ফিফটি করেন মাত্র ১৯ বলে। ৫৪ বলেই টি২০ ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরির স্বাদ পেয়ে যান তিনি। সেইসঙ্গে টি২০ ক্রিকেটে ভারতের সর্বকনিষ্ঠ ক্রিকেটার হিসেবে সেঞ্চুরির রেকর্ডও এখন ২৩ বছর ১৪৬ দিন বয়সী গিলের। তার আগেরটা ছিল সুরেশ রায়নার, ২৩ বছর ১৫৬ দিনে।
গিল অবশ্য এখানেই থামেননি। ইনিংসের শেষ পর্যন্ত খেলে ১২৬ রানে অপরাজিতও থাকেন। আর তাতেই তার ‘আইডল’ বিরাট কোহলির রেকর্ড ভেঙে ভারতের পক্ষে টি২০ সংস্করণে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের মালিকও বনে যান গিল। গেল বছর এশিয়া কাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষে অপরাজিত ১২২ রানের ইনিংসটিই ছিল কোহলির ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ। এরপর অবস্থান যথাক্রমে রোহিত (১১৮) এবং সূর্যকুমার যাদবের (১১৭)। শুধু তাই নয়? ভারতের পঞ্চম ক্রিকেটার হিসেবে গিল এখন সব ফরম্যাটে সেঞ্চুরি করার বিস্ময়কর কীর্তিরও মালিক। এলিট ক্লাবে তার আগের চার সদস্য হলেন সুরেশ রায়না, বিরাট কোহলি, লুকেশ রাহুল এবং রোহিত শর্মা।
গত দুই মাসের ব্যবধানে ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি, ওয়ানডেতে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি এবং সর্বশেষ বুধবার তুলে নিলেন প্রথম টি২০ সেঞ্চুরিও। শুভমান গিল ছাড়া এদিন রাহুল ত্রিপাটি ২২ বলে ৪৪, সূর্যকুমার যাদব ১৩ বলে ২৪ আর অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া ১৭ বলে ৩০ রান করেন। ফলে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ২৩৪ রানের পাহাড় গড়ে স্বাগতিক দল। এই ফরম্যাটে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে যা টিম ইন্ডিয়ার তৃতীয় সর্বোচ্চ দলীয় রান।

২৩৫ রানের বিশাল টার্গেটে খেলতে নেমে ভারতীয় পেসারদের তোপে রীতিমতো দিশেহারা হয়ে পড়ে নিউজিল্যান্ড। ৭ রানেই প্রথম ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলে তারা। শেষ পর্যন্ত ১২.১ ওভারে ৬৬ রান তুলতে সক্ষম হয় কিউইরা। সফরকারীদের মাত্র দুজন ব্যাটার দুই অঙ্কের কোটা স্পর্শ করেন। ড্যারিল মিচেল সর্বোচ্চ ৩৫ আর অধিনায়ক মিচেল স্যান্টনার করেন ১৩ রান। ভারতের পান্ডিয়া ৪টি, অর্শদ্বীপ, উমরান ও মাভি ২টি করে উইকেট দখল করেন। ম্যাচ সেরা হয়েছেন গিল। সিরিজ সেরার পুরস্কার জিতেছেন পান্ডিয়া।

×