ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০

বিসিএস সুপারিশপ্রাপ্ত রুবেলের প্রাণ কাড়লো বাস

প্রকাশিত: ১৯:৪৬, ৭ ডিসেম্বর ২০২৩

বিসিএস সুপারিশপ্রাপ্ত রুবেলের প্রাণ কাড়লো বাস

বিসিএসে সুপারিশপ্রাপ্ত রুবেল

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) অর্থনীতি বিভাগের ৪০ ব্যাচের সাবেক শিক্ষার্থী এবং ৪১তম বিসিএসে (শিক্ষা) সুপারিশপ্রাপ্ত মোহাম্মদ রুবেল পারভেজ সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন। 

বৃহস্পতিবার সকালের দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাই বাস স্টেশনে দুই বাসের রেষারেষিতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় রুবেল। 

নিহত রুবেল পারভেজের বাড়ি টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর থানায়। তার স্ত্রী ফারজানা, মেয়ে ফারিহা আর মাকে নিয়ে ধামরাইয়ে ভাড়া বাসায় থাকতেন। রুবেল মানিকগঞ্জে একটি বেসরকারি ব্যাংকের এমটিও পদে কর্মরত ছিলেন। 

সাভার হাইওয়ে থানা পরিদর্শক (তদন্ত) শেখ আবু হাসান বলেন, সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাই থানা বাস স্টেশনে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন রুবেল। এ সময় ঢাকাগামী একটি পরিবহনের দুই বাস রেষারেষি করে একে অপরকে ওভারটেক করার চেষ্টা করলে তাদেরকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই জাবির সাবেক শিক্ষার্থী রুবেল মারা যান।

জাবি শিক্ষার্থী রুবেলের মৃত্যুর ঘটনা মেনে নিতে পারছেন না তার সহকর্মী, বন্ধুবান্ধব ও বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক সকাল সাড়ে ৯টা থেকে জাবির প্রধান ফটক সংলগ্ন ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে ওই পরিবহনের বাস আটক করতে শুরু করেন তারা। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ১৮টি বাস আটক করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রুবেলের বন্ধু তৌহিদুল ইসলাম বলেন, এসএসসি পাসের পর পরই ওর বাবা মারা যায়। কলেজ জীবন থেকেই ধামরাইয়ে ভাড়া বাসায় থাকত। ধামরাই সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছে। অনেক সংগ্রাম করেছে সে। এখন বিসিএসে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েও নিজের পরিবারের জন্য সে কিছু করতে পারিনি। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর ও অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক মো. রনি হোসাইন বলেন, রুবেলের লাশ এখন তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ। মালিকপক্ষ যেন নিহত রুবেলের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেয় এবং ওই পরিবহনের লাইসেন্স বাতিল করার বিষয়ে আমরা হাইওয়ে থানা পুলিশের সাথে কথা বলেছি। তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

 

 

এস

×