ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১

সনদ ছিঁড়ে দাবি আদায়ের আন্দোলন শিক্ষার্থীদের

প্রকাশিত: ১৮:৫৩, ১০ জুন ২০২৩; আপডেট: ১৮:৫৪, ১০ জুন ২০২৩

সনদ ছিঁড়ে দাবি আদায়ের আন্দোলন শিক্ষার্থীদের

সনদ হাতে শিক্ষার্থীরা।

প্রতিবাদ হিসেবে প্রতীকী সনদ ছিঁড়ে সরকারি চাকরিতে বয়সসীমা ৩৫ করার দাবিতে আন্দোলন করলেন শিক্ষার্থীরা। শনিবার (১০ জুন) রাজধানীর শাহবাগ মোড় অবরোধ করে এ আন্দোলন করেন চাকরিপ্রত্যাশী শিক্ষার্থীরা। 

ফেসবুকে একটি গ্রুপে সমাবেশের ডাক দেন চাকরিপ্রত্যাশীরা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করা শিক্ষার্থীরা এ আন্দোলনে যোগ দেন। সমাবেশে দাবিসমূহ বাস্তবায়নের জন্য শাহবাগ মোড়ে শিক্ষার্থী সমাবেশ ও প্রতীকী প্রতিবাদ হিসেবে ৩০ ঊর্ধ্ব সার্টিফিকেট ছেঁড়ার কর্মসূচি ঘোষণা করে।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, চাকরির বয়সসীমা ৩০ থেকে ৩৫ করার দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে যাচ্ছি। দেশের আমলা, কূটনীতিক ও মন্ত্রী, কেউ আজ পর্যন্ত আমাদের এ দাবিগুলো প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরতে পারেননি। চাকরিতে আবেদনের ফি কমিয়ে সর্বোচ্চ প্রথম শ্রেণিতে ২০০ টাকা, দ্বিতীয় শ্রেণিতে ১৫০ টাকা, তৃতীয় শ্রেণিতে ১০০ টাকা, চতুর্থ শ্রেণিতে ৫০ টাকা করার দাবি জানাচ্ছি।

তারা বলেন, বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার ২০১৮ এর পাতা ৩২ এবং শিক্ষা দক্ষতা ও কর্মসংস্থান বৃদ্ধি অনুচ্ছেদে বলা হয়েছিল, সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর বিষয়ে মেধা ও দক্ষতা বিবেচনায় রেখে বাস্তবতার নিরিখে যুক্তিসংগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ ছাড়াও ২০১১ সালে সরকারি চাকরি থেকে অবসরের বয়স দুই বছর বৃদ্ধি করে ৫৭ থেকে ৫৯ বছর করা হলেও চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বৃদ্ধি করা হয়নি এবং চাকরি শেষে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ স্বাভাবিক চাকরি প্রক্রিয়া ক্ষেত্রে অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায় নবীনদের জন্য। ফলে দেশে বাড়তে থাকে শিক্ষিত-উচ্চশিক্ষিত বেকারের সংখ্যা।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী ও ‘চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫ প্রত্যাশী শিক্ষার্থী সমন্বয় পরিষদের’ কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক শরিফুল হাসান শুভ।
 

এম হাসান

সম্পর্কিত বিষয়:

×