ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯

২৬ বছর ধরে সালমান শাহকে নিয়ে কথা বলছি

এনআই বুলবুল

প্রকাশিত: ০০:৩৯, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২

২৬ বছর ধরে সালমান শাহকে নিয়ে কথা বলছি

জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী আগুন

হঠাৎ খলচরিত্রে অভিনয় করার সিদ্ধান্ত নিলেন কেন?
গানের বাইরে আমি তো অভিনয় করছি। এটা নতুন কিছু নয়। তবে খলচরিত্রে কাজ করাটা আমার জন্য একেবারে অন্যরকম অভিজ্ঞতা বলতে পারি। আমরা বিশ্বের নানা দেশের সিনেমাতে দেখাতে পাই অনেক ভিলেন আছেন নায়কদের চেয়ে স¥ার্ট-সুদর্শন। যাদের গেটআপ-কথা বলার স্টাইল দর্শকদের আকৃষ্ট করে। আমার চরিত্রটিও ঠিক তেমন বলতে পারি। এখানে ভিলেন বলতে যেমন- তেমন একটি চরিত্র নয়। এ কারণে কাজটি করার জন্য আগ্রহ পেয়েছি।
নিয়মিত কি খলচরিত্রে দেখা যাবে?
আমি অভিনয় পাগল মানুষ। নিয়মিত অভিনয় করতে চাই। সেখানে খলচরিত্রটি যদি আমার সঙ্গে যায় তাহলে আপত্তি নেই। একজন খলঅভিনেতা নানা রকম চরিত্রে কাজ করার সুযোগ পায় বলেই মনে করি। সত্যি বলতে খলঅভিনেতাই গল্পকে টেনে নেন।  আমাদের এখন কাজের পরিধি বেড়েছে টিভি সিনেমার বাইরেও অনেক প্ল্যাটফরমের জন্য নিয়মিত কাজ হচ্ছে। এসবে যদি ভাল গল্প ও কোয়ালিটির কাজ পাই তাহলে অবশ্যই সেটি ভেবে দেখব।
মুক্তির অপেক্ষায় থাকা ওয়েব সিরিজটি নিয়ে বলুন?
এটি ছয়টি গল্পে নির্মিত হয়েছে। ছয়টি গল্পের একটিতে আমি কাজ করেছি। আমার সঙ্গে আরও আছে মিথিলা। তার সঙ্গে এ কাজের মাধ্যমে সম্ভবত প্রথম বা দ্বিতীয়বারের মতো দেখা হলো। কিন্তু তার সঙ্গে কাজটি করার সময় খুব ভাল গেছে। সে দারুণ মিশুক। ওর চরিত্রটিও দর্শকের ভাল লাগবে।
অভিনয়ের বাইরে গানের ব্যস্ততা কেমন?
গান নিয়ে নিয়মিত কাজ করছি। নিজের জন্য কিছু গান করছি। এর বাইরে একটা শিশু শিল্পীর জন্য কিছু গানের কাজ করছি। এরমধ্যে তার জন্য তিনটি নজরুল সঙ্গীতের কাজ শেষ করেছি।
গানের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে কি বলবেন?
এ জাতি যতদিন শিক্ষিত বা স্বশিক্ষিত না হবে ততদিন ইন্টারনেট বন্ধ রাখা উচিত। কারণ এর অপব্যবহার বাড়ছে। অডিও গানের অস্থিরতা শুরু এমপি থ্রি দিয়ে। একটি এমপিথ্রিতে ৬০/৭০টি গান পাওয়া যেতে। এরপর কম্পিউটারের মাধ্যমে ডাউনলোড শুরু হলো। এসব অপব্যববহার যদি না হতো তাহলে এ গানের বাজার এত খারাপ হতো না। তবে একটা সত্য কথা হলো প্রতি ত্রিশ বছর পর পর গানে পরিবর্তন আসে। আমরা যদি গানের স্বর্ণযুগ বলি সেটা হলো ষাটের দশক ও নব্বইয়ের দর্শক। মাঝে ত্রিশ বছর নানা রকম গান ও প্রতিবন্ধতা ছিল। এখন আবার ত্রিশ বছর শেষের দিকে। খুব শিগগিরই নতুন কিছু আমাদের জন্য অপেক্ষা করছে।
প্রযুক্তির কল্যাণে শিল্পী সংখ্যা বেড়েই চলছে। আপনার মন্তব্য কি?
সময়ের সঙ্গে সব কিছু আধুনিক হবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু এটির সঠিক ব্যবহার যদি না করতে পারি তাহলে ধ্বংস নিশ্চিত। আমরা প্রযুক্তিকে কতটুকু সঠিক ব্যবহার করতে পারছি। প্রযুক্তির কল্যাণে সবাই শিল্পী হয়ে যাচ্ছে। আপনি কবিতার পড়লেন। সেটিওকে গান করে দেওয়া হচ্ছে প্রযুক্তির মাধ্যমে। প্রযুক্তির কল্যাণে দেখি অনেকে অডিওতে ভাল গায়। কিন্তু স্টেজে গেলে তাদের আসল রূপ প্রকাশ পেয়ে যায়। প্রযুক্তি নিয়ে আমার কোন নেতিবাচক মন্তব্য নেই। তবে যারা এটির সঠিক ব্যবহার করনছে না তাদের থেকে সাবধান থাকতে হবে।
সেপ্টেম্বর মাসে প্রয়াত নায়ক সালমান শাহর জন্ম ও মৃত্যু দিবস। এ নায়কের ঠোঁটে আপনার অনেক গান জনপ্রিয় হয়েছে। তাকে নিয়ে নানা সময় অনেক কথাও বলেছেন। আজ কি বলবেন?
আজ যেটি বলব সেটি হলো আমি গেল ২৬ বছর ধরে সালমান শাহকে নিয়ে কথা বলছি। আমার মৃত্যু পর্যন্ত তাকে নিয়ে কথা বলতে হবে এটাও জানি। এটি নিয়ে কোন বিরক্তি কাজ করে  না। সালমান শাহ তার ভক্তদের হৃদয়ে এমন ভাবে জায়গা করে নিয়েছে সেখ নে অন্য কেউ আর বসবে না। নতুন প্রজন্মও সালমানকে স্মরণ করে এটা আমার কাছ খুব ভালো লাগে। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার জন্মদিন কিংবা মৃত্যুদিনে যেভাবে সবাই তাকে নিয়ে লেখে এটা কজনের ভাগ্যে জোটে? মৃত্যুর এতদিন পরেও যাকে সবাই মনে রাখে তাকে নিয়ে বলতে আমারও খারাপ লাগে না।