ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

হালফিল হাতঘড়ি

প্রকাশিত: ০০:৫৯, ৩ অক্টোবর ২০২২; আপডেট: ১১:২৬, ৩ অক্টোবর ২০২২

হালফিল হাতঘড়ি

.

ঘড়ি এক সময় অত্যন্ত প্রয়োজনীয় হলেও সময়ের আবর্তে তা ফ্যাশনে পরিবর্তিত হয়েছে। কেননা, পকেটের স্মার্ট ফোনই মেটাচ্ছে সেই প্রয়োজনীয়তা। আর ঘড়ি বর্তমানে স্টাইল ও ব্যক্তিত্বের নিদর্শন। আবিষ্কারের পর থেকে বারবার রূপ বদলেছে ঘড়ির। সেই চেনসহ পকেটঘড়ি থেকে হাতঘড়ি, টেবিলঘড়ি, দেয়ালঘড়ি থেকে হালের ফ্যাশন এখন স্মার্টওয়াচ। এক সময় আভিজাত্যের প্রতীক ঘড়ি এখন নিতান্ত অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রী।
মনি আক্তার ব্যাংকে চাকরি করেন। খুব স্মার্ট ও রুচিশীল একজন নারী। তাকে সবসময়ই ড্রেসের সঙ্গে মিল রেখে ঘড়ি পরতে দেখা যায়। এরপরে জানা যায় তিনি যখন ড্রেস ক্রয় করেন, তখন সেই রঙের ঘড়ি সংগ্রহে না থাকলে কিনে নিয়ে আসেন। মনি আক্তারের মতো হাজারো ফ্যাশনাবল নর-নারী বর্তমানে ম্যাচিং করে ঘড়ি পরছে। রুচিশীল ঘড়ির মাধ্যমে যে কোন মানুষের সৌন্দর্য ও ব্যক্তিত্ব বেড়ে যায় বহুগুণ।
সাম্প্রতিক সময়ে হাতঘড়ির বাজারগুলোতে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের প্রায় সব হাতঘড়িই পাওয়া যায়। বাজারে যেসব ব্র্যান্ডের ঘড়ি মেলে তার মধ্যে রয়েছে টাইটান, ফাস্টট্র্যাক, ওমেগা, ওরিয়েন্ট, রোমার, টিসোট, ইয়ার্ডো, প্যারিলাইনার, ট্যাগহয়ার, রোমানসন, ওয়েস্টার, সিটিজেন। ব্র্যান্ডের ঘড়ি ছাড়াও চীন থেকে আমদানি করা নন-ব্র্যান্ড কালারফুল সিলিকন, চেন ও কাপড়ের বেল্টে তৈরি বিভিন্ন ঘড়ি পাওয়া যায়, যার মধ্যে রয়েছে নেভিফোর্স, কুরিন, স্কেমি, ববোবার্ডসসহ অনেক ধরনের ঘড়ি। এছাড়া মিলবে স্যামসাং, হুয়াওয়ে, এ্যাপল, অনার, জিব্যালেজ, এ্যামেজফিটসহ চায়না অনেক ব্র্যান্ডের স্মার্টওয়াচ। এসব ঘড়ি বা স্মার্টওয়াচ মিলবে রাজধানীর নিউমার্কেট, বসুন্ধরা সিটি, যমুনা ফিউচার পার্ক, বায়তুল মোকাররমসহ দেশের বিভিন্ন মার্কেটে। এ ছাড়া পাবেন ইভ্যালি, দারাজ, আজকের ডিল, প্রিয়শপ, বাগডুম, সহজসহ দেশের সেরা ই-কমার্স সাইটগুলোতে।
ঘড়ির দাম নির্ভর করে ব্র্যান্ডের ওপর। এ ক্ষেত্রে টাইটান ব্র্যান্ডের ঘড়ি পাওয়া যাবে ৩ হাজার থেকে ২০ হাজার টাকায়, ফাস্টট্র্যাকের ঘড়ি মিলবে ৪ থেকে ১২ হাজার টাকায়। আর ওমেগা ব্র্যান্ডের ঘড়ির দাম শুরু হয়েছে ১ লাখ টাকা থেকে। এ ছাড়া ওরিয়েন্ট ৫ হাজার থেকে ৫০ হাজার টাকা, রোমার ১২ হাজার থেকে ১ লাখ টাকা এবং টিসোট ঘড়ি মিলবে ২৫ হাজার থেকে লাখ টাকায়। ইয়ার্ডো ৪০ হাজার থেকে ২ লাখ টাকা, প্যারিলাইনার ৫ হাজার থেকে ৩০ হাজার, ট্যাগহয়ার ৫০ হাজার থেকে ৫ লাখ, রোমানসন ৫ হাজার থেকে ৪৫ হাজার, ওয়েস্টার ২ হাজার থেকে ১৫ হাজার, সিটিজেন ২ হাজার থেকে ৩০ হাজার টাকায় পাওয়া যাবে। ব্র্যান্ডের ঘড়ি ছাড়াও চীন থেকে আমদানি করা নন-ব্র্যান্ড কালারফুল সিলিকন, চেন ও কাপড়ের বেল্টে তৈরি বিভিন্ন ঘড়ির দাম পড়বে ২৫০ থেকে ৪৫০ টাকা পর্যন্ত। আর এলইডি যুগে ডিজিটাল ঘড়ির দাম পড়বে ৩৫০ থেকে ৬৫০ টাকার মধ্যে। এ ছাড়া নন-ব্র্যান্ডের হাতঘড়ি ৩০০ থেকে ১ হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে। ব্র্যান্ডের ঘড়িগুলোতে সাধারণত এক থেকে দুই বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা থাকে। কেনার আগে জেনে নিতে হবে ভালভাবে।
ফ্যাশন প্রতিবেদক

 

monarchmart
monarchmart