ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

নিজ দেশে নেইমারকে উপহাস করায় ক্ষোভ সতীর্থ রাফিনহার

সুইসদের মোকাবিলার আগে চাপে ব্রাজিল

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:১৯, ২৭ নভেম্বর ২০২২

সুইসদের মোকাবিলার আগে চাপে ব্রাজিল

অনুশীলনে প্রাণবন্ত ব্রাজিলের ফুটবলাররা

সার্বিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করলেও এই মুহূর্তে বেশ চাপে আছে ব্রাজিল। রেকর্ড সর্বোচ্চ পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের তাঁবুতে ভর করে ঘাতক ইনজুরি। সার্বদের বিরুদ্ধে নয়বার ফাউলের শিকার হওয়া নেইমার ছিটকে গেছেন গ্রুপ পর্বের বাকি দুই ম্যাচ থেকে। এরপর ডিফেন্ডার ডানিলোকেও হারিয়েছে সেলেসাওরা। যে কারণে সুইজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচের আগে বেশ চাপে আছে পেলের দেশ। দোহার স্টেডিয়াম ৯৭৪ এ সোমবার রাতে সুইসদের বিরুদ্ধে খেলবে ব্রাজিল।
সুইজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে মুখোমুখি লড়াইয়ের পরিসংখ্যানও সুখকর নয় সাম্বা ছন্দের দেশের। বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সুইসদের বিরুদ্ধে দুইবারের দেখায় একবারও তাদের হারাতে পারেনি ব্রাজিল। ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে দুদলের লড়াই ড্র হয়েছিল ১-১ গোলে। এবার সেই একই প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে দলের সেরা তারকা নেইমারকে ছাড়াই খেলতে হচ্ছে কোচ তিতের দলকে। দুদলের সামনেই শেষ ষোলোর হাতছানি।

আফ্রিকার অদম্য সিংহ ক্যামেরুনকে ১-০ গোলে হারিয়ে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জিতেছে সুইজারল্যান্ডও। যে কারণে ব্রাজিলকে হারাতে পারলে তারাও পৌঁছে যাবে নকআউট রাউন্ডে। সুইসদের লক্ষ্য এমনই বলে জানিয়েছেন দলটির কোচ মুরাট ইয়াকিন। অধিনায়ক গ্রানিট জাকাও অভিন্ন লক্ষ্যের কথা জানিয়েছেন।
নেইমারের ইনজুরি নিয়ে এই মুহূর্তে ব্রাজিল দল মাঠ ও মাঠের বাইরে আছে নিদারুণ চাপে। সার্বিয়ার বিরুদ্ধে মারাত্মক চোট পাওয়ার পরও নেইমারকে নিয়ে বিশ্বজুড়ে ট্রল বা ব্যঙ্গ করা হচ্ছে। অনেকেই বলছেন, তিনি অল্প ছোঁয়াতেই পড়ে যান। এমনকি নেইমারের ইনজুরি নিয়ে ব্যঙ্গ করা হচ্ছে তার দেশ ব্রাজিলে! অনেকে এভাবে সমালোচনা করছেন, নেইমারকে বিশ্বকাপের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে পাওয়া যায় না। অনেকেই এটা নিয়ে ব্যঙ্গ করছেন।

নেইমারের ভাঙা পা নিয়ে করছেন উপহাস। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্রাজিলিয়ান সমর্থকদের অনেকেই লিখেছেন, নেইমারের খেলার যা ধরণ, তার পা ভাঙাই উচিত। এ বিষয়টি কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না নেইমারের সতীর্থ রাফিনহা। সমালোচকদের উদ্দেশ্যে রীতিমতো ক্ষোভ ঝেড়েছেন ২৫ বছর বয়সী এই বার্সিলোনা উইঙ্গার। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রাফিনহা লিখেছেন, আর্জেন্টিনা সমর্থকরা মেসিকে ইশ্বর মনে করে।

পর্তুগালের সমর্থকরা রোনাল্ডোকে রাজা হিসেবে মান্য করে। আর ব্রাজিলিয়ান সমর্থকরা চায় নেইমারের পা ভাঙুক। এটা দুঃখজনক। নেইমারের ক্যারিয়ারে সবচেয়ে বড় ভুল ব্রাজিলে জন্মগ্রহণ করা। এই দেশ তার মতো প্রতিভাকে পাওয়ার যোগ্য না।
এদিকে বেশ বেকায়দায় পড়া নেইমার স্বীকার করেছেন, ক্যারিয়ারের সবচেয়ে কঠিন সময় অতিবাহিত করছেন তিনি। গোঁড়ালির ইনজুরির কারণে তার বিশ^কাপে খেলাই এখন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। সার্বিয়ান ডিফেন্ডার নিকোলা মিলেনকোভিচের বাজে ট্যাকেলে নেইমার ডান গোঁড়ালির ইনজুরিতে পড়ে ৮০ মিনিটে মাঠ ছাড়েন। মাঠ থেকে বেরিয়ে ডাগআউটে নেইমারকে বেশ আবেগী দেখা যায়।

এরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আবেগী পোস্টে নেইমার লিখেছেন, এই জার্সিটি (ব্রাজিলের জার্সি) পড়ে আমি যে গর্ব ও ভালবাসা অনুভব করি তা বর্ণনাতীত। যদি সৃষ্টিকর্তা আমাকে কোন একটি নির্দিষ্ট দেশ বেছে নিতে বলেন যেখানে আমি জন্মাতে চাই। তবে আমি আবারো ব্রাজিলকেই বেছে নেব। তিনি আরও বলে, আমার জীবনে কোনো কিছু সহজে আসেনি। আমাকে সব সময় নিজের স্বপ্ন ও লক্ষ্যের পথে ছুটতে হয়েছে। এখনকার সময়টা আমার জীবনের সবচেয়ে কঠিন মুহূর্তগুলোর একটি। তবে আমি ফিরে আসার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি।

সম্পর্কিত বিষয়:

monarchmart
monarchmart