ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি: অনলাইনে আবেদন যেভাবে

প্রকাশিত: ১১:০২, ২৬ মে ২০২৪

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি: অনলাইনে আবেদন যেভাবে

শিক্ষার্থীরা ভর্তি আবেদনে ব্যস্ত। ফাইল ফটো

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন শুরু হয়েছে। রবিবার (২৬ মে) সকাল ৮টা থেকে অনলাইনে শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবেন বলে জানা গেছে। প্রথম ধাপের এ আবেদন প্রক্রিয়া চলবে আগামী ১১ জুন পর্যন্ত।

একাদশে ভর্তির প্রক্রিয়াটা পুরোপুরি অনলাইন-নির্ভর হওয়ায় শিক্ষার্থীরা নিজেরা ঘরে বসে আবেদন করতে পারবেন। আবেদনের ক্ষেত্রে অনলাইনে নিজের অ্যাকাউন্ট তৈরিসহ সব প্রক্রিয়া বিস্তারিতভাবে জানিয়ে দিয়েছে শিক্ষা বোর্ডগুলো।

আরও পড়ুন : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রবিবারের পরীক্ষা স্থগিত

শিক্ষার্থীর অ্যাকাউন্ট তৈরি
একাদশে ভর্তির আবেদন করতে নির্ধারিত ওয়েবসাইটে প্রবেশের পর প্রথমেই সাইন আপ লিংকে ক্লিক করতে হবে। সাইন আপে ক্লিক করলেই EDU আইডির জন্য আবেদনের প্রক্রিয়া শুরু হবে।

সেখানে প্রবেশ করে প্রথমে শিক্ষার্থীর ধরন নির্বাচন করতে হবে। পরবর্তীতে বোর্ডের নাম, পাসের সাল, রেজিস্ট্রেশন নম্বর এবং রোল নম্বর দিয়ে সাবমিট করলে শিক্ষার্থীর বিস্তারিত তথ্য দেখানো হবে।

তথ্য ঠিক থাকলে মোবাইল নম্বর এবং জন্ম নিবন্ধন নম্বর (আবশ্যক নয়) দিয়ে সাবমিট বাটনে ক্লিক করলেই EDU আইডি তৈরি হয়ে যাবে। এরপর একটি পাসওয়ার্ড শিক্ষার্থীর দেওয়া মোবাইল নম্বরে পাঠানো হবে।

EDU আইডি (ইউজার নেম হিসেবে) এবং মোবাইল ফোনে এসএমএসে আসা অস্থায়ী পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে অনলাইন পোর্টালে প্রথমবার লগইন করা যাবে। প্রথমবার লগইন করার পর শিক্ষার্থীকে নিজের পছন্দমতো পাসওয়ার্ড সেট করতে হবে।

আবেদন ফি পরিশোধ
নিজের মতো পাসওয়ার্ড সেট করে পুনরায় লগইন করতে হবে। এরপর Student Dashboard-এ যেতে হবে। এবার Dashboard-এর সাইডবারের আবেদন মেনু থেকে ‘আবেদন ফি জমা দিন’ লেখা বাটনে ক্লিক করলে পেমেন্ট গেইটওয়েগুলো (সোনালী সেবা ও SSLCOMMERZ) দেখা যাবে।

কলেজে ভর্তির আবেদন শুরু, জেনে নিন খুঁটিনাটি
যেকোনো একটি পেমেন্ট গেইটওয়ের মাধ্যমে ব্যাংক, কার্ড, অথবা মোবাইল ব্যাংকিং (যেমন—বিকাশ, নগদ, রকেট) ব্যবহার করে আবেদন ফি জমা দেওয়া যাবে।

এবার ভর্তি আবেদন
ফি পরিশোধের পর সাইডবার থেকে ‘আবেদন করুন’লেখা বাটনে ক্লিক করলে আবেদন জমা দেওয়ার নতুন Window দেখা যাবে। সেখান থেকে পছন্দমতো কলেজ বাছাই করে আবেদন জমা দিতে হবে।

লক্ষ্যণীয় যে, শুধুমাত্র ওইসব শিফট/ভার্সন/গ্রুপ সমূহই শিক্ষার্থী তার আবেদনে সময় দেখতে পাবে, যেগুলো বাছাই করার ন্যূনতম যোগ্যতা তার রয়েছে।

আবেদন করার পর সাইডবার থেকে ‘আবেদন দেখুন’—এ ক্লিক করলে আবেদন করা কলেজসমূহ ও পছন্দক্রম দেখা যাবে। এর মধ্য দিয়ে একজন শিক্ষার্থীর আবেদন প্রক্রিয়া শেষ হবে। আবেদনকারী চাইলে তার আবেদনসমূহ সংশ্লিষ্ট তথ্যাদিসহ ডাউনলোড করে প্রিন্ট করতে পারবেন।

ভর্তি নীতিমালা অনুযায়ী, আবেদন করার পর একজন আবেদনকারী সর্বোচ্চ ৫ বার অনলাইন আবেদন পোর্টালে লগইন করে কলেজের পছন্দক্রম এবং কলেজ পরিবর্তন করতে পারবেন।

ভর্তি আবেদনের যোগ্যতা
২০২২, ২০২৩ ও ২০২৪ সালে দেশের যেকোনো শিক্ষা বোর্ড থেকে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।

বিদেশি কোনো বোর্ড বা অনুরূপ কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডে তার সনদের মান নির্ধারণের পর ভর্তির যোগ্য বিবেচিত হবে।

একাদশ শ্রেণিতে সারাদেশে আসন কত
চলতি বছরের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ১১টি বোর্ডে মোট পাস করেছেন ১৬ লাখ ৭২ হাজার ১৫৩ জন শিক্ষার্থী। দেশের সরকারি-বেসরকারি কলেজ, মাদরাসা, পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মোট আসন প্রায় ৩৪ লাখ। সেই হিসাবে সব শিক্ষার্থী ভর্তি হলেও ফাঁকা থাকবে অর্ধেকের বেশি আসন।

 এসআর

সম্পর্কিত বিষয়:

×