ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১

ল্যাব-ব্লাড ব্যাংক বন্ধ, জরিমানা

সারাদেশে অবৈধ হাসপাতাল ক্লিনিকে অভিযান

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ২৩:৫১, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

সারাদেশে অবৈধ হাসপাতাল ক্লিনিকে অভিযান

অবৈধ হাসপাতাল-ক্লিনিকের বিরুদ্ধে অভিযান

সারাদেশে দ্বিতীয় দিনের মতো অবৈধ হাসপাতাল-ক্লিনিকের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। বুধবার সারাদেশে প্রায় অর্ধশত হাসপাতাল-ক্লিনিকের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এর মধ্যে সকালে রাজধানীর উত্তরা ও মোহাম্মদপুর এলাকায় বিভিন্ন হাসপাতাল-ক্লিনিকে অভিযান চালায় স্বাস্থ্য বিভাগ। এ সময় হাসপাতাল ও ক্লিনিকের নিবন্ধনসহ অন্যান্য আনুষঙ্গিক কাগজপত্র খতিয়ে দেখেন কর্মকর্তারা।

এ ছাড়া চট্টগ্রামেও দ্বিতীয় দিনের মতো অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযান চলাকালে প্রয়োজনীয় কাগজ না পেলে হাসপাতাল ও ক্লিনিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া এবং নিবন্ধনহীন ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ করে দেওয়া হয়। গত মঙ্গলবার সারাদেশের নিবন্ধনহীন হাসপাতাল ও ক্লিনিকের বিরুদ্ধে এই অভিযান শুরু করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। প্রথমদিন বৈধ কাগজপত্র না থাকায় রাজধানীতে ছয়টি, পাবনায় তিনটি, ঢাকার সাভারে দুটি, ফেনীতে একটি হাসপাতাল ও রংপুরে একটি ব্লাড ব্যাংক বন্ধ করে দেয় ভ্রম্যমাণ আদালত। এ ছাড়া জরিমানা করা হয় কয়েকটি হাসপাতাল ও ক্লিনিককে।

বরিশাল ॥ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ঘোষিত ১০ দফা নির্দেশনা মানতে বুধবার বেসরকারি হাসপাতাল-ক্লিনিকে অভিযান পরিচালনা করে বরিশালের স্বাস্থ্য বিভাগ। বরিশালের স্বাস্থ্য বিভাগের পরিচালক ডা. শ্যামল কৃষ্ণ ম-লের নেতৃত্বে নগরীর আমানতগঞ্জে অবস্থিত সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন রেডক্রিসেন্ট হাসপাতালে অভিযান চালানো হয়। এ সময় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. শ্যামল কৃষ্ণ ম-ল বলেন, ‘স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মেনে চিকিৎসা ব্যবস্থা কার্যকর করা গেলে রোগীদের উপকার হবে।

এজন্য এই অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। এখানে মা ও শিশুদের সেবা দেওয়ার জন্য ৫০ শয্যার এই হাসপাতালে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র থাকলেও চিকিৎসক ও সেবার মান ঠিক রয়েছে কিনা এসব বিষয়ে দেখে হয়েছে। এ সময় প্যাথলজি বিভাগের ফ্রিজের মান সঠিক না থাকাতে দ্রুতই তা কেনার জন্য নির্দেশনা দেন তিনি। নির্দেশনা বাস্তবায়ন হয়েছে কিনা তা যাচাই করার জন্য আবার আসবেন বলেও সতর্ক করেন স্বাস্থ্য পরিচালক।  
নীলফামারী ॥ বুধবার নীলফামারীর সৈয়দপুরে অনুমোদনহীন টেকনিশিয়ান দ্বারা পরীক্ষা-নিরীক্ষা, জনসাধারণকে প্রতিশ্রুতি সেবা না দেওয়া, ভিত্তিহীন রিপোর্টসহ অন্যান্য অনিয়মের অভিযোগে শহরের শেরে বাংলা রোডে অবস্থিত ল্যাব এইড ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও ৩০ দিনের জন্য ওই ল্যাবকে সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করেছে জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের নীলফামারী কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. শামসুল আলমে নেতৃত্বে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় জরিমানা ও ল্যাব সাময়িক বন্ধ রাখার নোটিস দেন। এ বিষয়ে জেলা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. শামসুল আলম জানান, মানুষের স্বাস্থ্য নিয়ে কোনো অনিয়ম সহ্য করা হবে না। তাই এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে। এ ছাড়া লাইসেন্স ও নিবন্ধন না থাকায় নীলফামারীর ডোমারে ৪টি ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ ঘোষণা করে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

বুধবার সকাল থেকে বেসরকারি বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ক্লিনিকে অভিযান চালানো হয়। এই অভিযানে নেতৃত্ব দেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রায়হান বারী। এ সময় সরকারি নিয়ম না মানা এবং লাইসেন্স ও নিবন্ধন না থাকায় শহরে আনছার আলী ডায়াগনস্টিক সেন্টার, স্কয়ার ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ট্রাস্ট ডায়াগনস্টিক সেন্টার এবং বোড়াগাড়ী নিউ লাইফ ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সকল কার্যক্রম সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করা হয়।
এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রায়হান বারী বলেন, মন্ত্রণালয় কর্তৃক শর্ত পূরণে উপজেলার সকল ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ক্লিনিককে লিখিত চিঠি দিয়ে আগামী ৭ দিনের মধ্যে তা পূরণ করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
কিশোরগঞ্জ ॥ কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের স্টেশন রোড এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। গত মঙ্গলবার দুপুরে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এই অভিযানে নেতৃত্ব দিয়েছেন অধিদপ্তর কিশোরগঞ্জ জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক হৃদয় রঞ্জন বণিক। এ সময় তিনি জানান, মঙ্গলবার দুপুরে কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের স্টেশন রোড এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানকালে মেঘনা ডায়াগনস্টিক সেন্টার এবং যমুনা ডায়াগনস্টিক ও কনসালটেশন সেন্টারে বিভিন্ন মেডিক্যাল পরীক্ষার জন্য ব্যবহৃত মেয়াদোত্তীর্ণ রি-এজেন্ট পাওয়া যায়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ অনুযায়ী মেঘনা ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৫০ হাজার টাকা এবং যমুনা ডায়াগনস্টিক ও কনসালটেশন সেন্টারকে ৫০ হাজার টাকা করে মোট ১ লাখ টাকা জরিমানা আরোপ করে আদায় করা হয়।

এ ছাড়া পার্শ্ববর্তী এলাকায় মেয়াদোত্তীর্ণ নবরত্ন আয়ুর্বেদিক তেল ও মুখের প্রসাধনী ব্যবহারের জন্য আইন অনুযায়ী মেনস স্টাইল জেন্টস পার্লারকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ করে আদায় করা হয়। জনস্বার্থে এ ধরনের অভিযান চলমান থাকবে।
দিনাজপুর ॥ স্বাস্থ্য বিভাগ ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের যৌথ অভিযানে দিনাজপুর শহরের চারটি ক্লিনিক এবং ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শহরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ সময় শহরের বালুবাড়ীস্থ মেঘনা ক্লিনিক অ্যান্ড নার্সিং হোম, স্বদেশ ডায়াগনস্টিক সেন্টার, নিউ পেশেন্ট কেয়ার ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড ক্লিনিক ও মাতৃসেবা হসপিটাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার নামের মোট চারটি প্রতিষ্ঠানকে ৫০ হাজার করে ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।   অভিযানে উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর সিভিল সার্জন অফিসের মেডিক্যাল অফিসার ডা. মুহতাত আবিদ।

×