ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

সিলেটে মাশরাফিদের নিয়ে উন্মাদনা

শাকিল আহমেদ মিরাজ

প্রকাশিত: ০০:৩৮, ২৬ জানুয়ারি ২০২৩

সিলেটে মাশরাফিদের নিয়ে উন্মাদনা

সিলেট স্ট্রাইকার্সের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা এমপি

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএলে) আগের আট আসরের সাতটিতে খেলা সিলেট সর্বশেষ তিনবার খেলে সানরাইজার্স, থান্ডার ও সিক্সারস নামে। মালিকানা বদলেছে, নাম বদলেছে কিন্তু ভাগ্য বদলায়নি। মোট পাঁচ মালিকানায় সাতবার অংশগ্রহণে সর্বোচ্চ সাফল্য দ্বিতীয় আসরের সেরা চারে খেলা। বাকি ছয়বার প্রথম পর্বেই শেষ হয়েছে সিলেটের দৌড়। সিলেট স্ট্রাইকার্স নামে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি এবার প্লেয়ার্স ড্রাফটের আগেই সরাসরি চুক্তিতে বিপিএলের সর্বোচ্চ চারবারের শিরোপাজয়ী অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাকে দলভুক্ত করে।

জিয়ন কাঠির ছোঁয়ায় সবকিছু কেমন ভোজবাজির মতো বদলে গেল! শেষ পর্যন্ত কী হবে। সময়েই মিলবে সেই উত্তর। তবে ম্যাশের নেতৃত্বে দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলেছে স্ট্রাইকার্স। ঢাকায় সর্বশেষ বিগ ম্যাচে সাকিব আল হাসানের ফরচুন বরিশালকে হারানো মাশরাফির দল ৭ ম্যাচে ৬ জয়ে টেবিলের শীর্ষে। বুধবার হোম ভেন্যু সিলেটে পা রাখা দলটিকে ঘিরে তৈরি হয়েছে বাড়তি আগ্রহ। আগামীকাল প্রথম ম্যাচে মাশরাফিদের প্রতিপক্ষ ৩ জয়ে চার নম্বরে থাকা রংপুর রাইডার্স।
মিরপুরে গত মঙ্গলবার বরিশালের বিপক্ষে ২ রানের শ্বাসরুদ্ধকর জয় পাওয়া সিলেট বুধবার দুপুরের বিমানের ফ্লাইটে ঢাকা থেকে সিলেটে পৌঁছায়। মাশরাফি, মোহাম্মদ আমির, মুশফিকুর রহীমদের স্বাগত জানাতে ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে স্ট্রাইকার্সের টিম বাস নিয়ে শোভাযাত্রার আয়োজন করে ভক্ত-সমর্থকরা। এটির আয়োজনের দায়িত্বে ছিল ফ্র্যাঞ্চাইজিটির পার্টনার অর্গানাইজেশন ও সামাজিক প্ল্যাটফর্ম সেভ সিলেট পরিবার।

বিমানবন্দর, আম্বরখানা, কুমারপড়া হয়ে শোভাযাত্রাটি চৌহাট্টি দিয়ে সুবিদ বাজারে গিয়ে পৌঁছায়। সেখান থেকে যায় সিলেট গ্র্যান্ড রিসোর্ট হোটেলে। সিলেট পর্বে ২৭, ২৮ ও ৩০ জানুয়ারি রংপুর, চট্টগ্রাম ও খুলনার সঙ্গে তিনটি ম্যাচ খেলবে মাশরাফির স্ট্রাইকার্স। এর পর লিগ পর্বে তাদের শেষ দুটি ম্যাচ হবে ঢাকায়।  ৭ ম্যাচ  শেষে একটি মাত্র হারের বিপরীতে ৬ জয়ে সিলেটের পয়েন্ট ১২। সবার ওপরেই রয়েছে তারা।

দ্বিতীয় স্থানে থাকা ফরচুন বরিশাল সিলেটের সমানসংখ্যক ম্যাচ  খেলে ৫ জয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। ‘ডিফেন্ডিং’ চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ৪ জয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে তৃতীয়স্থানে। ৬ ম্যাচে ৩ জয় ও ৩ হারে ৬ পয়েন্ট নিয়ে রংপুর রয়েছে চতুর্থ স্থানে। ৪ পয়েন্ট করে নিয়ে পঞ্চম, ষষ্ঠ এবং সপ্তম স্থানে যথাক্রমে খুলনা টাইগার্স, ঢাকা ডমিনেটর্স এবং চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

