বুধবার ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

উচ্চ মাধ্যমিকের পড়াশোনা

উচ্চ মাধ্যমিকের পড়াশোনা
  • বিষয় : উচ্চতর গণিত
  • মোঃ মাসুদ খান

প্রধান শিক্ষক

ডেমরা হাই স্কুল এন্ড কলেজ, ডেমরা, ঢাকা।

ই-মেইল: [email protected]

প্রিয় শিক্ষার্থীবৃন্দ,

অনেকেই সৃজনশীল উচ্চতর গণিত নিয়ে হয়তো অনেক ভয়ে আছো। উচ্চতর গণিত বিষয়টি সৃজনশীল হওয়ায় তোমাদের ভয়ের কোনো কারণ নেই বরং পূর্বের প্রচলিত পরীক্ষা পদ্ধতির তুলনায় বর্তমান সৃজনশীল প্রশ্ন পদ্ধতিতে উচ্চতর গণিতে বেশি নম্বর পাওয়ার অনেক সুযোগ আছে। কারণ পূর্বে যেখানে কোনো অঙ্ক ভুল করলে পুরো নম্বর কাটা যেত। কিন্তু এখন সৃজনশীল উচ্চতর গণিতে ধাপ ভিত্তিক নম্বর প্রদান করা হয়। তাই তোমরা প্রতিটি অংশে (ক,খ,গ,ঘ) যে কয়টি ধাপ সঠিকভাবে সম্পন্ন করতে পারবে, সেই কয়টি ধাপের পুরো নম্বরই পাবে।

এইচএসসি উচ্চতর গণিতের মানবণ্টন:

উচ্চতর গণিত প্রথম পত্র : প্রথম পত্রে ২টি বিভাগ থাকবে। ‘ক’ বিভাগে থাকবে বীজগণিত ও জ্যামিতি এবং ‘খ’ বিভাগে থাকবে ত্রিকোণমিতি ও ক্যালকুলাস। প্রতিটি বিভাগে ৪টি করে মোট ৮টি প্রশ্ন থাকবে। প্রতিটি বিভাগ থেকে ২টি করে মোট ৫টি প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে।

উচ্চতর গণিত দ্বিতীয় পত্র : দ্বিতীয় পত্রেও ২টি বিভাগ থাকবে। ‘ক’ বিভাগে থাকবে বীজগণিত ও ত্রিকোণমিতি এবং ‘খ’ বিভাগে থাকবে জ্যামিতি, বলবিদ্যা ও পরিসংখ্যান। প্রতিটি বিভাগে ৪টি করে মোট ৮টি প্রশ্ন থাকবে। প্রতিটি বিভাগ থেকে ২টি করে মোট ৫টি প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে।

সৃজনশীল বহুনির্বাচনি অংশে প্রতি পত্রে ২৫টি করে প্রশ্ন থাকবে। সবগুলো প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। প্রতিটি অধ্যায় থেকে কমপক্ষে ২টি করে প্রশ্ন থাকবে।

উচ্চতর গণিতে অ+ পেতে হলে যা করতে হবে :

প্রথমে প্রশ্ন মনোযোগ দিয়ে পড়বে। বহুনির্বাচনি প্রশ্নের উত্তরের জন্য সঠিক উত্তরের বৃত্তটি সম্পূর্ণ ভরাট করবে। মনে রাখবে, একই প্রশ্নোত্তরে একাধিক বৃত্ত ভরাট করা যাবে না।

সৃজনশীল রচনামূলক প্রশ্নটি মনোযোগ দিয়ে পড়ার পর ঠিক করবে কোন কোন প্রশ্নের উত্তর ভালোভাবে পারো, তা পেনসিল দিয়ে চিহ্নিত করবে। যে প্রশ্নের উত্তরটি সবচেয়ে ভালোভাবে পারো সেই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে রচনামূলক প্রশ্নের রচনামূলক অংশের উত্তর লেখা শুরু করবে।

অবশ্যই প্রতিটি পত্রে ৫টি করে প্রশ্নের উত্তর দিতে চেষ্টা করবে। তোমরা ইতিমধ্যে জেনেছ যে, প্রতিটি উচ্চতর গণিত সৃজনশীল রচনামূলক প্রশ্নের তিনটি অংশ।

১. ‘ক’ অংশ Ñ যার উত্তরে কমপক্ষে দুটি ধাপ থাকবে। নম্বর থাকবে (১ + ১)। একটি ধাপের উত্তর যদি কোনো কারণে ভুল হয়, কিন্তু অপর ধাপের সঠিক উত্তরের জন্য ১ নম্বর পাওয়া যাবে। সম্পূর্ণ উত্তরটি সঠিকভাবে দিতে পারোনি বলে আংশিক দেওয়া উত্তরটি কেটে দিবে না। কারণ এ ধাপেও তুমি নম্বর পাবে।

