ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯

জন্মনিবন্ধন করতে বাবা-মায়ের এনআইডির বাধ্যবাধকতা ছিল

জন্মনিবন্ধনে স্বস্তি, লাগছে না বাবা-মার জন্মসনদ ও এনআইডি 

প্রকাশিত: ১৮:৩৫, ১৫ আগস্ট ২০২২; আপডেট: ২০:২৮, ১৫ আগস্ট ২০২২

জন্মনিবন্ধনে স্বস্তি, লাগছে না বাবা-মার জন্মসনদ ও এনআইডি 

জন্মনিবন্ধন

নতুন জন্মনিবন্ধন করতে এখন আর বাবা ও মায়ের কোনো ধরণের সনদ লাগছে না। জন্মনিবন্ধন করতে সাধারণ মানুষের ভোগান্তি এড়াতে বাবা-মায়ের এনআইডি ও জন্মসনদের বাধ্যবাধকতা তুলে দিয়েছে রেজিস্ট্রার জেনারেলের কার্যালয়।

সোমবার (১৫ আগস্ট) জন্মনিবন্ধনের ওয়েব সাইটে গেলে সেখানে বাবা-মায়ের কোনো ধরনের জন্মসনদ ও এনআইডির বাধ্যবাধকতা ছাড়াই আবেদন করতে দেখা গেছে সাধারণদের।
 
জন্মনিবন্ধনের ওয়েব সাইটে দেখা যায়, আগে ১৮ বছরের উর্ধ্বে যাদের বয়স রয়েছে তাদের জন্মনিবন্ধন করতে বাবা-মায়ের এনআইডির বাধ্যবাধকতা ছিল। ফলে বিপাকে পড়তে হয়েছে যাদের বাবা-মা অনেক আগেই মারা গেছে বা বয়োবৃদ্ধ অথবা বিদেশে থাকার কারণে এনআইডি করা হয়নি তাদের। এছাড়া ১৮ বছরের নিচে যাদের বয়স রয়েছে তারা নিবন্ধন করতে গেলে বাবা-মার এনআইডি ও জন্মসনদ বাধ্যতামূলক ছিল। গত ২৭ জুলাই থেকে নতুন নিয়ম কার্যকর করায় এখন আর কোনো জটিলতায় পড়তে হচ্ছে না সাধারণ মানুকে। 

এ বিষয়ে রেজিস্ট্রার জেনারেল (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মির্জা তারিক হিকমত গণমাধ্যমকে বলেন, ১৮ বছরের নিচে যাদের বয়স তাদের জন্য বাবা-মায়ের জন্মনিবন্ধন দেওয়ার বিষয়টি আবেদনে বাধ্যতামূলক থাকলেও সেটি আমরা তুলে দিয়েছি। ১৮ বছরের নিচে যারা তাদের টিকা নিতে হলে হয়তো বাবা-মাসহ তিনটি জন্মনিবন্ধন করা লাগতো। সেজন্য এটি তুলে দিয়েছি। 

এদিকে, এখন থেকে হাসপাতালে জন্ম নেওয়ার পর দেওয়া ছাড়পত্র বা টিকার কাগজ যেকোনো একটি প্রমাণ দেখিয়ে শিশুর জন্মনিবন্ধন করা যাবে জানায় রেজিস্ট্রার জেনারেলের কার্যালয়।

জন্মনিবন্ধনের আবেদন করতে গেলে সফটওয়্যারে মা-বাবার সনদ না চাওয়ায় বিয়ে বিচ্ছেদ হওয়া পরিবারের সন্তান, যাদের মা কিংবা বাবা যেকোনো একজনের সঙ্গে যোগাযোগ নেই এবং পথশিশুদের জন্মনিবন্ধন এবং যাদের বাবা-মা মৃত্যুবরণ করেছে তাদের জটিলতা কাটলো।