ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১

কর্মক্ষেত্রের সর্বস্তরে বাড়াতে হবে প্রযুক্তির ব্যবহার : নসরুল হামিদ

প্রকাশিত: ১৯:২৩, ১৩ মে ২০২৪

কর্মক্ষেত্রের সর্বস্তরে বাড়াতে হবে প্রযুক্তির ব্যবহার : নসরুল হামিদ

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, আধুনিক প্রযুক্তির সঙ্গে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার প্রযোগ বাড়ানোর রোডম্যাপ করা হচ্ছে। এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা আমাদের দৈনন্দিন কাজ সহজ করে দিবে। জ্ঞানভিত্তিক সমাজ গঠনের নেপথ্যে কাজ করবে প্রযুক্তি। কর্মক্ষত্রের সর্বস্তরে প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে ইঞ্জিনিয়ারদের দায়িত্বশীল অবদান রাখা বাঞ্ছনীয়।

সোমবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ-এ ‘দ্য ইঞ্জিনিয়ার্স ফর ট্রান্সফরমিং টেকনোলজি ড্রাইভেন স্মার্ট বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনারের সমাপণী অনুষ্ঠানে বক্তব্যকালে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশে কাক্টেটিভিটি তৈরি হয়েছে যা ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ বিনির্মাণের ভিত্তি। সময়োচিত সিদ্ধান্ত দ্রুত গ্রহণ করে দেশকে দ্রুততার সঙ্গে স্মার্ট দেশে পরিণিত করতে হবে। যে সব দেশ এক্ষেত্রে এগিয়ে আছে তাদের কাছ থেকে শিক্ষা নেয়া যেতে পারে। পড়াশুনা ও শিক্ষার মধ্যে থেকে উদ্ভাবন বাড়াতে হবে। উদ্ভাবন শক্তিকে কাজে লাগিয়ে অবকাঠামোগত, স্বাস্থ্যগত, শিক্ষাসহ অন্যান্য বিদ্যমান চ্যালেঞ্জ সমন্বিত  বুদ্ধিমত্তার মাধ্যমে মোকাবেলা কৌশলই বাংলাদেশকে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’-এ পরিণত করবে। বাংলাদেশের ইঞ্জিনিয়াররা যত দ্রুত প্রযুক্তিকে মানুষের কল্যাণের একটি শক্তি হিসেবে করাতে পারবে দেশ যত দ্রুত উন্নত দেশে পরিণত হবে।

প্রতিমন্ত্রী এসময় বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতির মূল চালিকা শক্তি বিদ্যুৎ ও জ্বালানি। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে প্রযুক্তির ব্যবহার ক্রমাগত বাড়ছে। আরও বাড়ানো হচ্ছে। স্মার্ট মিটারের সাহায্যে গ্রাহকের চাহিদা অনুসারে সংশ্লিষ্ট এলাকার লোড বিতরণ ও নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও স্ক্যাডা (সুপারভাইজরি কন্ট্রোল এ্যান্ড ডাটা একুইজিশন) এর মাধ্যমে কোথায়, কেন বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে জানা যাবে। আমাদের ইঞ্জিনিয়াররা আন্তরিকতার সাথে কাজ করলেও ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ নির্মাণে দৃঢ় সংকল্পে জনগণের প্রতি আনুগত্য রেখে কাজ করা আবশ্যক।

কনভেনশনে মোট ১০টি প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হয়। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বুয়েটের অধ্যাপক ড. ইঞ্জিনিয়ার মুনাজ আহমেদ নুর। ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট ও সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মো: আব্দুস সবুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন আইইবি’র  সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার এস এম মঞ্জুরুল হক মঞ্জু।  
 

 

স্বপ্না

×