২. ‘খ’ অংশ Ñ যার উত্তরে কমপক্ষে চারটি ধাপ থাকা বাঞ্ছনীয়। নম্বর থাকবে (১ + ১ + ১ + ১)। অর্থাৎ উত্তরের প্রতিটি সঠিক ধাপের জন্য ১ নম্বর পাবে। আগের পরীক্ষা পদ্ধতিতে প্রশ্নের উত্তর সম্পূর্ণ সঠিক না হলে কোনো নম্বর দেওয়া হতো না। কিন্তু বর্তমান সৃজনশীল প্রশ্নপদ্ধতিতে উত্তরের প্রতিটি সঠিক ধাপের জন্য ১ নম্বর পাবে।

৩. ‘গ’ অংশ Ñ যার উত্তরেও কমপক্ষে চারটি ধাপ থাকবে। নম্বর থাকবে (১ + ১ + ১ + ১)। অর্থাৎ উত্তরের প্রতিটি সঠিক ধাপের জন্য ১ নম্বর পাবে।

মনে রাখা প্রয়োজন:

* কোনো প্রশ্নের সমাধান সম্পূর্ণ না করতে পারলে আংশিক সমাধান কেটে দিবে না। কারণ আংশিক সমাধানেও নম্বর পাবে।

* ‘ক’ অংশের ভুল উত্তর ব্যবহার করে ‘খ’ অংশের সমাধান যথাযথভাবে করতে পারলে ‘খ’ অংশের পূর্ণ নম্বর পাবে। ‘গ’ অংশের জন্য একই নিয়ম প্রযোজ্য।

* কোনো সাজেশন অনুসরণ করবে না। কারণ সৃজনশীল উচ্চতর গণিতে সাজেশন অনুসরণ করলে কোনোভাবেই ভালো ফলাফল করা সম্ভব নয়।

* বহুনির্বাচনি অংশের জন্য পাঠ্য বইয়ের খুটিনাটি সকল বিষয় পড়তে হবে। কারণ বহুনির্বাচনি অংশে ভালো করতে পারলে অ+ পাওয়া সহজ হবে।

শীর্ষ সংবাদ:
ভরিতে সাড়ে ৩ হাজার টাকা কমল স্বর্ণের দাম         ভ্যাকসিন কেনার বিষয়ে আগামী সপ্তাহে সিদ্ধান্ত : জাহিদ মালেক         ‘অটো পাস’ আপাতত চিন্তায় নেই : শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী         আগামী ১৬ আগস্ট থেকে ইউএস-বাংলার ঢাকা-কুয়ালালামপুর ফ্লাইট শুরু         মানবতাবিরোধী অপরাধ: চার পলাতক আসামির বিরুদ্ধে তদন্ত চুড়ান্ত         এ বছরে হবে না এশিয়ার বিশ্বকাপ বাছাই         করোনা ভাইরাসের টিকার জন্য আলাদা অর্থ রাখা হয়েছে ॥ অর্থমন্ত্রী         ‘আমি একজন পরিশ্রমী, নিষ্ঠাবাদ ও সৎ কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি’         করোনা ভাইরাসে মৃত্যু সাড়ে তিন হাজার ছাড়াল, নতুন আক্রান্ত ২৯৯৫         ‘শাহজালাল (রহ.) মাজারে হামলার পরিকল্পনা ছিল নব্য জেএমবির’         করোনা ভাইরাসের বুলেটিন একেবারে বন্ধ না করার আহ্বান কাদেরের         মেজর সিনহা হত্যা ॥ ৪ পুলিশসহ ৭ জন সাত দিনের রিমান্ডে         বিদেশফেরত ৭০ শতাংশ জীবিকা সংকটে         মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় পলাতক চারজনের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন চূড়ান্ত         বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ১০ লাখ ইউরো দেবে ইইউ         এমপিদের থোক বরাদ্দ অর্থনৈতিক সুবিধার পথ ॥ টিআইবি         ১৩৯ দিন পর শারীরিক উপস্থিতিতে হাইকোর্টে বিচার কাজ শুরু         করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রুমিন ফারহানা         বৃষ্টিপাত হচ্ছে ॥ ৩ দিন পর আরও বাড়তে পারে         কাতার থেকে ফিরলেন ৪১৩ বাংলাদেশি        
//--BID Records