ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৪ আশ্বিন ১৪৩০

সন্তানকে স্কুলে পাঠিয়ে চিন্তিত? ঘরে বসেই তথ্য জানবে অভিভাবক

প্রকাশিত: ১৯:২২, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

সন্তানকে স্কুলে পাঠিয়ে চিন্তিত? ঘরে বসেই তথ্য জানবে অভিভাবক

পাঞ্চ মেশিনে নিজেদের আইডি কার্ড প্রদর্শন করে ক্লাসে প্রবেশ করছে শিক্ষার্থীরা।

সন্তানকে স্কুলে পাঠিয়ে চিন্তায় থাকেন অভিভাবকরা। কিন্তু এবার সমাধান হচ্ছে এই চিন্তার। এবার ঘরে বসেই সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার হৈমবালা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের তথ্য জানতে পারবে অভিভাবকরা। 

জেলার প্রথম স্মার্ট বিদ্যালয় হিসেবে যাত্রা শুরু করা হৈমবালা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে হাজিরা, অনলাইনে বেতন, ডিজিটাল ক্লাস, পরীক্ষা ফি গ্রহণ করা হচ্ছে স্কুলটিতে। রবিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) এমনই দৃশ্য দেখা যায় স্কুলটিতে।

মোবাইলে মেসেজের মাধ্যমে অভিভাবকরা নিশ্চিত হতে পারছেন তাদের সন্তানরা স্কুলে কখন যাচ্ছে, কখন স্কুল থেকে বের হচ্ছে। আর রশিদ সিস্টেম নয়, অনলাইনে বেতন বা পরীক্ষা ফি দিয়ে মেসেজের মাধ্যমে নিশ্চিত হচ্ছে শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, শিক্ষার্থীরা লাইনে দাঁড়িয়ে পাঞ্চ মেশিনে নিজেদের আইডি কার্ড পাঞ্চ করে হাজিরা দিয়ে ক্লাসে প্রবেশ করে। আইডি কার্ড পাঞ্চ করার পর ডাটা উঠে যাচ্ছে হাজিরা শিটে। সেইসঙ্গে একটি মেসেজ যাচ্ছে তাদের অভিভাবকদের মোবাইল ফোনে। অভিভাবকরা নিশ্চিত হচ্ছেন তাদের সন্তান বিদ্যালয়ে গিয়েছে কিনা। 

এদিকে, চলতি বছরের ১৮ জুলাই বিদ্যালয়টিকে আধুনিক পদ্ধতি ব্যবহারের মাধ্যমে স্মার্ট বিদ্যালয় হিসেবে ঘোষণা করা হয়। শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের সময়মতো উপস্থিতি মূল্যায়ন রিপোর্ট, পরীক্ষার সিট প্লান, পরীক্ষার ফলাফল, বেতন ফি জমা দেওয়ার সব ভোগান্তি কাটিয়ে প্রযুক্তির মাধ্যমে এখন সব কিছুই সহজে করা যাচ্ছে। 

স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা মোছা. শামীম আরা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমাদের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির সিদ্ধান্তে বিদ্যালয়টি সিরাজগঞ্জে প্রথম স্মার্ট বিদ্যালয় করা হয়েছে। আইডি কার্ডে পাঞ্চ করে শিক্ষার্থীরা প্রবেশ করে। এতে উপস্থিতির হার অনেক বেড়েছে।’

 

এম হাসান