ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনের সার্ভারে ত্রুটি, জানেনা রেজিস্ট্রার জেনারেল কার্যালয়

মেহেদী হাসান

প্রকাশিত: ১৬:৩৮, ২৩ জানুয়ারি ২০২৩

জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনের সার্ভারে ত্রুটি, জানেনা রেজিস্ট্রার জেনারেল কার্যালয়

জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন

জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনের সার্ভারে এক সপ্তাহ ধরে ত্রুটি। ফলে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে জনসাধরণকে। নিবন্ধনের কার্যালয়ে এসে প্রতিদিন নিরাশ হয়েই ফিরে যেতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। তবে সার্ভারে ত্রুটির এই বিষয়টি জানেনা রেজিস্ট্রার জেনারেল কার্যালয়।

মিরপুর ১০ নম্বরে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনের অফিসে সেবা নিতে আসা রাকিব হোসেন জনকণ্ঠকে বলেন, জরুরিভাবে দুটি জন্ম নিবন্ধন করানোর দরকার ছিল। অফিস ফর্ম জমা নিয়ে জানিয়েছে সার্ভারে সমস্যা, তাই তারা করে দিতে পারছে না। সার্ভার ঠিক হলে করে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন। 

নিবন্ধন করতে আসা মেহজাবিন জাইসা জনকণ্ঠকে বলেন, জন্ম নিবন্ধন করতে এসেছিলাম। তারা জানানো সার্ভারে ত্রুটি আছে, তাই এটি করতে সময় লাগবে। আমাকে একটি সম্ভাব্য তারিখ বলে দিয়েছে। 

এদিকে, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) নিবন্ধন অফিসগুলোতে খোঁজ নিলে তারা জনকণ্ঠকে জানান, অনেক দিন ধরেই সার্ভারে কাজ করা যাচ্ছে না। তারা বসে আছেন মানুষকে সেবা দেওয়ার জন্য। কিন্তু সার্ভার কাজ না করায় প্রতিদিন অনেক মানুষ এসে ফিরে যাচ্ছেন। সামনের সপ্তাহে ঠিক হবে বলে তাদের জানানো হয়েছে।

ডিএনসিসি’র জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনের সার্ভারে ত্রুটির বিষয়ে জানতে চাইলে রেজিস্ট্রার জেনারেল (অতিরিক্ত সচিব) মো. রাশেদুল ইসলাম জনকণ্ঠকে বলেন, ‘ইনফরমেশন সঠিক নয়। এটা তারা আমাকে বলেনি, আপনি আমাকে বললেন। সার্ভার নাই এ বিষয়টি আমাদের জানানো হয়নি। ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তাও বিষয়টি জানাননি। তিনি না বললে তো আমি আমলে নিতে পারবো না।’

রেজিস্ট্রার জেনারেল বলেন, ‘যেহেতু এটি দেশের অন্যতম বড় সার্ভার, মাঝে মধ্যে ট্রাবেল হতে পারে। সার্ভার নাই তা নয়।’ 

এ বিষয়ে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য অফিসার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জোবাইদুর রাহমান জনকণ্ঠকে বলেন, ‘সার্ভার না থাকার বিষয়টি সঠিক। সার্ভার এখন কাজ করছে না। আমাদের বলা হয়েছে এটি ঠিক হতে দুই সপ্তাহর মতো সময় লাগবে। এক সপ্তাহ ইতোমধ্যে চলে গেছে।’ 

তিনি বলেন, ‘এখানে আমাদের হাতে করণীয় কিছু নাই, এটি পুরোপুরি রেজিস্ট্রার জেনারেলের অফিসের হাতে। সার্ভারটি পুরোপুরি তাদেরই হাতে। আমরা শুধু মাত্র ডাউনলোড করে সাইন দিয়ে থাকি। সারা বাংলাদেশে ওই একই সার্ভার দিয়ে কাজ করা হচ্ছে। আমরা অপেক্ষা করছি, কখন সার্ভার ঠিক হবে এবং মানুষকে সেবা দিতে পারবো।’ 

রেজিস্ট্রার জেনারেল কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে বিষয়টি তাদের জানানো হয়নি- এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডিএনসিসি’র প্রধান স্বাস্থ্য অফিসার বলেন, ‘ফালতু কথা বলে কেউ তো দায়িত্ব এড়াতে পারবেনা। বেশ কয়েক দফায় তাদের সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা বিষয়টি দেখছে তাও জানানো হয়েছে।’ 
 

 
monarchmart
monarchmart