ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১

আমার মেয়ে কবে কার সঙ্গে ডেটে গেছে, তা আমি জানি: স্বস্তিকা

প্রকাশিত: ১৭:০১, ২৫ জুন ২০২৪

আমার মেয়ে কবে কার সঙ্গে ডেটে গেছে, তা আমি জানি: স্বস্তিকা

স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়।

মুক্তির অপেক্ষায় স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় অভিনীত ওয়েব সিরিজ় ‘বিজয়া’। তার আগে আনন্দবাজার অনলাইনের মুখোমুখি হয়েছেন অভিনেত্রী। সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, এখনও পর্যন্ত আমাদের সম্পর্কটা খুবই ভাল। ও কবে কার সঙ্গে ডেটে গেছে, সেটাও আমি জানি। সন্তানকে এই কমফোর্ট জোনটা বাবা-মাদেরই দিতে হবে। 

অভিনেত্রী বলেন, একটা ঘটনা নিয়ে প্রতিবাদের জায়গা শুধু ফেসবুক হতে পারে না। কোন কিছু ঘটলেই সেটা নিয়ে ফেসবুকে লিখতে হবে বা কোনও চ্যানেলের আলোচনায় যোগ দিতে হবে- এগুলো আমার পছন্দ নয়। আমি শিল্পী। কাজের মাধ্যমেই আমার প্রতিবাদ। সমাজমাধ্যমের প্রতিবাদ মানুষ ভুলে যায়। কাজটা থেকে যাবে।‘বিজয়া’ ওয়েব সিরিজ়ের একটি দৃশ্যে স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। ছবি: সংগৃহীতদেখুন, আমাদের জীবনগুলো তো এখন রিল-সর্বস্ব হয়ে গেছে! সেখানে নিজেকে প্রাসঙ্গিক রাখতে হবে বা প্রচারে থাকতে হবে, এই মানসিকতা থেকেই এগুলো হচ্ছে। আমি জানি, সমাজমাধ্যমে কিছু লিখলেই তা নিয়ে সমালোচনা হবে। আমাকে নিয়ে অনেক দিন আলোচনা হচ্ছে না- এই ভাবনা থেকেই এগুলো হচ্ছে।

আপাতত এক বছর চাকরি করবে অণ্বেষা। তারপর পিএইচডির পড়াশোনা শুরু করবে। ঈশ্বরের আশীর্বাদে ওকে কখনও এ রকম পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়নি। আমি তো একজন মা। তাই সব সময় একটা চিন্তা লেগেই থাকে।

স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় জানান, কথা বলাটা খুবই প্রয়োজন। আমি জানি, ওরা বলতে ভয় পায়। ছোটদের মাথায় রাখা উচিত, ওরা যা-ই করুক না কেন, শেষ পর্যন্ত পরিবার কিন্তু পাশেই থাকবে। পরিবারের যে কোনও কাছের একজন, যাঁর সঙ্গে আড়াল ছাড়াই কথা বলা যায়, তাঁকে অন্তত সমস্যাটা জানালে, তিনি নির্দিষ্ট জায়গায় সেটা পৌঁছে দিতে পারবেন।

আমি তো ওকে রোজ বলি, আমাকে ভয় পাওয়ার কোনও কারণ নেই। মা কী ভাববে, তা ভেবে যেন কিছু লুকিয়ে না যায়। সমস্যা হলে দুই জনে মিলে তার সমাধান খোঁজার চেষ্টা করব। এখনও পর্যন্ত আমাদের সম্পর্কটা খুবই ভাল। ও কবে কার সঙ্গে ডেটে গেছে, সেটাও আমি জানি। সন্তানকে এই কমফোর্ট জোনটা বাবা-মাদেরই দিতে হবে। 

জুলাইয়ে প্রায় সাত-আট মাস পর মেয়ের সঙ্গে দেখা হবে। ভেবেই মনটা আনন্দে ভরে উঠছে।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।

 

এসআর

×