রবিবার ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

জেএসসির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়

জেএসসির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়
  • মোঃ মনোয়ারুল হক

বিএসএস, বিএড (১ম শ্রেণি)

সিনিয়র শিক্ষক, কানকিরহাট বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়

সেনবাগ, নোয়াখালী

Email: [email protected]

সৃজনশীল প্রশ্ন

নবম অধ্যায়-বাংলাদেশের জনসংখ্যা ও উন্নয়ন

উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।

তমা ও তিশি দুই বোন। তমার স্বামী স্বল্প বেতনে চাকুরী করলেও তাদের পরিবারের দুই সন্তান নিয়ে কোন টানাপোড়েন নেই। কিন্তু তিশির পাঁচ সন্তান। তার স্বামীর রোজগার বেশী হলেও তাদের পরিবারে নানা সমস্যা লেগেই থাকে।

ক. জনসংখ্যা সম্পর্কিত বাংলাদেশের সেøাগান কী?

খ. জনসংখ্যা নীতি বলতে কী বোঝ?

গ. তিশির পরিবার যে সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে, তা ব্যাখ্যা কর।

ঘ. ‘তমার পরিবার সুখী পরিবার’- উত্তরের স্বপক্ষে যুক্তি দাও।

ক. জনসংখ্যা সম্পর্কিত বাংলাদেশের সেøাগান হলো- ছেলে হোক মেয়ে হোক দুটি সন্তানই যথেষ্ট, একটি হলে ভালো হয়।

খ. কোনো দেশের জনসংখ্যা বিষয়ে জাতীয় পর্যায়ে যে নীতি গ্রহণ করা হয় তাকেই বলা হয় দেশটির জনসংখ্যা নীতি। দেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে এ নীতি প্রণয়ন করা হয়। এ নীতি অনুসরণ করে দেশের জনসংখ্যাকে জনসম্পদে রূপান্তর করা সম্ভব।

গ. উদ্দীপিকে তিশির পরিবার অতিরিক্ত জনসংখ্যাজনিত সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। ফলে পরিবারটিতে নানাবিধ সমস্যা লেগেই আছে। উদ্দীপকের তিশির স্বামীর আয় বেশি হলেও পরিবারের সদস্য সংখ্যা বেশি হওয়ার কারণে প্রত্যকের চাহিদা সমভাবে পূরণ করা সম্ভব হচ্ছে না। ফলে পরিবারটি নানা ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। সদস্য সংখ্যা বেশি হওয়ার কারণে তিশিদের বাসস্থানে আবাসন সমস্যা হতে পারে। বেশি লোকের খাদ্যের জন্য অধিক ব্যয় করতে হয়, ফলে সবার জন্য পুষ্টিকর খাবারের ব্যবস্থা করা সম্ভব হয় না। এতে তারা নানা ধরনের শারীরিক অসুস্থতার শিকার হতে পারে। অধিক সদস্যদের জন্য অধিক খাদ্যের ব্যবস্থা করতে গিয়ে অনেক সময় সবার শিক্ষার ব্যবস্থা করা যায় না। এর ফলে তিশির পরিবারের সদস্যরা শিক্ষাগ্রহণ থেকে বঞ্চিত হতে পারে। অনেক সময় পরিবারের সকল সদস্যদের জন্য চিকিৎসার ব্যবস্থা করা সম্ভব হয় না। যার কারণে তিশির পরিবারের সদস্যরা চিকিৎসার অভাবে নানা রোগেও ভুগতে পারে। এছাড়াও তিশিরা বিনোদনমূলক কার্যক্রম থেকে বঞ্চিত হতে পারে।

সুতরাং বলা যায়, অধিক সদস্য সংখ্যার কারণে তিশির পরিবারে জীবনযাত্রার মান নিশ্চিত করা সম্ভব হচ্ছে না।

