ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

ভারতের অবিবাহিত নারীরা পেলেন গর্ভপাতের অধিকার

প্রকাশিত: ১৬:৫৮, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

ভারতের অবিবাহিত নারীরা পেলেন গর্ভপাতের অধিকার

ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

গর্ভপাতের অধিকার পেলেন ভারতের সব নারীরা। বৃহস্পতিবার ভারতের সুপ্রিম কোর্টের এক ঐতিহাসিক রায় অনুসারে, এখন থেকে অবিবাহিত নারীরাও গর্ভপাত করতে পারবেন। ২৪ সপ্তাহ পর্যন্ত  বিবাহিত ও অবিবাহিত নারীদের গর্ভপাতে কোনও বাধা থাকবে না। আদালতের এই রায়ের প্রশংসা করছেন দেশটির নারী অধিকারকর্মীরা। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এখবর জানিয়েছে।

জুন মাসে যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট দেশটিতে গর্ভপাতের বৈধতা বাতিলের রায় ঘোষণা করে। ওই রায়ের পর থেকেই বিশ্বজুড়ে গর্ভপাতের অধিকারের বিষয়টি আলোচনায় রয়েছে।

বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় বলেন, বিবাহিত নারীদের মতো অবিবাহিতরাও ২৪ সপ্তাহ পর্যন্ত গর্ভপাত করতে পারবেন। বিচারপতি বলেছেন, বিয়ে না করার কারণে কোনও নারীকে এই অধিকার থেকে বঞ্চিত রাখা যায় না।

ভারতের ১৯৭১ সালের মেডিক্যাল টার্মিনেশন অব প্রেগনেন্সি (এমটিপি) আইন অনুসারে, বিবাহিত, তালাকপ্রাপ্ত, বিধবা, অপ্রাপ্ত বয়স্ক, প্রতিবন্ধী ও মানসিকভাবে অসুস্থ নারী এবং যৌন হামলা বা ধর্ষণের শিকার নারীদের গর্ভপাতের অধিকার রয়েছে।

এক নারীর আবেদনের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার ভারতের সর্বোচ্চ আদালত এই রায় দিয়েছে। ওই নারী আবেদনে বলেছেন, সম্মতির ভিত্তিতে জড়িয়ে পড়া একটি সম্পর্কের পর তিনি অন্তঃসত্ত্বা হন। কিন্তু সম্পর্কটি ভেঙে যাওয়ার পর তিনি গর্ভপাত করতে চান।

অ্যাক্টিভিস্টরা বলছেন, ভারতীয় নারীদের অধিকারের ক্ষেত্রে এই রায় যুগান্তকারী পদক্ষেপ। সংসদ সদস্য মহুয়া মৈত্র টুইটারে লিখেছেন, সামনের দিকে একটি বড় অগ্রগতি।

গর্ভপাতের ক্ষেত্রে ‘দাম্পত্য ধর্ষণ’ও ‘ধর্ষণ’ বলে মন্তব্য করেছে আদালত। এই প্রসঙ্গে বিচারপতি চন্দ্রচূড় বলেন, বিবাহিত নারীরাও যৌন হামলা বা ধর্ষণের শিকার হতে পারেন। বিনা সম্মতিতে স্বামীর আচরণে এক জন নারী অন্তঃসত্ত্বা হতে পারেন।

উল্লেখ্য, ভারতীয় আইনে দাম্পত্য ধর্ষণকে অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করা হয় না। এটি পরিবর্তনের চেষ্টা করা হচ্ছে। ফলে সুপ্রিম কোর্টের এমন পর্যবেক্ষণ গুরুত্বপূর্ণ।

এমএস

সম্পর্কিত বিষয়:

monarchmart
monarchmart