সোমবার ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ৩০ নভেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

টাকা পাচারে এগিয়ে

ভয়ঙ্কর তথ্য জানল দেশবাসী। বিদেশে টাকা পাচারে সবাইকে পেছনে ফেলে বীরদর্পে এগিয়ে চলেছে দেশের সরকারী কর্মচারীরা। এই তথ্য বিদেশ থেকে পাওয়া যায়নি। সুইস ব্যাংকের মতো ব্যাংক যেখানে টাকা রাখতে পছন্দ করেন দেশের ধনী ব্যক্তিরা, তারা তো মুখে কুলুপ এঁটে বসে থাকে। সুইস ব্যাংক কর্তৃপক্ষ কখনোই জানায় না তাদের ব্যাংকে বাংলাদেশীদের টাকা রাখার খতিয়ান। বিদেশে টাকা পাচারে সরকারী কর্মচারীই বেশি- এমন শিরোনামে জনকণ্ঠে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে বৃহস্পতিবার। স্বয়ং পররাষ্ট্রমন্ত্রীর উদ্ধৃতি দিয়েই এই চমক লাগানো সংবাদটি বেরিয়েছে। অল্পবিস্তর খোঁজখবর সাপেক্ষেই এই খবর বেরিয়ে এসেছে। আরও জোরালোভাবে সক্রিয় হলে সামনের দিনগুলোয় টাকা পাচার সংক্রান্ত পিলে চমকানো আরও খবর যে দেশের মানুষ জানতে পারবে তাতে কোন সন্দেহ নেই। টাকা পাচার করে বিদেশে সেকেন্ড হোম গড়ে তোলার সংস্কৃতি বেশ চালু।

কিন্তু দক্ষিণ এশিয়ার হিসাবেও বাংলাদেশের মানুষের গড় আয় ভারত, ভুটান ও মালদ্বীপের চেয়ে কম। এশীয় পরিসরে এ স্থান অনেক অনেক নিচে। বিশ্বপরিসরেও তাই। তবে দেশ থেকে অর্থ পাচার এবং অন্য দেশে সহায়-সম্পত্তি করার ক্ষেত্রে বাংলাদেশীরা ধারে-কাছের সব দেশের চেয়ে এগিয়ে। মালয়েশিয়ায় সেকেন্ড হোম প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশ থেকে বৈধ উপায়ে কেউ কি টাকা নিয়ে যান? এজন্য যে টাকা লেগে থাকে তার পুরোটাই পাচার হয় বলে ধারণা করা যায়। সেকেন্ড হোমের জন্য কী পরিমাণ অর্থ মালয়েশিয়ায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে তার সুনির্দিষ্ট কোন পরিমাণ জানা কঠিন। মালয়েশিয়ায় সেকেন্ড হোম কর্মসূচীর আওতায় সম্প্রতি আরও ৪ হাজার বাংলাদেশী আবেদন করেছেন। ৮ বছর আগে সেকেন্ড হোমের এই প্রকল্প করার পর ইতোমধ্যে ৬০ হাজার বিদেশী সেখানে বাড়িঘর কিনে ব্যবসা বাণিজ্যে জড়িয়েছেন, স্থায়ীভাবে পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করছেন। মালয়েশীয় সরকার টাকার উৎস সম্পর্কে প্রশ্ন না তোলায় ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, চীন এবং মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দেশ এমন কি ইউরোপ আমেরিকার অনেকেই সেকেন্ড হোম হিসাবে মালয়েশিয়াকে বেছে নিয়েছেন।

বুধবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) ‘মিট দ্য প্রেস’ অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘গোপনে কানাডার টরোন্টোতে অবস্থিত বাংলাদেশীদের বিষয়ে খোঁজ নেয়া হয়েছে। আমার ধারণা ছিল রাজনীতিবিদদের সংখ্যাই বেশি হবে। কিন্তু যে তথ্য পেয়েছি তাতে অবাক হয়েছি। সংখ্যার দিক থেকে সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীর বাড়িঘর সেখানে বেশি আছে এবং তাদের ছেলেমেয়েরা সেখানে থাকে। আমার কাছে ২৮টি কেস এসেছে এবং এর মধ্যে রাজনীতিবিদ হলেন চার জন।’

