মঙ্গলবার ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ১১ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বন্দুকযুদ্ধে কুড়িলে ২ ছিনতাইকারী নিহত

বন্দুকযুদ্ধে কুড়িলে ২ ছিনতাইকারী নিহত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোড এলাকায় পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই ছিনতাইকারী নিহত হয়েছে। নিহতরা হচ্ছে নান্নু ও মোশাররফ। ডিবি পুলিশ জানায়, নিহতরা ছিনতাইকারী চক্রের সদস্য ও সাজাপ্রাপ্ত আসামি ছিল। গত ১৭ জুন গুলশানে হারুন নামের এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী হত্যার সঙ্গে জড়িত ছিল তারা। এ সময় শফিক ও সিদ্দিক নামে আরও দুই ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে গুলিভর্তি পিস্তল ও ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

ডিবি পুলিশ জানায়, ডিবি (উত্তর) পুলিশের একটি দল রবিবার রাতে গোপন সংবাদ পান অটোরিক্সায় করে একটি দল অপরাধ সংঘটনে খিলক্ষেত এলাকায় অবস্থান করছে। এ সময় ডিবি পুলিশ তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে এটি নিশ্চিত হয়। পরে গুলশান বিভাগের পুলিশের ডিসির নেতৃত্বে আরেকটি টিম মধ্যরাতে ৩০০ ফুট পূর্বাচলগামী রাস্তাসহ খিলক্ষেতের বিভিন্ন জায়গায় অবস্থান নেয়। রাত আড়াইটার দিকে একটি সিএনজিচালিত অটোরিক্সা শ্যাওড়া বাসস্ট্যান্ড দিয়ে খিলক্ষেত ফ্লাইওভারের দিকে যেতে থাকে। এ সময় ডিবির টিমটি সিগন্যাল দিলে সিএনজিটি দ্রুত বেগে পালাতে থাকে। পরে ফ্লাইওভারের পূর্ব প্রান্তে অবস্থানরত ডিবির অন্য দল চেকপোস্ট বসায়। শ্যাওড়া বাসস্ট্যান্ড থেকে ডিবির দলটি সিএনজিটির পেছন থেকে ধাওয়া করতে থাকে। কুড়িল বিশ্বরোড ফ্লাইওভারের নিচে সিএনজি থেকে দু’জন দুর্বৃত্ত ডিবির টিমকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। ডিবিও পাল্টা গুলি ছোড়ে। গোলাগুলির একপর্যায়ে দুই ব্যক্তিকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে ডিবি। এ সময় ডিবি সিএনজি থামিয়ে শফিকুল ইসলাম ও সিদ্দিক নামের দুই ছিনতাইকারীকে আটক করে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে বিদেশী পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, দুটি গুলি, কাদামাখা একটি চাপাতি, একটি চাকু, এক কৌটা মলম, একটি প্যাঁচানো গামছা, দুটি মোবাইল ও একটি অটোরিক্সা জব্দ করে ডিবি। পরে গুলিবিদ্ধ দুই ছিনতাইকারীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আনা হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ডিবি উত্তরের উপকমিশনার (ডিসি) মশিউর রহমান বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত শফিক এবং তার সহযোগী সিদ্দিক ডিবিকে জানান, গোলাগুলিতে নিহত ব্যক্তিদের একজনের নাম নান্নু। অন্যজনের জনের নাম মোশাররফ। নান্নু এক সময় হলুদ ট্যাক্সিক্যাব চালাত। ট্যাক্সিক্যাবের যাত্রী হত্যায় জড়িত থাকায় তিনি ছয় বছর কারাগারে ছিল। মোশাররফও একাধিক মামলায় সাজা ভোগ ও হাজতবাস করেছে। শফিক ও সহযোগী সিদ্দিক ইয়াবা, ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার হয়ে সাজা ভোগ ও হাজতবাস করেছে। ডিবির তথ্যমতে, শফিক ও সিদ্দিকের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, নান্নু ও মোশাররফের সঙ্গে তারা মাদকসেবন করত। তারা দীর্ঘদিন ধরে সিএনজি মালিকের কাছ থেকে নিয়মিত যাত্রী পরিবহনের পাশাপাশি ঢাকা মহানগরীর মহাখালী, বনানী, চেয়ারম্যানবাড়ি, আমতলী, সৈনিক ক্লাব থেকে যাত্রী উঠিয়ে চোখে মরিচের গুঁড়া মেশানো মলম মাখিয়ে অর্থসহ মূল্যবান সামগ্রী ছিনিয়ে নিয়ে রাস্তা ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিত। যাত্রী বাধা দিলে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করে লাশ পূর্বাচলগামী ৩০০ ফুট রাস্তা, তুরাগ থানাধীন দিয়াবাড়ি ও বেড়িবাঁধ এলাকায় ফেলে দিত। ডিবি দেয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ১৭ জুন তাদের নির্মমতার শিকার হন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী হারুন। তাকে আমতলী থেকে যাত্রী হিসেবে উঠিয়ে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল পার হওয়ার পরপরই কিলঘুষি মেরে চোখে মলম লাগিয়ে দেয় এই চক্র। হারুন বাধা দিতে চাইলে তার গলায় গামছা পেঁচিয়ে নান্নু ও মোশাররফ জোরে টানতে থাকে। একপর্যায়ে হারুনের নাক-কান দিয়ে রক্ত বের হয়ে তিনি মারা গেলে আসামিরা কুড়িল ফ্লাইওভার হয়ে অস্ট্রেলিয়ান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের কাছাকাছি ধাক্কা দিয়ে হারুনের লাশ ফেলে পালিয়ে যায়।

শীর্ষ সংবাদ:
মন্দির প্রাঙ্গণেই জন্মাষ্টমীর সব আয়োজন         মাথাপিছু আয় বেড়ে এখন ২০৬৪ ডলার         বাতিল হচ্ছে পিইসি-জেএসসি পরীক্ষা         গাজীপুরে পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভ, আড়াই ঘন্টা মহাসড়ক অবরোধ         ব্রাজিলে কমেছে সংক্রমণ, বেড়েছে সুস্থতা         বিতর্কিত নির্বাচনে উত্তাল বেলারুশ         করোনার ‘প্রকৃত তথ্য’ জানানোয় ইরানে পত্রিকা বন্ধ !         টিকটকে ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার প্রমাণ নেই ॥ সিআইএ         তাইওয়ানে যুক্তরাষ্ট্রের মন্ত্রীর সফরে নিয়ে ক্ষুব্ধ চীন         ব্রিটেনে মহাত্মা গান্ধীর চশমা নিলামে         বিশ্বে ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার মৃত্যু, ২ লাখের বেশি শনাক্ত         করোনা কোনো মৌসুম মানে না : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা         ক্রমবর্ধমান চাপের মুখে লেবাননের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ         ট্রাম্পের ব্রিফিংকালে হোয়াইট হাউসের বাইরে গোলাগুলি         বার্মিংহামে প্লাস্টিক ফ্যাক্টরিতে ভয়াবহ আগুন         হায় স্বাস্থ্যবিধি! অস্তিত্ব শুধু কাগজে কলমে         বন্যা দীর্ঘস্থায়ী হতে পারে, সতর্ক থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         সিনহা হত্যাকাণ্ডের নেপথ্য ঘটনা এখনও স্পষ্ট নয়         সরকারের পদক্ষেপে সিনহার মা বোনের সন্তোষ         ওসি প্রদীপসহ চার আসামিকে রিমান্ডে চায় র‌্যাব        
//--BID Records