ঘ. উদ্দীপকের তমার পরিবার সুখী পরিবার। কারণ তমার পরিবারে সদস্য সংখ্যা কম। ফলে পরিবারটিতে কোনো সমস্যা নেই। উদ্দীপকের তমার স্বামীর আয় কম হলেও পরিবারের সদস্য সংখ্যা কম হওয়ার কারণে প্রত্যেকের চাহিদা সমভাবে পূরণ করা সম্ভব হচ্ছে। ফলে পরিবারটি কোনো ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে না। সদস্যসংখ্যা কম হওয়ার কারণে তমাদের বাসস্থানে আবাসন সমস্যা নেই । লোক সংখ্যা কম তাই খাদ্যের জন্য অধিক ব্যয় করতে হয় না ফলে সবার জন্য পুষ্টিকর খাবারের ব্যবস্থা খুব সহজভাবে করা যায়। এতে তাদের নানা ধরনের শারীরিক অসুস্থতার সম্মুখীন হতে হয় না।। সদস্য সংখ্যা কম হওয়ার কারণে খাদ্য বাবদ খরচ কম করতে হয় ফলে সবার জন্য শিক্ষার ব্যবস্থা নিশ্চিত করা সহজ হয়। ফলে তমাদের পরিবারের সদস্যদের শিক্ষাগ্রহণ থেকে বঞ্চিত হতে হয় না। তমার পরিবারের সদস্য কম হওয়ার ফলে পরিবারের সকল সদস্যদের জন্য চিকিৎসার ব্যবস্থা করাও সম্ভব হয়। যার কারণে তমার পরিবারের সদস্যদের চিকিৎসার অভাবে কোনো রোগেও ভুগতে হয় না। এছাড়াও তমারা আনন্দের সাথে বিনোদনমূলক কার্যক্রমে অংশ গ্রহণ করতে পারে। এতে করে তাদের পরিবারে শান্তি বিরাজ করছে এবং তারা সুখে- শান্তিতে জীবন যাপন করছে। কম সদস্য সংখ্যার কারণে তমার পরিবারের জীবনযাত্রার মান নিশ্চিত করা সম্ভব হচ্ছে।

শীর্ষ সংবাদ:
পঞ্চম ধাপে পৌরসভা নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা         পার্বত্য জেলায় শান্তি আনতে আধুনিক পুলিশ মোতায়েন করা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         বঙ্গবন্ধু এওয়ার্ড ফর ওয়াইল্ডলাইফ কনজারভেশন পাচ্ছেন যারা         জিয়াকে জাতির পিতা বলায় তারেকের বিরুদ্ধে মামলা         প্রাইভেট মেডিক্যালের চিকিৎসার খরচ সরকার নির্ধারণ করবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         কোভিড-১৯: এক দিনে মৃত্যু ৮, নতুন শনাক্ত ৩৮৫         খুলনায় হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন         প্রাথমিকের ৪৮ হাজার শিক্ষকের টাইম স্কেল ফেরতের রিট খারিজ         স্বাধীনতার সূবর্ণজয়ন্তী ॥ ২৫শে মার্চ নির্মম গণহত্যার পর আসে স্বাধীনতার ঘোষণা ও যুদ্ধের প্রস্তুতি         “মুশতাকের মৃত্যু নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা হচ্ছে”         ১ মার্চ থেকে ৫ অভয়াশ্রমে সব ধরনের মাছ ধরা নিষিদ্ধ         শিক্ষাসহায়তায় বিত্তশালীদের এগিয়ে আসার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর         করোনায় বীমা মেলা বাতিল, বীমা দিবস উদযাপিত হবে         ভাসানচর পরিদর্শনে যাচ্ছে ওআইসি প্রতিনিধি দল         প্রেসক্লাবের সামনে ছাত্রদল-পুলিশ ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া         ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ নেবে না বিএনপি ॥ ফখরুল         কুড়িগ্রামে প্রতারণা মামলায় আল হামীমের সাবেক ৩ কর্মকর্তা কারাগারে         সামরিক অভ্যুত্থানবিরোধী মিছিলে গুলিতে নিহত ১         যুক্তরাষ্ট্রে মোমেন-কেরি বৈঠক         হুথিদের ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্র ব্যর্থ করে দিয়েছে রিয়াদ