মন্ত্রী যথার্থই বলেছেন, বিদেশে যদি কেউ বৈধভাবে টাকা নেয় তাহলে কোন আপত্তি নেই। তবে অবৈধভাবে পাচার করলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে দেশবাসী মনে করে সরকারী কর্মচারীদের আয়ের সঙ্গে ব্যয় ও সঞ্চয়ের যদি বড় ধরনের ব্যবধান রয়ে যায় তবে অবশ্যই এর বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে হবে। সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীরা হলো পাবলিক সার্ভেন্ট বা দেশবাসীর সেবক। এই সেবার অন্তরালে যদি পকেট ভারি হয় তবে সেটি যে অন্যায্য তা বলাই বাহুল্য। বর্তমান সরকার দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। তাই দুর্নীতি যে শ্রেণীপেশার মানুষই করুক না কেন তাকে আইনের মুখোমুখি দাঁড় করানো জরুরী। দেশের অর্থ ও সম্পদ যারা বিদেশে পাচার করে তারা কখনোই দেশের মিত্র হতে পারে না। তারা এ দেশে জন্মগ্রহণ করলেও তারা দেশের কুসন্তান। তাদের যথোপযুক্ত শাস্তি নিশ্চিত করার জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালাতে হবে।

শীর্ষ সংবাদ:
অক্সফোর্ডের ৩ কোটি ভ্যাকসিন বিনামূল্যে দেবে সরকার         জেএমআই চেয়ারম্যানের জামিন কেন বাতিল নয়, হাইকোর্টের রুল         করোনা ভাইরাসে আরও ৩৫ জনের মৃত্যু, ১২ সপ্তাহের মধ্যে সর্বাধিক শনাক্ত         মাস্ক পরাতে জরিমানায় কাজ না হলে জেলও হতে পারে         ডোপ টেস্ট ॥ চাকরি হারালেন ৮ পুলিশ সদস্য         করোনার দ্বিতীয় ধাক্কার মধ্যেই নিউইয়র্কে খুলছে স্কুল!         ইসরায়েল-ফিলিস্তিন ॥ দ্বি-রাষ্ট্র তত্ত্বের পক্ষেই বাংলাদেশ         ‘ভাস্কর্য নিয়ে উসকানিমূলক বক্তব্য দিতে থাকলে সরকার বসে থাকবে না’         এক দশকে করদাতার সংখ্যা বেড়েছে ৩৫৭ শতাংশ         বেতন বৈষম্য নিরসন দাবিতে স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি অব্যাহত         জামিন পেলেন কারাগারে বিয়ে করা ফেনীর সেই যুবক         নুরদের লালবাগের মামলার প্রতিবেদন ২০ ডিসেম্বর         সাংসদ হাজী সেলিমের স্ত্রী মারা গেছেন         করোনা আতঙ্কে শ্রীলঙ্কায় কারাগারে সংঘর্ষে নিহত ৬         এটি ছিল কারচুপির নির্বাচন: ট্রাম্প         করোনায় ভারতে নতুন আক্রান্ত ৩৮৭৭২, মৃত্যু ৪৪৩         ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানীকে হত্যা করা হয় রিমোট কন্ট্রোলড বন্দুক দিয়ে         যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভাইরাসের পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হতে পারে ॥ ফাউচি         করোনা ভাইরাস ॥ বিশ্বজুড়ে শনাক্তের সংখ্যা ৬ কোটি ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে         নাইজেরিয়ায় অন্তত ১১০ কৃষককে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে ॥ জাতিসংঘ