পেসার তাসকিন আহমেদের  নৈপুণ্যে যদি মঙ্গলবার রাতের ম্যাচে খুলনাকে হারাতে না পারত তাহলে ২ পয়েন্ট নিয়ে সবার তলানিতে থাকতে হতো ঢাকা ডমিনেটর্সকে। কিন্তু ২৩ বলে মাত্র ৯ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়ে তাসকিন ঢাকাকে তুলে দিলেন ৬ নম্বরে। সিলেটে বিপিএলের খেলা হবে  মোট ৮টি। দুদিন, দুদিন করে চারদিনে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচগুলো। মাঝে একদিন থাকবে বিরতি। ২৭ জানুয়ারি থেকে শুরু করে ৩১ জানুয়ারি- মোট ৫দিনে সিলেট পর্ব  শেষ করে বিপিএল আবার ফিরে আসবে ঢাকায়।

উড়তে থাকা সিলেটের হয়ে ব্যাট হাতে দারুণ ছন্দে আছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। ২ হাফ সেঞ্চুরিতে আসরের তৃতীয় সর্বোচ্চ ২৮১ রান বাঁহাতি এ ওপেনারের। হাতে চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়ার আগে ৫ ম্যাচেই ৩ হাফ সেঞ্চুরিতে ১৯৯ রান করেছিলেন তৌহিদ হৃদয়। টেল-এন্ডে শ্রীলঙ্কান রিক্রুটার থিসারা পেরেরাও তার কাজটা করে যাচ্ছেন সময়মতো। বোলিংয়ে ৭ ম্যাচে ৯ উইকেট নিয়েছেন বাঁহাতি পাকিস্তানি তারকা পেসার মোহাম্মদ আমির। ব্যক্তিত্বে সাফল্যে বাংলাদেশের ক্রিকেটের চলমান কিংবদন্তি মাশরাফি।

দীর্ঘদিন খেলার বাইরে থাকা পার্লামেন্ট সদস্য (এমপি) মাঠের ক্রিকেটে কেমন করেন, সেই প্রশ্ন ছিল। কিন্তু প্রায় ৪০ বছর বয়সেও বল হাতে আলো ছাড়াচ্ছেন ম্যাশ। লিডিং ফ্রম দ্যা ফ্রন্টÑ ১৯.৬৬ গড়ে ৯ উইকেট নিয়ে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সামনে থেকে। বছরের পর বছর ব্যর্থতায় নিমজ্জিত একটা দলকে এক সুতোয় গেঁথে সেরাটা বের করে আনছেন দলটির বড় তারকা ও অভিভাবক মাশরাফি।  বিগত আসরগুলোতে দল হিসেবে সিলেট যতটা ব্যর্থ, অধিনায়ক মাশরাফি ততটাই সফল।

প্রথম দুই আসরে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে ট্রফিতে চুমু আঁকেন মাশরাফি। ২০১৫ সালে তুলনামূলক দুর্বল দল নিয়ে অধিনায়কত্বের  নৈপুণ্যে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে চ্যাম্পিয়ন করেন তিনি। সর্বশেষ ২০১৭ সালের আসরে রংপুর রাইডার্সের জার্সিতে আরও একবার সর্বোচ্চ সাফল্য পান তিনি। এবার কী হবে বলা কঠিন। তবে সিলেটকে খুব  গোছালো মনে হচ্ছে। যারা  কোচিং স্টাফে আছেন, ক্রিকেটার সবার  ভেতরে  মেলবন্ধনও ভালো। তবে দিনশেষে মাঠে ভালো  খেলতে হবে। আমরা আশা করছি এই বছর ভালো কিছু করতে। সব দলই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য  খেলে। আমরাও এর ব্যতিক্রম কিছু নই। এটা  তো আর বলে-কয়ে হবে না। মাঠে ভালো  খেলতে হবে। 
একটি করে ম্যাচ ধরে এগোতে চাই। প্রথম ম্যাচে যদি ভালো করতে পারি... এটা  তো  মোমেন্টামের  খেলা।  শেষের দিকে না তাকিয়ে আমরা শুরু  থেকে ভালো করার  চেষ্টা করবÑ আসর শুরুর আগেই বলেছিলেন মাশরাফি। 

monarchmart
monarchmart