ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০২ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

সুবিধাবঞ্চিতদের উষ্ণতায় 

নোমান মিয়া 

প্রকাশিত: ০১:২৪, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সুবিধাবঞ্চিতদের উষ্ণতায় 

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

স্বপ্নোত্থান। শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। পড়ালেখার পাশাপাশি যার সদস্যরা সমাজের সুবিধা বঞ্চিত ও ছিন্নমূল মানুষদের মুখে হাসি ফুটাতে কাজ করে যাচ্ছে। 
প্রচ- শীতে যখন সবকিছুই বিপর্যস্ত হয়ে ওঠে, তখন সবচেয়ে বেশি কষ্টে ভুগেন এই অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিতরা।
যাদের অনেকেই রাতযাপন করেন ফুটপাতে, ভাঙা ঘরের মাটির শীতল বিছানায় কিংবা রেলস্টেশনের খোলা জায়গায়। যখন হিমেল হাওয়া চারদিক থেকে ঘিরে ধরে তখন হাত পা ঠা-া হয়ে যাদের সবসময় মৃত্যুর হাতছানি। 
এমন অসহায় মানুষদের উষ্ণতার ছোঁয়া দিতে স্বপ্নোত্থান ‘উষ্ণতার অভিযান’ নামে প্রতিবছর চ্যারিটি ক্যাম্পেইন করে থাকে। এ সময় শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল ও সিলেট শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে শীতের পুরনো পোশাক সংগ্রহ করে থাকেন। একই সঙ্গে স্বপ্নোত্থানের সাবেক সদস্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অর্থসংগ্রহ করে নতুন বস্ত্রও কিনে থাকেন তারা। এসব বস্ত্র ব্যবহার উপযোগী করে সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে বিতরণ করে সংগঠনটি। করে থাকেন আর্থিক সহযোগিতাও। 
স্বপ্নোত্থানের সদস্যরা জানান, এবারের ১৮০টি পরিবারের মাঝে নতুন কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। একই সঙ্গে এক হাজার ২৮০ জন শিশু, কিশোর, যুবক বৃদ্ধ এবং তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের শীতবস্ত্র প্রদান করা হয়েছে। 
এবার চারটি ধাপে এসব শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। প্রথম ধাপে মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়ার গাজীপুর ও মেহেদীবাগ চা বাগানে, এরপর মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়ার হিংগাজিয়া চা বাগানে ও তৃতীয় ধাপে গাইবান্ধা জেলার উত্তর ধানগড়া গ্রামে বিতরণ করা হয়। সর্বশেষ সিলেট শহরের আম্বরখানা এলাকায় ৩০ জন অসহায় তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের মাঝে নতুন কম্বল বিতরণ করেছে স্বপ্নোত্থান। আর এসব শীতবস্ত্র পেয়ে দাতাদের জন্য দোয়া কামনা করে সুবিধাবঞ্চিত লোকেরা হাসিমুখে ঘরে ফিরছেন।

×