ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১

পারমাণবিক অস্ত্রচুক্তি স্থগিত করলেন পুতিন

প্রকাশিত: ২০:৫৯, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩; আপডেট: ২১:০১, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

পারমাণবিক অস্ত্রচুক্তি স্থগিত করলেন পুতিন

রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে পারমাণবিক অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তি স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ইউক্রেন যুদ্ধের এক বছরপূর্তি উপলক্ষ্যে মঙ্গলবার (২১ ফেব্রুয়ারি) দেওয়া এক ভাষণে তিনি এ ঘোষণা দেন।

জাতির উদ্দেশে দেওয়া এক ভাষণে পুতিন বলেন, ‘পারমাণবিক অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তি  ‘নিউ স্টার্ট’ চুক্তি স্থগিত ঘোষণা করতে বাধ্য হচ্ছি। আমরা জানতে পেরেছি, ওয়াশিংটন পুনরায় পারমাণবিক অস্ত্রের পরীক্ষা চালানোর বিষয়ে চিন্তা করছে। এ জন্য রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ও পারমাণবিক কর্পোরেশনের উচিত নিজেদের পারমাণবিক অস্ত্রের পরীক্ষা চালানোর প্রস্তুতি নেওয়া। তবে আমরা কখনওই প্রথমে এ পরীক্ষা চালাবো না। তবে যুক্তরাষ্ট্র যদি পরীক্ষা চালায়, তবে রাশিয়া বসে থাকবে না।’ 

পুতিন বলেন, ‘রাশিয়াকে ধ্বংসে পশ্চিমারা বিশ্বযুদ্ধে উসকানি দিচ্ছে। বৈশ্বিক যুদ্ধে মস্কোকে পরাজিত করা যাবে- এমন ভুল বিশ্বাসে মার্কিন নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটো সংঘাতের আগুন জ্বালিয়ে দিয়েছে। কিন্তু রাশিয়াকে পরাজিত করা অসম্ভব।’

তিনি বলেন, ‘ইউক্রেনের জনগণ কিয়েভ সরকার ও তার পশ্চিমা শাসকদের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে, যারা রাজনৈতিক, সামরিক ও অর্থনৈতিক দিক থেকে এই দেশটিকে কার্যকরভাবে দখল করেছে। তারা স্থানীয় সংঘাতকে বৈশ্বিক সংঘর্ষে রূপান্তর করতে চায়, আমরা এটা বুঝতে পারি ও সেই অনুযায়ী প্রতিক্রিয়া জানাব।’

রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘রাশিয়াকে পরাজিত করা অসম্ভব। তাছাড়া অধিকাংশ রুশ নাগরিক এ যুদ্ধকে সমর্থন করেছেন। তাই আমরা কোনোভাবেই পশ্চিমা ষড়যন্ত্রের সামনে মাথা নত করবো না। রাশিয়া ইউক্রেনে যুদ্ধ চালিয়ে যাবে।’

রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের কাছে এখনো স্নায়ুযুদ্ধের পর অবশিষ্ট পারমাণবিক অস্ত্রের বিশাল অস্ত্রাগার রয়েছে। ২০১০ সালে ‘দ্য নিউ স্টার্ট’ চুক্তির মাধ্যমে এসব অস্ত্রের সংখ্যা ও ব্যবহার সীমিত করা হয়। চুক্তিটির মেয়াদ ২০২৬ সালে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও এখনই তা স্থগিত করল রাশিয়া।

এমএইচ

সম্পর্কিত বিষয়:

×