ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১

৮ কোটি ধনী মানুষের কার্বন নিঃসরণ ৫০০ কোটি গরীবের চেয়ে বেশি

বিশেষ প্রতিনিধি 

প্রকাশিত: ২২:৩৩, ২০ নভেম্বর ২০২৩

৮ কোটি ধনী মানুষের কার্বন নিঃসরণ ৫০০ কোটি গরীবের চেয়ে বেশি

কার্বন নিঃসরণ।

বিশ্বের মাত্র ৮ কোটি ধনী মানুষ প্রায় ৫০০ কোটি গরীব মানুষের চেয়েও বেশি কার্বন নিঃসরণ করছে। অলাভজনক আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান অক্সফাম ও স্টকহোম এনভায়রনমেন্ট ইনস্টিটিউটের যৌথ এক গবেষণায় এমন তথ্য উঠে এসেছে।

এই গবেষণায় বলা হয়েছে, বিশ্বজুড়ে কার্বন নিঃসরণের সবচেয়ে ক্ষতিকর গ্রভাবে ভুগতে হচ্ছে তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোকে। তার নিদের্শনে দেখা গেছে, বিশ্বের এক শতাংশ ধনী মানুষ অর্থাৎ প্রায় ৮ কোটি মানুষ ৬৬ শতাংশ গরিব জনগোষ্ঠী তথা প্রায় ৫০০ কোটি মানুষের চেয়েও বেশি কার্বন নিঃসরণ করছে।

বৈশ্বিক জলবায়ু বৈষম্য নিয়ে পরিচালিত এই সমীক্ষায় দেখা যায়, ২০১৯ সালে বিশ্বজুড়ে যে পরিমাণ কার্বন ডাইঅক্সাইড নির্গত হয়েছিল, তার ১৬ শতাংশই করেছিল ধনীগোষ্ঠী। যাদের বাৎসরিক আয় ১ লাখ ৪০ হাজার ডলারের বেশি। এই জনগোষ্ঠির সবাই হচ্ছে বিলিয়নিয়ার ও মিলিয়নিয়ার। সব মিলিয়ে তাদের সংখ্যা ৭ কোটি ৭০ লাখ লোক।

গবেষণা প্রতিবেদন অনুসারে, এই পরিমাণ কার্বন ডাইঅক্সাইড নির্গত হওয়ার কারণে বিশ্বে তাপজনিত যেসব শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে তার ফলে ১০ লাখেরও বেশি মানুষের মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

প্রতিবেদন অনুসারে এই ১ শতাংশ মানুষ বসবাস করেন এমন এক পরিবেশে, যেখানে তাদের উপরে কার্বন নিঃসরণের প্রভাব খুব একটা পড়ে না। কিন্তু তারা শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ বা অন্যান্য যেসব উপায়ে জীবনযাপন ও আয় করে থাকেন। ফলে তারা প্রতি বছর গড়ে প্রায় ৬০০ কোটি টন কার্বন নিঃসরণ হয়। ২০১৯ সালেও তারা এই পরিমাণ কার্বন ডাইঅক্সাইড নিঃসরণের জন্য দায়ী ছিলেন।

প্রতিবেদন অনুসারে, প্রতি ১০ লাখ টন কার্বনের কারণে বিশ্বে অন্তত ২২৬ জন মানুষ মারা যায়। এই সংখ্যা বের করা হয়েছে ইউএস এনভায়রনমেন্টাল প্রোটেকশন এজেন্সির ব্যবহৃত একটি ‘মরটালিটি কস্ট ফর্মুলা’ ব্যবহার করে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, বিশ্বের এক শতাংশ ধনী মানুষ যে পরিমাণ কার্বন নিঃসরণ করে, তার জন্য আগামী কয়েক দশকে তাপজনিত সমস্যায় ১৩ লাখ মানুষের মৃত্যু হতে পারে।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান।

এম হাসান

×