ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০

বিয়ের আগেই জেনে নিন পরস্পরের ৫ গোপন কথা

প্রকাশিত: ১৬:০০, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩; আপডেট: ১৬:০৪, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩

বিয়ের আগেই জেনে নিন পরস্পরের ৫ গোপন কথা

বিয়ে

বিবাহ জীবনের অন্যতম বড় একটি সিদ্ধান্ত। এই সিদ্ধান্তের পাশাপাশি জড়িয়ে থাকে অন্য একজন মানুষের ভবিষ্যৎও। কাজেই বিবাহের সিদ্ধান্ত যদি নিয়েই ফেলেন তাহলে সম্ভাব্য জীবনসঙ্গীর ভালো-মন্দের সম্পর্কে একটি স্বচ্ছ ধারণা থাকা দরকার। 

পারিবারিকভাবে বিয়ে হলে প্রাক আলাপচারিতার সুযোগ এমনিতেই কম। আর যারা সম্পর্কের মধ্যে দিয়ে বিবাহের দিকে এগোন তাদেরও মাথায় রাখা প্রয়োজন, বিয়ের আগে ও পরের সম্পর্কের ব্যাকরণটা কিন্তু খানিকটা হলেও বদলে যায়। 

রোজ ফোনে কথা বলা আর একই রুমে থাকার মধ্যে অনেক ফারাক। কাজেই বিয়ের আগে একে অপরকে ভাল ভাবে জানতে কিছু কথোপকথন আবশ্যিক। তাই যেসব প্রশ্নগুলি সঙ্গীকে বিয়ের আগে করতে পারেন:

১. বিয়ের সঙ্গে সঙ্গে সন্তান নিতে হবে, এই ধারণা বড্ড সেকেলে। কাজেই সন্তানধারণ নিয়ে ভাবি জীবনসঙ্গীর কী মতামত, তা আগে থেকেই জেনে নিন। শারীরিক সম্পর্কে জড়ানোর আগে সঙ্গী যৌনবাহিত রোগের পরীক্ষা করিয়ে নিতে চান কি না, সেই বিষয়ও খোলাখুলি কথা বলুন।

২. বিয়ের আগে আলোচনা করুন সঙ্গীর অর্থনৈতিক দিক নিয়ে। এখন ছেলে-মেয়ে দু’জনেই সমানভাবে সংসার খরচের দায়িত্বভার বহন করে। দাম্পত্য জীবনে পরস্পরের অর্থনৈতিক অবস্থা সম্পর্কে ওয়াকিবহাল থাকা অত্যন্ত প্রয়োজন।

৩. বিয়ে হওয়া মানেই কিন্তু যৌনতায় সম্মতির চিহ্ন নয়। কাজেই যৌনজীবন নিয়ে আগেভাগেই আলোচনা করা উচিত। যদি বিবাহের আগে শারীরিক অভিজ্ঞতা না থাকে, তাহলে তো এই আলোচনা অবশ্যই প্রয়োজন। সুস্থ যৌনজীবন সুস্থ দাম্পত্যের চাবিকাঠি, কাজেই এ বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে সঙ্কোচবোধ করলে চলবে না।

৪. বিয়েতে দু’জন মানুষ ছাড়াও জড়িয়ে থাকে দু’টি পরিবার। দু’জনের পরিবারের সঙ্গে দু’জনের কেমন রসায়ন তাও আগে থেকে জেনে নেওয়া ভালো। নিজের পাশাপাশি পরিবারের কিছু চাহিদা থাকে সেই সম্পর্কে আগে থেকেই সঙ্গীকে ধারণা দিয়ে রাখুন।

৫. কিভাবে আপনি কর্মজীবন ও ব্যক্তি জীবনের ভারসাম্য বজায় রাখবেন সে বিষয় সঙ্গীর সঙ্গে আগেভাগেই আলোচনা করে নিন। অনেক সময়ে কর্মক্ষেত্রে অনেক বেশি সময় কাটাতে হয়, পারিবারিক জীবনে খুব বেশি সময় দেওয়া সম্ভব হয় না। আপনার ক্ষেত্রে এমনটা হলেও আগে থেকে খোলসা করে নিন। 

এমএইচ

×