ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

মেট্রোরেলের দরজায় শাড়ি আটকে নারীর করুণ মৃত্যু

প্রকাশিত: ১২:৩৭, ১৮ ডিসেম্বর ২০২৩

মেট্রোরেলের দরজায় শাড়ি আটকে নারীর করুণ মৃত্যু

মেট্রোরেলের দরজায় শাড়ি আটকে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।

মেট্রোরেলের দরজায় শাড়ি আটকে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। ৩৫ বছর বয়সী ওই নারীকে প্রায় ২৫ মিটার টেনে নিয়ে যায় ট্রেনটি। এ সময় ট্র্যাক অ্যাক্সেস গেটের সঙ্গে তার মাথা সজোরে ধাক্কা লাগে। বৃহস্পতিবার (১৪ ডিসেম্বর) ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে এ ঘটনা ঘটে। দুইদিন পর শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) চিকিৎসাধীন অবস্থায় গুরুত্বর আহত ওই নারীর মৃত্যু হয়। ঘটনার সময় অনেকে ট্রেনটিকে পতাকা দেখিয়ে থামাতে চাইলেও ব্যর্থ হয়। নারীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে দ্য হিন্দুস্তান টাইমস। 

আরও পড়ুন : দুই গাড়ির রেষারেষিতে প্রাণ গেল ৪ বছরের শিশুর

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) রাতে মৃত্যু হয় ৩৫ বছর বয়সী রীনার। মেট্রোর ধাক্কায় গুরুতর আহত রীনাকে সফদরজং হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানে ক্রমশ শারীরিক অবস্থার অবনতি হয় তার।

দিল্লি মেট্রোর প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা অনুজ দয়াল বলেন, বৃহস্পতিবার ইন্দ্রলোক মেট্রো স্টেশনে একটি দুর্ঘটনা ঘটেছে। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, এক নারীর কাপড় ট্রেনের দরজায় আটকে যাওয়ায় তিনি পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হন। শনিবার রাতে হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হবে।

এদিকে মৃতার আত্মীয় ভিকি জানিয়েছেন, রীনা মোহননগর স্টেশন থেকে মেট্রোয় উঠেছিলেন। দক্ষিণ দিল্লির নঙ্গোলোই স্টেশনে যাচ্ছিলেন তিনি। সে সময়ই এই দুর্ঘটনা ঘটে। ভিকির মতে, ইন্দ্রলোক মেট্রো স্টেশনে ট্রেন পরিবর্তন করার কথা ছিল। সে সময়ই রীনার শাড়ি মেট্রোর দরজায় আটকে যায়।

প্রায় সাত বছর আগে মারা যান রীনার স্বামী। তাদের সংসারে এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। মাকে হারিয়ে শোকস্তব্ধ দুই সন্তান। এ ঘটনায় দিল্লি পুলিশের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

এবি 

×